ভালোবাসায় সাজিয়ে তুলুন আপনার ঘর

আগের সংবাদ

সস্তায় স্মার্টফোন আনছে গুগল

পরের সংবাদ

ইইউ’র কালো টাকার তালিকায় সৌদি আরব

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৯ , ৪:৩৪ অপরাহ্ণ

সন্ত্রাসী অর্থায়ন ও অর্থপাচারের ওপর নিয়ন্ত্রণ না থাকার কারণে কালো টাকায় হুমকি সৃষ্টি করছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। আর এসব দেশের শীর্ষ পর্যায়ের একটি তালিকা তৈরি করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। এ তালিকায় ঢুকে গেছে সৌদি আরব।

এর আগে ইউরোপীয় কমিশনের তালিকাতে ১৬টি দেশের নাম ছিল। বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সে তালিকায় আরও সাতটি দেশের নাম যোগ হয়। কমিশনটি বলছে, এসব দেশের এমন ‘নগণ্য কর্মকাণ্ডকে’ বিচারের আওতায় আনা হবে।

সংবাদমাধ্যম বলছে, সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের কয়েকটি ব্যাংক কেলেঙ্কারির ঘটনার পর অর্থপাচারের বিরুদ্ধে নেওয়া পদক্ষেপের অংশ হিসেবে এই তালিকাটি করা হয়েছে।

ইউরোপের কমিশনার ফর জাস্টিস ভেরা জোরোভা বিবৃতিতে বলেছেন, আমরাই অর্থপাচারের বিরুদ্ধে বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে কঠোর নীতি নির্ধারণ করেছি। তারপরও অন্য কোনো দেশ থেকে কালো টাকা যাতে আমাদের অর্থনৈতিক ব্যবস্থায় না আসে, তা নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, সংঘটিত অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদের মূলে রয়েছে এসব কালো টাকা। স্ট্রাসবার্গের সংবাদ সম্মেলনে জারোভা বলেন, রাজ্য এটিতে বাধা দেবে না বলেই তিনি আত্মবিশ্বাসী ছিলেন।

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সৌদি প্রেস এজেন্সি থেকে প্রকাশিত বিবৃতিতে তালিকাটিতে তাদের অন্তর্ভুক্ত করে কমিশনের নেওয়া সিদ্ধান্তের ওপর দুঃখ প্রকাশ করেছে তারা।

সৌদি অর্থমন্ত্রী মোহাম্মদ আল-জাদানের উদ্ধৃতি দিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অর্থ পাচার ও সন্ত্রাসের অর্থায়নের মোকাবিলা করতে সৌদি আরব প্রতিশ্রুতি দিয়েছে এবং সেই লক্ষ্য অর্জনে তারা কাজ করে যাচ্ছে।