শেষ কবে দেখেছি?

আগের সংবাদ

এটিএন বাংলায় আজ ‘দ্য চ্যালেঞ্জার’

পরের সংবাদ

ঢাকায় জমজমাট মোটর শো

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ১৭, ২০১৯ , ২:২৪ অপরাহ্ণ

জমকালো আয়োজন এবং দেশ-বিদেশের মোটরসাইকেল, গাড়ি এবং এর আনুষঙ্গিক পণ্য-সেবার সমাহার নিয়ে ঢাকার ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় শেষ হলো তিনদিনের অটোমোটিভ শো। এর আগে প্রথমদিন শিল্প মন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।
এ সময় এই প্রদর্শনীর আয়োজক প্রতিষ্ঠান সেমস গ্লোবালের প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড গ্রুপ ম্যানেজিং ডিরেক্টর মেহেরুন এন ইসলামসহ স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। তিন দিনব্যাপী এই বহুমাত্রিক প্রদর্শনীতে বিশ্বের ১৬টি দেশের আড়াই শতাধিক প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে।
ঢাকা মোটর শো বাংলাদেশের অটোমোটিভ শিল্পের একমাত্র আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী। এই প্রদর্শনী নতুন যানবাহন ও দ্রুত বর্ধনশীল অটোমোটিভ বাজার বৃদ্ধির জন্য একটি চমৎকার প্ল্যাটফর্ম এবং বাংলাদেশে অটো শিল্পের ব্যবসার জন্য গত ১৩ বছর যাবৎ এক নতুন মাইলফলক হিসেবে কাজ করছে।
এ বছরের আয়োজিত প্রদর্শনীতে ছিল ব্র্যান্ড নিউ মোটর বাইক, স্কুটারস এবং নতুন গাড়ি, স্পোর্টস ইউটিলিটি যানবাহন, মাল্টি ইউটিলিটি যানবাহন, বাণিজ্যিক যানবাহন, বাস, ট্রাক, থ্রি হুইলার, বিকল্প শক্তি চালিত যানবাহন ইত্যাদি। এ ছাড়াও, প্রদর্শনীতে ছিল স্বয়ংচালিত সামগ্রী, খুচরা যন্ত্রাংশ, গ্যারেজ সরঞ্জাম, আনুষাঙ্গিক, বিমা পণ্য ও পরিষেবা, অটোফাইন্যান্স অ্যান্ড লিজিং, অটো ইন্ডাস্ট্রি, আইটি ও লুব্রিকেন্টস, সিএনজি কিট, টায়ার ও হুইল, অটো ইলেক্ট্রনিক্স, কোচ বিল্ডার এবং নিত্যনতুন প্রযুক্তির বিপুল সমাহার।
বাংলাদেশের অনেক স্বনামধন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান প্র্রদর্শনীতে বিভিন্ন ধরণের অটোমোবাইল ঋণের আকর্ষণীয় অফার নিয়ে অংশগ্রহণ করেছে। প্রদর্শনীতে আগত দর্শনার্থীদের জন্য ফ্রি মোটর বাইক শেখার সুবর্ণ সুযোগ ছিল। প্রদর্শনীতে উন্মোচিত হওয়া নতুন মডেলের মোটরসাইকেল টেস্ট ড্রাইভ দেয়া সুযোগ করে দেয় কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। তিনদিনের এই অটোমোটিভ প্রদর্শনী চলে সকাল সাড়ে ১০টা রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত।