অক্টোবরে হতে পারে ট্রাম্প-উনের দ্বিতীয় বৈঠক

আগের সংবাদ

মুশফিকের ১ রানের আক্ষেপ

পরের সংবাদ

পাকিস্তানকে ২৪০ রানের লক্ষ্য দিল বাংলাদেশ

কাগজ অনলাইন প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮ , ৯:২৮ অপরাহ্ণ

 

বাংলাদেশ ৪৮.৫ওভার খেলে পাকিস্তানকে ২৪০ রানের টার্গেট দিয়েছে। সব উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৩৯। দলের পক্ষে ৯৯ রান করে দুর্ভাগ্যজনক আউট হয়েছেন মুশফিকুর রহিম। এছাড়া মোহাম্মদ মিঠুন করেছেন ৬০ রান। মাহমুদুল্লাহ ২৫, মাশরাফি ১৩, মেহেদির ১২ রান উল্লেখযোগ্য।

সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে আবুধাবির শেখ জায়েদ আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

বাংলাদেশ দলে এসেছে তিনটি পরিবর্তন। আঙ্গুলের ব্যথায় সাকিবের বদলে খেলছেন মুমিনুল হক। গত তিন ম্যাচে লিটন দাসের সঙ্গে ওপেন করা নাজমুল হাসান শান্তর জায়গায় নেওয়া হয়েছে সৌম্য সরকারকে। এছাড়াও গত ম্যাচে অভিষেক হওয়া নাজমুল ইসলাম অপুর পরিবর্তে নেওয়া হয়েছে পেসার রুবেল হোসেনকে।

অন্যদিকে মোহাম্মদ আমিরের বদলে পাকিস্তান দলে চলতি টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো ডাকা হয়েছে পেসার জুনাইদ খানকে।

এশিয়া কাপের আজকের ম্যাচটি অঘোষিত সেমিফাইনালে পরিণত হয়েছে।

দুই ম্যাচ জিতে আগেই ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ভারত। অন্যদিকে দুই ম্যাচ হেরে বিদায় নিয়েছে আফগানিস্তান।

ফলে সুপার ফোরের দুটি ম্যাচের একটি করে জেতা বাংলাদেশ ও পাকিস্তান একই বিন্দুতে। দুদলের সামনেই অভিন্ন সরল সমীকরণ। জিতলে ফাইনাল, হারলে বিদায়।

এর আগে এশিয়া কাপের অলিখিত সেমিফাইনালে রূপ নেয়া আজকের ম্যাচে বাংলাদেশ দলে দুটি পরিবর্তন দেখা যেতে পারে।

তামিমের জায়গায় টানা তিন ম্যাচে সুযোগ দেয়া হয়েছিল তরুণ ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্তকে। তিন ম্যাচেই ব্যর্থ তিনি। আরেক ওপেনার লিটন দাসও দিতে পারছেন না প্রত্যাশার প্রতিদান।

ধারাবাহিক ব্যর্থতায় আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে অলিখিত ‘সেমিফাইনালে’ ওপেনিং জুটিতে পরিবর্তন আনার আভাস মিলছে। নাজমুলের জায়গায় একাদশে সুযোগ মিলতে পারে সৌম্য সরকারের।

আর মোহাম্মদ মিঠুনকে বসিয়ে একজন পেসার বাড়ানো হতে পারে। আর তাই যদি হয়, তবে দলে জায়গা পাচ্ছেন অভিজ্ঞ রুবেল হোসেন।

বাংলাদেশ একাদশ: লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহিম, মুমিনুল হক, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিয়ানায়ক), মুস্তাফিজুর রহমান ও রুবেল হোসেন।

পাকিস্তান একাদশ: ইমাম-উল-হক, ফখর জামান, বাবর আজম, সরফরাজ আহমেদ, শোয়েব মালিক, আসিফ আলী, শাদাব খান, মোহাম্মদ নাওয়াজ, হাসান আলী, জুনাইদ খান ও শাহিন শাহ আফ্রিদি।