রাজধানীর বংশালে অগ্নিকাণ্ড

আগের সংবাদ

সচল আইফোনের সংখ্যা ৯০ কোটি

পরের সংবাদ

দাউদকান্দিতে যুবককে মধ্যযোগীয় কায়দায় শেকলে বেধে নির্যাতন : আটক-৩

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯ , ৩:৪৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯, ৩:৪৫ অপরাহ্ণ

Avatar

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে লোহার শেকল দিয়ে গাছের সঙ্গে বেধে শাহীন নামের এক যুবককে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করার অভিযোগে বাবাসহ ৩জনকে আটক করে পুলিশ। আহত শাহীন(৩৩) উপজেলার সুন্দুলপুর গ্রামের (পূর্বপাড়ায়) সেলিম মিয়ার ১ম স্ত্রীর ছেলে। গত বুধবার রাতে ওই গ্রামে বাবা সেলিম ও সৎ ভাই ভারাটে সন্ত্রাসী দিয়ে এ মধ্যযোগিয় হামলার ঘটনা ঘটায়। শনিবার দাউদকান্দি মডেল থানায় সৎ ভাই ও বাবাসহ ৯জনের নামে লিখিত অভিযোগ করেন আহত শাহীন এর মামা মনসুর আলী। অভিযোগ পাওয়ার পর রাতেই পুলিশ বাবা সেলিম মিয়া(৬০), সৎ ভাই সাইফুল ও তার স্ত্রী শিরিনা আক্তারকে আটক করে।

পুলিশ ও অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, উপজেলার সুন্দলপুর গ্রামে(পূর্ব পাড়ায়) বসত বাড়ী ও জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে সেলিম ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে গত বুধবার প্রথম স্ত্রীর ছেলে শাহীনকে গাছের সঙ্গে শেকল দিয়ে বেধে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক ভাবে জখম করে এবং সাথে থাকা মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে একালাবাসী পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে আহতবস্থায় শাহীনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স(গৌরীপুর) হাসপাতালে ভর্তি করে।

দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার পর শনিবার রাতেই বাবা, সৎ ভাই ও ভাবিসহ ৩জনকে আটক করা হয়েছে।