সংকটে বাড়ছে ডলারের দাম

আগের সংবাদ

প্রাকৃতিক উপায়ে দূর হবে মেছতা

পরের সংবাদ

এসএমই মেলার পর্দা নামছে আজ

বিক্রি কমায় হতাশ স্টল মালিকরা

প্রকাশিত: মার্চ ২৩, ২০১৯ , ৪:৫৫ অপরাহ্ণ আপডেট: মার্চ ২৩, ২০১৯ , ৪:৫৫ অপরাহ্ণ

রাজধানী শেরে বাংলা নগরের চলমান জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা শেষ হওয়ার কথা ছিল গতকাল শুক্রবার। কিন্তু ১৬ মার্চ শুরু হওয়া এ মেলার সময় একদিন বাড়ানো হয়। ফলে আজ পর্দা নামছে এসএমই মেলার ৭ম আসর। সাত দিন ধরে চলা ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের এ মেলা এ বছর জমেনি। মেলায় আগত ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের মালিক ও কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন।
তারা বলছেন, ষষ্ঠ জাতীয় এসএমই পণ্য মেলার তুলনায় এ বছর মেলার পুরো সময়জুড়েই ছিল দর্শনার্থীর কম উপস্থিতি। বেচাকেনাও হয়েছে কম। এ জন্য মেলার আয়োজনকারী প্রতিষ্ঠান এসএমই ফাউন্ডেশনকে দায়ী করছেন তারা।
তারা আরো বলছেন, গত বছর প্রতিটি স্টলের জন্য তাদের আট হাজার টাকা দিতে হয়েছে। এ বছর ১২ হাজার টাকা দিয়েছেন স্টলপ্রতি। সেই তুলনায় বাড়েনি সুযোগ-সুবিধা। বরং সমস্যায় পড়তে হয়েছে। প্রতিটি স্টলের জন্য ফ্যানের ব্যবস্থা রাখা হয়নি। সেই সঙ্গে রয়েছে মশার উৎপাত। গতকাল শুক্রবার মেলায় রাজশাহী থেকে সেতু বুটিকের কর্ণধার রোজিয়া করিম বলেন, গত বছর বিক্রি ভাল ছিল। এমনও দিন গেছে ৯০ হাজার টাকা বিক্রি করেছি। কিন্তু এ বছর বেচাকেনা নেই। আজ দুপুর পর্যন্ত একটা ওয়ান পিস বিক্রি করেছি। এত ভালো কালেকশন আনার পরও যদি বিক্রি না হয়, সেটা দুঃখের।
এ সময় শিল্পী হস্তশিল্পের মৌলি জানান, গত বছর আমাদের স্টলে প্রথম দিনই বিক্রি হয়েছিল দেড় লাখ টাকার বেশি। এ বছর প্রথম দিন বিক্রি হয়েছে মাত্র ১০ হাজার টাকা। গতকাল দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ১ হাজার ৭০০ টাকা বিক্রি হয়েছে বলে জানান মৌলি। তিনি বলেন, এ বছর গড়ে সাত হাজার টাকার বেশি বিক্রি হবে না।
এদিকে কয়েকজন দোকানি অভিযোগ করেন, পর্যাপ্ত প্রচারের অভাবে মেলার পুরো সময় ধরে দর্শনার্থীদের কম উপস্থিতি রয়েছে।
এ বিষয়ে লুবনা ফ্যাশনের কর্ণধার নুরজাহান বলেন, এখানে অনেক স্টল পাওয়া যাবে, যাদের একেবারেই বিক্রি নেই। মানুষজন জানেই না মেলা হচ্ছে এখানে। অনেকে যাওয়া-আসার পথে মেলা দেখে এখানে ঘুরতে আসছে। এমন অভিযোগ করেন আরো কয়েকজন দোকানি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়