মিয়ানমারকে বিচারের মুখোমুখি করতে জাতিসংঘে প্রস্তাব পাশ

আগের সংবাদ

শতবর্ষী মাকে জঙ্গলে ফেলে আসে ছেলেরা

পরের সংবাদ

কথামালা আর নাটকে সৈয়দ শামসুল হককে স্মরণ

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৮ , ১২:৩৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৮, ১২:৩৪ অপরাহ্ণ

Avatar

‘আমি জন্মেছি বাংলায়, আমি বাংলায় কথা বলি/আমি বাংলার আলপথ দিয়ে হাজার বছর চলি/চলি পলিমাটি কোমলে আমার চলার চিহ্ন ফেলে …।’ সবুজ-শ্যামল স্বদেশের উদ্দীপ্ত অস্তিত্বের কথা বলা সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের দ্বিতীয় প্রয়াণবার্ষিকী ছিল গতকাল বৃহস্পতিবার।
এ উপলক্ষে গতকাল শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে ছিল উদ্বোধনী দিনের আনুষ্ঠানিকতা। এতে বক্তব্য রাখেন সৈয়দ শামসুল হকের সহধর্মিণী কথাসাহিত্যিক ডা. আনোয়ারা সৈয়দ হক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। সভাপতিত্ব করেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। স্বাগত বক্তব্য দেন একাডেমির সচিব বদরুল আনম ভ‚ঁইয়া। সৈয়দ শামসুল হকের ‘আমার পরিচয়’ কবিতাটি আবৃত্তি করেন বাচিকশিল্পী হাসান আরিফ।
আনোয়ারা সৈয়দ হক বলেন, সৈয়দ শামসুল হক চলে যাওয়ার পর তার ব্যবহৃত ল্যাপটপ দুটি দুই বছরে খুলে দেখা হয়নি। ল্যাপটপ দুটি খোলার পরে দেখা গেল, তিনি যে কত শত কবিতা, গল্প, শিশুসাহিত্য সমাপ্ত করতে পারেননি। যদি আগে জানা থাকত, তাহলে তাকে দিয়ে যেভাবেই হোক লেখাগুলো শেষ করা যেত।
তিনি আরো বলেন, শামসুল হক তার আশিতম জন্মদিনে বলেছিলেন ‘লালনের মতো ১১৭ বছর বাঁচতে চান’। আক্ষরিক অর্থে না হলেও তিনি তার কর্মের মধ্য দিয়ে সাহিত্যাঙ্গনে ১১৭ বছরেরও বেশি সময় বেঁচে থাকবেন।
রামেন্দু মজুমদার বলেন, রবীন্দ্রনাথের পরে এত বিপুল সৃষ্টিসম্ভার আর কারও নেই। গল্প, কবিতা, নাটক, চিত্রকলা যেখানেই তিনি হাত দিয়েছেন সেখানে সোনা ফলেছে। গল্প দিয়ে শুরু করলেও তিনি কবি হিসেবে সমাদৃত হয়েছেন এবং নাট্যকার হিসেবে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। এ সময় তিনি সৈয়দ শামসুল হকের ‘সমাধিস্থল’ কবিতাটি পাঠ করেন।
অনুষ্ঠানে অতিথিরা কবি-সব্যসাচী সৈয়দ শামসুল হককে নিবেদিত দুই বাংলার শতাধিক কবির কবিতার সংকলন ‘সৈয়দ হক : কবিতায় অঞ্জলি’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন। বইটিতে শঙ্খ ঘোষ, কবীর চৌধুরী, আসাদ চৌধুরী, মহাদেব সাহা, মুহম্মদ নূরুল হুদা, অসীম সাহা, চৈতালী চট্টোপাধ্যায়সহ দুই বাংলার কবিদের দেড় শতাধিক কবিতা স্থান পেয়েছে। পিয়াস মজিদ সম্পাদিত বইটি প্রকাশ করেছে অনিন্দ্য প্রকাশ।
প্রথমদিনের সর্বশেষ আয়োজনে ছিল নাটক মঞ্চায়ন। নাটকের দল থিয়েটার মঞ্চায়ন করে সৈয়দ শামসুল হক রচিত আবদুল্লাহ আল-মামুন নির্দেশিত নাটক ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’।
আজ এই অনুষ্ঠানমালার দ্বিতীয় দিন সন্ধ্যা ৭টায় একই মিলনায়তনে সৈয়দ শামসুল হককে নিয়ে স্মৃতিচারণ ও আলোচনায় অংশ নেবেন মঞ্চসারথি আতাউর রহমান। এর পর শিল্পকলা একাডেমি মঞ্চায়ন করবে সৈয়দ শামসুল হক রূপান্তরিত এবং আতাউর রহমান নির্দেশিত নাটক ‘হ্যামলেট’।