ঢাকার লক্ষ্য ১৩৭ রান

আগের সংবাদ

ফুড আইটেম নিয়ে এবারই প্রথম বসুন্ধরার স্টল

পরের সংবাদ

‘প্যাকেজিং শিল্পে পাটের ব্যবহার নিশ্চিত করা হবে’

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৬, ২০১৯ , ৩:৪৩ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০১৯ , ৩:৪৩ অপরাহ্ণ

প্যাকেজিং শিল্পে পাটের ব্যবহার নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক)। গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে বাংলাদেশ জুট মিলস এসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।
বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, পাটকে আমাদের কাজে লাগাতে হবে। এ জন্য প্যাকেজিং শিল্পে পাটের ব্যবহার নিশ্চিত করা হবে। এর জন্য সরকারের পক্ষ থেকে যা যা করার প্রয়োজন আমরা সবই করব। একই সঙ্গে সরকারি যেসব জুটমিল আছে সেগুলোর উৎপাদন আরো বাড়ানোর জন্য পদক্ষেপ নেয়া হবে। অন্যদিকে পাট পণ্যের উৎপাদন খরচ বেশি হওয়ায় অনেক কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। তাই সামনে যেন আর কোনো কারখানা বন্ধ না হয় সেদিকে খেয়াল রাখা হবে।
তিনি আরো বলেন, পাটের পণ্য যত বেশি ব্যবহার হবে দেশের পাট খাত তত বেশি সমৃদ্ধ হবে। এ জন্য বেশি বেশি পাটের পণ্য ব্যবহার করতে হবে। বর্তমান সরকার ১৯৯৬ সালে পাট খাতের উন্নয়নে মনোযোগী হয়। ২০১৬ সালে এসে পাটকে কৃষিজাত পণ্য হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক আইন ২০১০ করা হয়েছে। বর্তমানে ১৭টি পণ্যে পাটজাত মোড়ক ব্যবহৃত হচ্ছে। এ ছাড়া, পাট আইন ২০১৭ প্রণয়ন করা হয়েছে। এই সরকার পাট তথা এই সোনালি আঁশকে যত গুরুত্ব দিয়েছে অন্য কোনো সরকার এত গুরুত্ব দেয়নি।
আলোচনা সভায় বাংলাদেশ জুট মিলস এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শামস উজ জোহা বলেন, আমাদের পাশর্^বর্তী দেশ ভারতে পাট শিল্পে উৎপাদিত পাট পণ্যের ৯০ শতাংশ নির্ধারিত মূল্যে সরকার কিনে নেয়। সে জন্য তাদের উৎপাদিত পণ্য বিক্রি করতে কোনো ধরনের সমস্যা হয় না। কিন্তু আমাদের দেশে সরকার সরাসরি কৃষক বা শিল্পের সঙ্গে জড়িতদের কাছ থেকে পণ্য ক্রয় করে না। এ জন্য আমাদের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এ ছাড়া পণ্য তৈরির খরচ বেড়ে যাওয়ায় অনেক কারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে সরকারের হস্তক্ষেপ ছাড়া এই শিল্প টিকে রাখা সম্ভব নয়। আলোচনা সভায় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বাংলাদেশ জুট মিলস এসোসিয়েশনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়