বগুড়ায় শুকনা মরিচ থেকে আয় ৩০০ কোটি টাকা

আগের সংবাদ

মাদারীপুরে সরকারী নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে চলছে কোচিং বাণিজ্য

পরের সংবাদ

যোগ্য প্রার্থী নির্বাচন করা হয়েছে অভিমত মৌলভীবাজারের জনগনের

সংরক্ষিত নারী আসনে জোহরা আলাউদ্দিন আ’লীগের মনোনয়ন লাভ

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯ , ১:১৯ অপরাহ্ণ | আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯, ১:১৯ অপরাহ্ণ

Avatar

একাদশ সংসদে এবার সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন হচ্ছেন সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন। জোহরা আলাউদ্দিন জীবনভর একজন সংগ্রামী নেত্রী। বঙ্গবন্ধুর ডাকে সারা দিয়ে জোহরা আলাউদ্দিন ১৯৬৭ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগে সম্পৃক্ত হয়ে এদেশের মানুষের মুক্তির আন্দোলনে নিজেকে সম্পৃক্ত করেন।
তিনি বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামীলীগ মৌলভীবাজার জেলা শাখার প্রতিষ্ঠাতা সভানেত্রী ও জাতীয় মহিলা সংস্থা মৌলভীবাজার এর প্রতিষ্ঠা কালীন চেয়ারম্যান সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মো: আলাউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী। সমাজকর্মী হিসাবে তিনি সর্ব মহলে পরিচিত। ১৯৬৭ সালে মহকুমা ছাত্রলীগের প্রাথমিক সদস্য হিসাবে তার রাজনৈতিক যাত্রা শুরু হলেও পরে তিনি জেলা ছাত্রলীগের সহ সভানেত্রীর পদেও দায়িত্ব পালন করেন। ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থানে পুলিশ কর্তৃক নির্যাতিত হয়ে পুলিশের হাতে আটক হন। পরবর্তীতে পুলিশ পাহারায় হাসপাতালে ভর্তি হন। ১৯৭০-এর নির্বাচনে ও বিভিন্ন আন্দোলনে সংগ্রামে সক্রিয় অংশগ্রহন ও ১৯৭১-এ মুক্তিযুদ্ধেও তিনি অংশগ্রহন করেন। ৭৫ সালে পুনরায় তিনি কারান্তরিত হন। পরবর্তীতে বিএনপি জামায়াত সরকারের সময়ে বহুবার তার বিরুদ্ধে হুলিয়া জারি হয়। সন্তানাদি রেখে তাকে বহুদিন আত্মগোপনে থাকতে হয়েছে। সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন জানান, কৈশরকাল থেকে তিনি আওয়ামীলীগের কর্মী হিসেবে কাজ করে নিজেকে সম্পৃক্ত করে অদ্যাবদি করে যাচ্ছেন। তবে ব্যক্তিগতভাবে কিছু পাওয়ার আশায় নয়, এর কারণ তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালন করেন। তিনি বলেন, বর্তমানে নেত্রী শেখ হাসিনার সান্নিধ্য তার রাজনৈতিক ও দেশপ্রেমের চেতনাকে উজ্জ্বল করেছে। সেই আদর্শ ও অভিজ্ঞতাকে এখন মানুষের কাজে ব্যবহার করতে চান।
মানুষের জীবনে কোন পরিশ্রমই বৃথা যায়না। সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন সারা জীবন আন্দোলন সংগ্রাম ও সমাজের কাজ করেছেন। জীবনের শেষবেলায় নেত্রী তাকে মুল্যায়ন করেছেন। এ এলাকার মানুষও মনেকরেন নেত্রী যোগ্য প্রার্থী নির্বাচন করেছেন।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা