দুধ দিয়ে ছেলেকে গোসল করালেন জাহালমের মা

আগের সংবাদ

র‌্যাগিংয়ের ভিডিও ভাইরাল, ৬ শিক্ষার্থীকে আজীবন বহিষ্কার

পরের সংবাদ

৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মঞ্চেই থাকবেন মমতা

প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৯ , ৭:১১ অপরাহ্ণ | আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৯, ৭:১১ অপরাহ্ণ

ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই কলকাতার পুলিশ কমিশনারের বাসভবনে তল্লাশি অভিযান চালানোর প্রেক্ষিতে রোববার সন্ধ্যা থেকে অবস্থান ধর্মঘট তথা ধর্নায় বসেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সোমবার কলকাতার মেট্রো চ্যানেলে ধর্না মঞ্চ থেকে এ ঘোষণা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। তবে আগামী দিনের কোনও কর্মসূচি বদল কিংবা বাতিল করা হবে না। হুগলিতে যে কর্মসূচিতে মমতার অংশ নেয়ার কথা ছিল তা পেছানো হয়েছে।

আজ সোমবার কলকাতার মেট্রো চ্যানেলে ধর্না মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বলেন, ‘এই আন্দোলন কারোর একার নয়। যারা গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক কাঠামোয় বিশ্বাস রাখেন, তারাই এই আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন।’

রোববার রাত ৮টা ৪০ মিনিটে ধর্মতলার মেট্রো চ্যানেলে ধর্নায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী। আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা শুরু হবে বলে আট ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তিনি ধর্না মঞ্চে থাকবেন বলে জানিয়েছেন। মঙ্গলবার ধর্না মঞ্চে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার একটি প্রতিনিধি দলের যোগ দেয়ার কথা রয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আইন আইনের পথেই চলবে। আইন মেনে কোনো কিছু করা হলে, আমরা তাতে বাধা দেই না। কিন্তু এখানে সাংবিধানিক ও ব্যক্তিগত অধিকার খর্ব করা হয়েছে।’

ঘটনার সূত্রপাত রোববার বিকেলে। কলকাতা পুলিশের কমিশনার রাজীব কুমারের বাসভবনে অনুমতি না নিয়ে তল্লাশি অভিযানে যায় ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআইয়ের কর্মকর্তারা। কমিশনারের বাসভবনে মোতায়েন পুলিশ সদস্যরা তাদেরকে ভেতরে ঢুকতে বাধা দেন। দুই পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তিও হয়। ঘটনার এক পর্যায়ে কলকাতা পুলিশ সিবিআই কর্মকর্তাদের ধরে থানায় নিয়ে যান।

এমন খবর শোনার পর ঘটনাস্থলে ছুটে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ’র বিরুদ্ধে বাংলায় অভ্যুত্থানের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলে অবস্থান ধর্মঘটে বসেন তিনি। উল্লেখ্য, এ ঘটনায় কলকাতা পুলিশ ও সিবিআই পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করেছে।