ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

আগের সংবাদ

টেলিভিশন বনাম ইউটিউব

পরের সংবাদ

জমজমাট নাট্যাঙ্গন

প্রকাশিত হয়েছে: ডিসেম্বর ৩০, ২০১৮ , ৫:০২ অপরাহ্ণ | আপডেট: ডিসেম্বর ৩০, ২০১৮, ৫:০২ অপরাহ্ণ

Avatar

নিয়মিত নাটকের প্রদর্শনী, নতুন নাটকের মঞ্চায়ন, বিভিন্ন নাট্য সংগঠনের আয়োজনে উৎসব, সেমিনারসহ নানা আয়োজনে ২০১৮ সালের নাট্যাঙ্গন ছিল উৎসবমুখর। এ বছরই বাংলাদেশের ৯টি নাটক প্রথমবারের মতো অংশ নিয়েছে বিশ্ব থিয়েটারের সম্মানজনক আসর থিয়েটার অলিম্পিকে। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ এপ্রিল ভারতের বিভিন্ন শহরে বসেছিল এই আন্তর্জাতিক উৎসব।
থিয়েটার অলিম্পিক ছাড়াও বাংলাদেশের বেশ কিছু নাটক ভারতের বিভিন্ন নাট্যোৎসবে আমন্ত্রিত হয়েছে, লন্ডন, কোরিয়ার মঞ্চেও বাংলাদেশের নাটক মঞ্চায়িত দেশের জন্য গৌরব বয়ে এনেছে। এ বছরে দক্ষিণ কোরিয়ায় মঞ্চায়িত হয় মেঠোপথ থিয়েটারের নাটক ‘অতঃপর মাধো’ এবং শূন্যন রেপার্টরির নাটক ‘লাল জমিন’। জাপানে মঞ্চায়িত হয় স্বপ্নদলের ‘ত্রিংশ শতাব্দী’। লন্ডনে মঞ্চায়িত হয় নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের নাটক ‘ওপেন কাপল’ এবং নটনন্দনের ‘নারী ও রাক্ষুসী’।
২০১৮ সালে নাট্যাঙ্গনে ‘থিয়েটার ডিরেক্টরস ইউনিটি’ নামে নতুন একটি সংগঠন আত্মপ্রকাশ করে। মূলত থিয়েটার নির্দেশকদের নিয়েই নানা কর্মকাণ্ডে যুক্ত থাকবে সংগঠনটি। এই সংগঠনের নাম ঘোষণা করেন নাট্যব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দিন ইউসুফ। অনন্ত হিরাকে সমন্বয়কারী করে সাত সদস্যের একটি কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন মলয় ভৌমিক, আহমেদ ইকবাল হায়দার, ফয়েজ জহির, ইশরাত নিশাত, আজাদ আবুল কালাম ও মোহাম্মদ বারী। এদিকে ২০১৮ বাংলাদেশের নাট্যাঙ্গনে এসেছে ৫০টিরও বেশি নতুন নাটক। এ ছাড়া বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগ তাদের পরীক্ষা প্রযোজনা হিসেবেও বেশ কিছু প্রযোজনা মঞ্চে এনেছে। ২০১৮ সালে মঞ্চে আসা উল্লেখযোগ্য নতুন নাটকের মধ্যে রয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত¡ বিভাগের প্রযোজনা ‘দ্য অ্যালকেমিস্ট’, প্রাঙ্গণেমোর প্রযোজনা ‘হাছনজানের রাজা’, হৃদমঞ্চ প্রযোজনা ‘রুধিররঙ্গিণী’, নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের নাটক ‘ওপেন কাপল’, নান্দীমুখ নাট্যদলের ‘আমার আমি’, ঢাকা পদাতিকের ‘ট্রায়াল অব সূর্য সেন’, জাহাঙ্গীরনগর থিয়েটারের ‘মানুষ’, কথা ও কাহিনী প্রযোজনা ‘নিখোঁজ সংবাদ’, অনুরাগ থিয়েটারের ‘গ্রাস’, প্রাচ্যনাট স্কুল অব অ্যাক্টিং অ্যান্ড ডিজাইনের দুই নাটক ‘নৈশভোজ’ও ‘রাজরক্ত’, সিরাজগঞ্জের নাট্যদল ‘নাট্যলোক’ মঞ্চে এনেছে ‘রূপসুন্দরী’, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের দুই প্রযোজনা ‘পাঁজরে চন্দ্রবান’ও ‘দ্য লোয়ার ডেপথস’, নাট্যধারা প্রযোজনা ‘চার্লি’, থিয়েটার (আরামবাগ) মঞ্চে এনেছে ‘দ্রৌপদী পরম্পরা’ পালাকার প্রযোজনা ‘উজানে মৃত্যু’, আরশিনগর প্রযোজনা ‘রহু চণ্ডালের হাড়’, বরিশাল শব্দাবলি শিশু থিয়েটার প্রযোজনা ‘আওয়ার কিংডম’ ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক ড্রামা ক্লাব মঞ্চে আনে ‘সুবর্ণ গোলক’, মহাকাল নাট্য সম্প্রদায় প্রযোজনা ‘শ্রাবণ ট্র্যাজেডি’, বাতিঘর প্রযোজনা ‘র‌্যাডক্লিফ লাইন’, ত্রিশালের কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এন্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগের নাটক ‘সীতায়ন’ সংস্কার নাট্যদলের দুই নাটক ভুল স্বর্গ ও মহাপতঙ্গ, থিয়েটার স্কুলের ‘ডাকঘর’, থিয়েটার বায়ান্ন’র নাটক ‘ঋত্বিক’, যাত্রিক প্রযোজনা ‘অ্যান ইন্সপেক্টর কলস’, বরিশাল শব্দাবলীর ‘বৈশাখিনী’, নটনন্দনের ‘নারী ও রাক্ষুসী’, লোক নাট্যদল (বনানী) প্রযোজনা ‘ঠিকানা’, ঢাকা থিয়েটারের ‘পুত্র’, ঢাকা থিয়েটার মঞ্চ প্রযোজনা ‘বহিপীর’ রাজশাহীর অনুশীলন নাট্যদলের ‘বুদেরামের ক‚পে পড়া’, অ্যাভাগার্ডের নবান্ন, নাট্যম রেপার্টরি প্রযোজনা ‘ডিয়ার লায়ার’, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির নাটক ‘মহাস্থান’ এবং উদীচীর যাত্রপালা ‘বিয়াল্লিশের বিপ্লব’।

  • আরও পড়ুন
  • লেখকের অন্যান্য লেখা