রায় নিয়ে মোটেও চিন্তিত নই: সাবেক এমপিপুত্র রনি

আগের সংবাদ

একাদশ সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম

পরের সংবাদ

শিশুদের চোখে পৃথিবীটাকে তুলে ধরবে সিএনবি: আরিফ রহমান

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ৩০, ২০১৯ , ৫:১৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: জানুয়ারি ৩০, ২০১৯, ৮:৫৪ অপরাহ্ণ

Avatar

অনুষ্ঠান নির্মাতা হিসেবে আন্তর্জাতিক পরিচিতি, বার্তা প্রযোজক হিসেবে দক্ষতায় নিজের আসনকে প্রতিষ্ঠিত করা, রক গানে তারুণ্যকে মাতিয়ে রাখা থেকে শুরু করে জীবনের প্রতিটি জায়গায় পেয়েছেন সাফল্য। সম্প্রতি এসব বিষয় নিয়ে কথা হয় বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ার শিশু গণমাধ্যম ‘এ আর কিডস মিডিয়ার’ প্রধান নির্বাহী আরিফ রহমান শিবলী’র সঙ্গে ।

প্রশ্ন: কেমন আছেন?

আরিফ রহমান: আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি।

প্রশ্ন: বর্তমান ব্যস্ততা?

আরিফ রহমান: জীবন মানে-ই সংগ্রাম এইখানে প্রতিটি সেকেন্ড-ই গুরুত্বপূর্ণ । তাই ব্যক্তিগত ,অফিসিয়াল মিলিয়ে বলব মোটামুটি ব্যস্ত থাকছি। মাঝে দীর্ঘদিন ঢাকার বাইরে ছিলাম অনেক কাজ জমে আছে সেগুলো কাভার দিতে হচ্ছে।

প্রশ্ন: এ আর কিডস সেরা মা ‘ঘোষণার পর পর-ই ফেসবুকসহ সকল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরলের পিছনের গল্পটা যদি বলেন?

আরিফ রহমান: এ আর কিডস সবসময়-ই মানুষের কাছাকাছি থাকার চেষ্টা করেছে। মানুষ যা দেখতে চায় মানুষ যেটা চিন্তা করে আমরা তাই দেওয়ার চেষ্টা করেছি প্রতিটি ইভেন্টে। আর শুধু সেরা মা নামক আমাদের নতুন ইভেন্ট ই নয় আপনি দেখুন আমাদের অতীতের প্রতিটা ইভেন্ট ই হৃদয় জয় করতে সক্ষম হয়েছে।

প্রশ্ন: মিডিয়া নামক মহাসমুদ্রে সবাই তীর আসতে সক্ষম হয় না কিন্তু অল্প বয়সে ই সেটা কিভাবে সম্ভব হয়েছে বলে মনে করেন ?

আরিফ রহমান: সকল প্রশংসা মহান আল্লাহর তিনি আমাকে সম্মানিত করেছেন। আর এটা কেউ বিশ্বাস করুক আর না করুক সবচেয়ে সত্য হচ্ছে নামাজ ,ইবাদত আমাকে সবচেয়ে বেশী শক্তি যোগায় নিজ কাজে। আর আলহামদুলিল্লাহ ! একজন ভালো জীবনসঙ্গী পেয়েছি। সে আমাকে সাহস, উৎসাহ পাশাপাশি নামাজ, কোরআন তেলাওয়াতের কথা প্রতি নিয়ত স্মরণ করে দেন।

প্রশ্ন: এ আর কিডস এর সাফল্যের মূলমন্ত্র কি?

আরিফ রহমান: আমি বলব শিশুরা কিভাবে পৃথিবী নিয়ে ভাবে তা তুলে ধরতে এ আর কিডস পেরেছে বলে-ই আজ সফল ও জনপ্রিয় ব্র্যান্ড হিসেবে সফলতার মুখ দেখেছে।

প্রশ্ন: সি এন বি নিয়ে কিছু বলুন?

আরিফ রহমান: সিএনবি মানে চাইল্ড নিউজ ব্রডকাস্ট ।এইটা ”এ আর কিডস মিডিয়ার” সহযোগী প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশসহ সার্ক অঞ্চলে কাজ করবে শিশুদের খবর পৌঁছে দেবে দেশগুলোর সরকারের কাছে এবং সরকারের কার্যক্রম পোঁছে দিবে শিশুদের কাছে। পাশাপাশি সিএনবি যুদ্ধ-বিধ্বস্ত ফিলিস্তিনের শিশুদের খবরও প্রচার করবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। খুব দ্রুত এ ব্যাপারে ঢাকা ফিলিস্তিন দূতাবাসের রাষ্ট্রদ্রুতের সঙ্গে আমার মিটিং অনুষ্ঠিত হবে।

প্রশ্ন: আপনি অনেক তরুণ-তরুণীর আইকন কিন্তু আপনার আইকন কারা?

আরিফ রহমান: অনেকেই আছেন। তবে রাজনীতিবিদদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছেন- বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংবাদে হচ্ছেন বাংলাদেশকে পৃথিবীর কাছে সংবাদের মাধ্যমে তুলে ধরা বিবিসির সাংবাদিক আকবর হোসেন। এছাড়া মিউজিক জগতে  প্রয়াত ইন্টারন্যাশনাল রক ভোকাল চেষ্টার বেনিংটন।

প্রশ্ন: আন্তর্জাতিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছেন এ ব্যাপারে যদি কিছু বলতেন?

আরিফ রহমান: অস্ট্রেলিয়াসহ বেশকিছু দেশে যাওয়ার আমন্ত্রন পেয়েছি শিশুদের জন্য নিরাপদ পৃথিবী গড়ার জন্য কি কি পদক্ষেপ নেওয়া দরকার তা নিয়ে আলোচক হিসেবে আমিও অংশ নিবো ইনশাআল্লাহ। তবে! যেখানেই আমি বক্তব্য রাখবো অবশ্যই তা হবে বাংলায়। কারণ সবার আগে পরিচয় আমি বাংলাদেশী আর আমার গর্বে বুক ভরে উঠে যখন বাংলাদেশের রাষ্ট্র প্রধানগন জাতিসংঘের মতো বড় আসরে বাংলায় ভাষণ দেন।

প্রশ্ন: আপনাকে ধন্যবাদ সময় দেওয়ার জন্য।

আরিফ রহমান: আপনাকে ও ভোরের কাগজের সম্পাদকসহ-সকল পাঠককে ধন্যবাদ।