এবার প্রতিবাদী গানে বর্ষবরণ করবে বিএনপি

আগের সংবাদ

মাদরাসা ছাত্র হত্যার অভিযোগে অধ্যক্ষসহ গ্রেপ্তার ৫

পরের সংবাদ

‘খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে প্রস্তাব দিলে আলোচনা হতে পারে’

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ১২, ২০১৯ , ১০:৩১ অপরাহ্ণ

বিএনপির কারাবন্দী চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘দু্ই-একজন মন্ত্রী প্যারোলের কথা বললেও মুক্তির বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে অফিশিয়ালি কোন কথা আসেনি। মুক্তি নিয়ে কোন কথা আসলে আলোচনা হতে পারে’।

আজ শুক্রবার বিকেল ৫ টায় ঠাকুরগাঁও শহরের কালীবাড়ির নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

আন্দোলনের একটা সময় আছে, পরিপ্রেক্ষিত আছে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচনের পর দলের একটা সংকট মধ্যে যাচ্ছে। বিএনপির হাজার হাজার নেতাকর্মী আটক, মামলায় জর্জরিত হওয়ায় গোটা দেশ ও রাজনৈতিক মহলে একটা ভীতি ও ত্রাস কাজ করছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অবস্থান, পরিসর ও পরিবেশ নেই। কেউ গণতান্ত্রিক আন্দোলন করতে পারে না। হরতাল, মিছিল, মিটিং কেউ করতে পারে না। এটা শুধু বিএনপির উপর নয়, সকল রাজনৈতিক দলের উপরে এর প্রভাব পরেছে।

সরকার দেশে এক দলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছে বলে অভিযোগ করে ফখরুল বলেন, এটা ঘোষণা না হলেও বাস্তবে পরিণত হয়েছে। দেশের মানুষ ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত হয়েছে। জনগণ নির্বাচন কমিশনের উপর আস্থা হারিয়েছে। ফলে ভোট কেন্দ্রে কেউ ভোট দিতে আসেনি। সকল প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার উপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ নিজের মত প্রকাশ করলেই আটক করা হচ্ছে।

ফেনীর নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনা বাংলাদেশের মানুষের জন্য এক কলঙ্কজনক অধ্যায় বলে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, এটা নির্মমতা, বর্বরতা ছাড়া আর কিছুই নয়। সারা দেশের মানুষের আজ মধ্যে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে।