টেকনাফে পাচারকালে ৬ রোহিঙ্গা উদ্ধার : ৫ দালাল আটক

আগের সংবাদ

ধোনির তিন শতক

পরের সংবাদ

বাউফলে বঙ্গবন্ধু প্রেমিক পাঁচ বছরের শিশু

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯ , ৩:৪৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯, ৩:৪৫ অপরাহ্ণ

Avatar

দিনে-রাতে, নাওয়া-খাওয়ায়, শয়নে-স্বপনে সর্বদাই বঙ্গবন্ধুর ছবি চাই। বঙ্গবন্ধুর ছবি কাছে না থাকলে খাবে না, ঘুমাবে না, আবার পড়বেও না। এমনই বঙ্গবন্ধু প্রেমিক শিশু শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিশুর খোঁজ মিলেছে বাউফলের কালাইয়া বন্দরে। শিশুটির নাম হাসিবুর রহমান সামির। বয়স মাত্র পাঁচ বছর। শিশুটির পিতা হাফিজুর রহমান স্থানীয় গ্রামীণ ব্যাংকে কর্মরত এবং মাতা শাহনাজ পারভীন শরমিন গৃহিনী।
শিশুটির পিতা-মাতার সাথে আলাপ করে জানা গেছে, তিন বছর বয়স পর্যন্ত শিশুটি কথা বলতে পারেনি। গেল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সময় স্থানীয় কালাইয়া ইউপি চেয়ারম্যান এস.এম. ফয়সাল আহমেদের নির্বাচনী পোষ্টারে বঙ্গবন্ধুর ছবি দেখে ওই ছবি পাওয়ার জন্য বায়না ধরে হঠাৎ কথা বলতে শুরু করে। সেই থেকেই বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের ছবি হাতের কাছে না থাকলে শিশুটিকে খাওয়ানো যাবে না, নাওয়ানো যাবে না, ঘুম পারানো যাবে না, স্কুলে নেয়া যাবে না, এমনকি খেলাধুলাও করবে না। শিশুটির মা জানান, ঘুমের ঘোরে হঠাৎ জেগে উঠে বঙ্গবন্ধুর ছবির জন্য চিৎকার করতে থাকে। ছবি পেলেই চিৎকার থামে। পানি খাওয়ার গ্লাস ও চায়ের কাপে বঙ্গবন্ধুর ছবি থাকতে হবে। অন্যথায় চা কিংবা পানিও পান করবে না। তিনি আরো জানান, মোবাইলে গুগল সার্চ করে বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন ধরণের ছবি বের করে সেগুলো প্রিন্ট করে আনার জন্য বায়না ধরে। যতবার বাজারে নিয়ে যাওয়া হবে তত বারই বঙ্গবন্ধুর ছবি কিনে দিতে হবে। অন্যথায় অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হয়।
সরেজমিন শিশুটির ঘরে গিয়ে দেখা গেছে, পড়ার টেবিলে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের ছবি টাঙ্গানো রয়েছে। তার সংগ্রহে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন রকমের প্রায় শতাধিক ছবি। এছাড়া সংগ্রহে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর পিতা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রাসেল, সজিব ওয়াজেদ জয়, সায়মা ওয়াজেদ পুতুল, রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদসহ বেশ কয়েকজন জাতীয় নেতার ছবি। আরো রয়েছে বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত এক হাজার টাকার নোট, চায়ের কাপ, পানির গ্লাস ইত্যাদি।
শিশুটির পিতা হাফিজুর রহমান জানান, বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের প্রতি তার সন্তানের এমন আকৃষ্টতার জন্য তারা গর্বিত। তাদের প্রত্যাশা তার সন্তান যেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ হৃদয়ে লালন করে বড় হতে পারে এবং দেশের সকল শিশুই যেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে অনুসরণ করে। তবে শিশুটির বয়স পাঁচ বছর হলেও কথায় এখনো ষ্পষ্টতা আসেনি। এজন্য ঢাকায় চিকিৎসকদের পরামর্শে চিকিৎসা করানো হচ্ছে।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা