সুপ্রিমকোর্ট বার নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ, রাত ১১টায় গণনা

আগের সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে বোম্ব সাইক্লোন আঘাত: বাতিল ৩১০০ ফ্লাইট

পরের সংবাদ

রূপগঞ্জকে উড়িয়ে দিল প্রাইম ব্যাংক

প্রকাশিত হয়েছে: মার্চ ১৪, ২০১৯ , ৯:৩১ অপরাহ্ণ | আপডেট: মার্চ ১৪, ২০১৯, ৯:৩১ অপরাহ্ণ

Avatar

জাতীয় দলের এক সময়কার ওপেনার এনামুল হক বিজয় অবশেষে যেন নিজেকে খুঁজে পেলেন। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি করে জিতিয়েছেন নিজের দল প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবকে। বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের করা ১৬৩ রানের বাধা মাত্র ৩১.৩ ওভারেই পার করে ফেলে প্রাইম ব্যাংক। উইকেট হারাতে হয় কেবল একটি। জয়ের ব্যবধান ৯ উইকেটের।

লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জকে ১৬৩ রানে বেধে ফেলার পর জবাব দিতে নেমে শুধুমাত্র রুবেল মিয়ার উইকেট হারাতে হয় প্রাইম ব্যাংককে। ৬১ বলে ৪৪ রান করে আউট হন তিনি। তার আগে এনামুল হক বিজয়ের সঙ্গে গড়েন ১২৫ রানের বিশাল জুটি।

রুবেল মিয়া আউট হয়ে গেলেও সুদীপ চ্যাটার্জিকে নিয়ে জয়ের বাকি কাজটা অনায়াসেই সেরে নেন বিজয়। ১১১ বলে ১০০ রান করে অপরাজিত থেকে যান তিনি। ইনিংসে ছিল ১২টি বাউন্ডারির সঙ্গে ২টি ছক্কার মার। সুদীপ চ্যাটার্জি ১৭ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন।

তার আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। ওপেনার আজমির আহমেদ আউট হয়ে যান কোনো রান না করেই। ১ রান করে আউট হয়ে যান তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামা শাহরিয়ার নাফীস। অপর ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম দেখলেন অন্যদের আসা যাওয়ার মিছিল। ৪৩ বল খেলে সর্বোচ্চ ৫২ রান করে আউট হন তিনি।

নাঈম ইসলাম ১৫, আসিফ আজমেদ ১২, ভারতের ঋষি ধাওয়ান ১৩ রান করে আউট হয়ে যান। উইকেটরক্ষক জাকের আলি করেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৭ রান। মূলতঃ মোহাম্মদ নাঈম আর জাকের আলির ইনিংসের ওপর ভর করেই ১৬৩ রান তুলতে সক্ষম হয়। ৪৬.১ ওভারেই অলআউট হয়ে যায় তারা।

প্রাইম ব্যাংকের মোহর শেখ, আল আমিন হোসেন, আরিফুল হক, আবদুর রাজ্জাক এবং অলক কাপালি নেন ২টি করে উইকেট।