ট্রলারডুবির খবরে গ্রামজুড়ে কান্নার রোল

আগের সংবাদ

যশোরে অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান

পরের সংবাদ

বাণিজ্যমেলায় হস্তশিল্পের কদর

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ১৬, ২০১৯ , ৬:২৫ অপরাহ্ণ | আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০১৯, ৬:২৫ অপরাহ্ণ

অনলাইন প্রতিবেদক

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় বিদেশি পণ্যের ভিড়েও ক্রেতাদের নজর কাড়ছে দেশীয় হস্তশিল্প পণ্য। দেশীয় ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সঙ্গে মিল রেখে তৈরি এসব পণ্যের বেশ কদর নগরবাসীর কাছে। সারা বছর এসব পণ্যের দেখা কম মিললেও বাণিজ্যমেলায় ক্রেতাদের জন্য এসব পণ্য নিয়ে আসে কয়েকটি প্রতিষ্ঠান।

বরাবরের মতো এবারও নানা ধরনের শতরঞ্জি নিয়ে এসেছে কারুপণ্য রংপুর লিমিটেড। শতরঞ্জি শুধু দেশেই নয়, পৃথিবীর ৩৭টি দেশেও রপ্তানি হয়। কাঠ ও বাঁশ দিয়ে তৈরি সুন্দর কারুকাজে নির্মিত শতরঞ্জির স্টল যেকোন দর্শনার্থীকেই মুগ্ধ করছে। মেলায় আগত দর্শনার্থীরা পাটের শতরঞ্জি, চট আর রঙিন কাপড় দিয়ে তৈরি ব্যাগ, রঙিন পাপোশ, শতরঞ্জি ও বিছানার চাদর দেখার জন্য কৌতূহল নিয়ে ঢুকছেন স্টলটিতে। এসব পণ্য বেশি আকৃষ্ট করছে নারীদের। পণ্য ভেদে আকর্ষণীয় ছাড় দিয়েছে কারুপণ্য রংপুর লিমিটেড।

কারুপণ্যের বিক্রয়কর্মী নাদিয়া জামান বাংলানিউজকে বলেন, বিদেশি পণ্যের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে দেশীয় পণ্য। দেশীয় ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি টিকিয়ে রাখতে কারুপণ্য সম্পূর্ণ দেশীয় উপকরণ দিয়ে নানা ধরনের পণ্য উৎপাদন করে থাকে। ক্রেতাদের আলাদা আকর্ষণও রয়েছে এসব পণ্যের প্রতি। বিক্রি ভালোই চলছে বলে জানান এই বিক্রয় কর্মী।

ফাজরিয়া নাজমিন নামে এক ক্রেতা বলেন, সম্পূর্ণ দেশীয় উপকরণে তৈরি কারুপণ্যের পণ্য শতরঞ্জি অনেক সুন্দর ও মানসম্পন্ন। প্রতিবছরই মেলা থেকে শতরঞ্জি কিনি।

মেলায় হস্তশিল্প পণ্য নিয়ে এসেছে গোল্ডেন হ্যান্ডিক্র্যাফট। আল-আমিন ক্রাফটে পাওয়া যাচ্ছে শতরঞ্জি ছাড়াও পাটের ব্যাগ, ল্যাম্প শেডসহ বিভিন্ন হস্তশিল্প পণ্য। নারায়ণগঞ্জ হস্তশিল্প বিপণিতেও রয়েছে পাটের বিভিন্ন ধরনের ব্যাগ, জুতা, ম্যাটসহ বিভিন্ন পণ্য। স্টলে ভিড় করতেও দেখা গেছে দর্শনার্থীদের। বিক্রেতা আমিনুল জানালেন, প্রকারভেদে প্রতি বর্গফুট শতরঞ্জির দাম পড়বে ১০০ থেকে শুরু করে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত।

আদিল ও সাফা নামে এক দম্পতি নতুন সংসারের জন্য মিলিয়ে কিনছেন শতরঞ্জি। তারা জানান, দামটা বেশি। তবে ভিন্নতা আনতে মেলা থেকে ব্যতিক্রম কিছু কেনা।

বাণিজ্যমেলায় বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) একটি প্যাভিলিয়ন রয়েছে। এ প্যাভিলিয়নেও পাওয়া যাচ্ছে নানা হস্তশিল্প পণ্য।

মাসব্যাপী ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা গত ৮ জানুয়ারি শুরু হয়। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা।