সিমলাকে ঘিরে রহস্য

আগের সংবাদ

পাকিস্তানের আকাশসীমায় জরুরি অবস্থা: বিমান চলাচল বন্ধ

পরের সংবাদ

আর্চারিতে দিয়ার অসাধারণ কীর্তি

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯ , ৩:০৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯, ৩:০৬ অপরাহ্ণ

Avatar

তৃতীয় আইএসএসএফ ইন্টারন্যাশনাল সলিডারিটি ওয়ার্ল্ড আর্চারি চ্যাম্পিয়নশিপে স্বর্ণ জিতেছেন বাংলাদেশের দিয়া সিদ্দিকী। মেয়েদের রিকার্ভ এককে গতকাল ইরানের শোজামেহের শিভাকে ৬-৪ ব্যবধানে হারিয়েছেন নীলফামারীর এ মেয়ে। অবশ্য প্রথম সেটে ইরানের প্রতিযোগীর বিপক্ষে তেমন লড়াই করতে পারেননি বাংলাদেশের এই নারী আর্চার। তবে শেষ পর্যন্ত স্বর্ণ জিতেই নিজের সামর্থ্যরে প্রমাণ দেন। প্রথম সেটে তিনি হারেন ২৭-২১ পয়েন্ট ব্যবধানে। দ্বিতীয় সেটটি ২৫-২৪ ব্যবধানে জিতে শিভার বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ান তিনি।
টঙ্গীর শহীদ আহাসান উল্লাহ স্টেডিয়ামে গতকাল দিয়া সিদ্দিকীই মেয়েদের এককে স্বর্ণ জিতেছেন। কম্পাউন্ড দলগত ইভেন্টে বাংলাদেশের হয়ে স্বর্ণ জিতেছেন বন্যা আক্তার, সুস্মিতা ও শ্যামলী রায়।
দিয়ার স্বর্ণ জেতার পেছনে রয়েছে চমকপ্রদ এক গল্প। রিকার্ভ এককে চ্যাম্পিয়ন হয়ে গতকাল সেই গল্প জানিয়েছেন তিনি। শুরুতে তার আর্চারির সঙ্গে জড়ানোর কোনো ইচ্ছাই ছিল না। হঠাৎ করেই এ রাস্তায় প্রবেশ করেছেন তিনি। দিয়া বলেন, আমার কল্পনাতেও ছিল না এভাবে আর্চারির সঙ্গে জড়িয়ে পড়ব। ভাগ্যের জোরেই এটা হয়েছে। হঠাৎ করেই আর্চারিতে এসেছি। দিয়া জানান, নীলফামারী উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়ার সময় আমার এক শিক্ষক আর্চারিতে আসার জন্য উৎসাহ দেন। সেখানে ট্রায়ালে টিকার পর বিকেএসপিতে এসে ট্রায়াল দিয়েও টিকে যাই। বিকেএসপিতে ভর্তি হওয়া দিয়া এবারই প্রথম আন্তর্জাতিক ইভেন্টে অংশ নিলেন। এর আগে যুব ও জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় খেলেছিলেন। গতকাল তৃতীয় সেটে লড়াই করে ২৫-২৪ পয়েন্টে জেতার পর পরের সেটেও জয় পান তিনি। সমতায় ফেরার পর পঞ্চম সেটে প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দেন ২৮-২২ পয়েন্টে।
গতকাল সকালে দিয়ার স্বর্ণ জেতার পর বাংলাদেশের আর্চার সমর্থকদের আশা ছিল ছেলেরাও স্বর্ণ জিতবে। কিন্তু শেষদিকে দলগত ইভেন্টে মেয়েদের স্বর্ণ নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে তাদের। রিকার্ভ পুরুষ এককের ফাইনালে উঠে বাংলাদেশের রোমান সানা ৬-২ পয়েন্টে হেরেছেন থাইল্যান্ডের আর্চারের বিপক্ষে। অন্যদিকে রিকার্ভ পুরুষ দলগত ফাইনালে বাংলাদেশের তামিমুল, রুবেল ও রোমান সানা ৫-১ ব্যবধানে ভারতের বিপক্ষে হেরেছেন।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা