ভোটের পর জোটের সমস্যা

আগের সংবাদ

ড. কামালকে মন্ত্রী বানিয়েছিল মোস্তাক: আইনমন্ত্রী

পরের সংবাদ

বগুড়ায় বালু উত্তোলনের সময় ২ শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ১৮, ২০১৯ , ৯:৪৭ অপরাহ্ণ | আপডেট: জানুয়ারি ১৮, ২০১৯, ৯:৪৭ অপরাহ্ণ

Avatar

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় নাগর নদ থেকে অবৈধভাবে বালু তুলতে গিয়ে গভীর গর্তে বালু চাপা পড়ে এবং বিষাক্ত গ্যাসে আক্রান্ত হয়ে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

আজ শুক্রবার বিকেলে শিবগঞ্জ উপজেলার বুড়িগঞ্জ ইউনিয়নের দক্ষিণ ছাতরা গ্রামে নাগর নদে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত শ্রমিকরা হলেন- জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার বানিয়াচাপড় গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে খায়রুল ইসলাম (২৬) ও একই গ্রামের মোস্তফা আলীর ছেলে মোশারফ হোসেন (১৮)।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার দক্ষিণ ছাতরা গ্রামের বালু ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে নাগর নদ থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিল।

শুক্রবার তার নিয়োজিত কয়েকজন শ্রমিক বালু উত্তোলনের কাজ করছিল। বালু উত্তোলনের সময় ব্যবহৃত শ্যালোমেশিনের ফিতা বোরিং করা গর্তে পড়ে যায়। ওই ফিতা তুলে আনার জন্য খায়রুল ও মোশারফ ২০ ফুট গভীর গর্তে নামেন। এ সময় তারা বিষাক্ত গ্যাসে আক্রান্ত হয়ে ছটফট শুরু করেন। অন্যান্য শ্রমিকরা দড়ি নামিয়ে তাদের ওঠানোর চেষ্টা করলে তারা গর্তেই বালু চাপা পড়েন। খবর পেয়ে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শিবগঞ্জ উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে গর্তের মাটি সরিয়ে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন।

শিবগঞ্জ ফায়ার স্টেশনের লিডার আব্দুল হামিদ জানান, গভীর গর্তে নামার পর তারা বিষাক্ত গ্যাসে আক্রান্ত হয়ে ছটফট শুরু করেন। অন্যান্য শ্রমিকরা তাদেরকে উদ্ধারের চেষ্টা করলেও আশপাশ থেকে মাটি চাপা পড়ে তাদের মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনকারী নাছির উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

শিবগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি মিজানুর রহমান বলেন, অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে। তবে ছাতড়া এলাকায় বালু উত্তোলনের বিষয়টি আমাদের জানা নেই। গোপনে এই কাজটি করছিল তারা।