বাংলাদেশ সীমান্তে ভারতের রেড এলার্ট জারি

আগের সংবাদ

লালমনিরহাটে সার ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

পরের সংবাদ

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ গ্রাউন্ড স্টেশন উদ্বোধন আজ

প্রকাশিত হয়েছে: জুলাই ৩১, ২০১৮ , ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: জুলাই ৩১, ২০১৮, ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ

Avatar

আজ মঙ্গলবার উদ্বোধন করা হবে গাজীপুরের প্রাইমারি গ্রাউন্ড স্টেশন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১। বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স সেন্টার থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এর উদ্বোধন করবেন। একই সঙ্গে আজ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১-এর সফল উৎক্ষেপণ উদযাপন করা হবে। গাজীপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীরের সঞ্চালনায় আজ সকাল ১০টায় গাজীপুরের তেলীপাড়া এলাকার গ্রাউন্ড স্টেশন ক্যাম্পাস থেকে স্থানীয় সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেলসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। এ সময় তারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হবেন ও সরাসরি কথা বলবেন। একই সঙ্গে বেতবুনিয়ার বেক-আপ গ্রাউন্ড স্টেশনটিও উদ্বোধন করা হবে। আগস্ট-সেপ্টেম্বর থেকেই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর প্রকল্প পরিচালক মেসবাহুজ্জামান জানান, স্যাটেলাইটটি নির্বিঘেœ মহাকাশে উৎক্ষেপণের পর এখন গ্রাউন্ড স্টেশন থেকে সংকেত দিচ্ছে ও নিচ্ছে। এর কাক্সিক্ষত সেবা পাওয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। গ্রাউন্ড স্টেশন থেকে সার্বক্ষণিক স্যাটেলাইটটির গতিবিধি ও অবস্থান পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। পর্যবেক্ষণে এখন পর্যন্ত কোনো ধরনের সমস্যা পাওয়া যায়নি। ট্র্যাকিং ও কন্ট্রোলিংয়ের কাজও হচ্ছে এখান থেকে। পুরোপুরি টেস্টিং করা হচ্ছে। সেপ্টেম্বরের মধ্যে সব টেস্ট ও ট্র্যাকিংয়ের কাজ সফলভাবে সমাপ্তির পর যেকোনো সময় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ কমার্শিয়াল অপারেশনে যাবে বলে আশা করছি।
তিনি আরো জানান, এটা হলো কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট। গ্রাউন্ড স্টেশনে হিউজ সিস্টেম ইনস্টল করা হয়েছে। আলাদা ইকুইপমেন্ট ছাড়াও বাইরের পুরো সিস্টেম ছোট ছোট ইউনিটে ভাগ করে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত টেস্ট করা হবে। বেতবুনিয়া এবং গাজীপুরের গ্রাউন্ড স্টেশনের ভেতরে ও বাইরে যত যন্ত্রাংশ স্থাপন করা হয়েছে, যেমনÑ অ্যান্টেনা, নেটওয়ার্ক সিস্টেমসহ বিভিন্ন ইকুইপমেন্ট আলাদা আলাদা করে টেস্ট করা হচ্ছে। এরইমধ্যে গ্রাউন্ড স্টেশন ও অ্যান্টেনা টেস্ট শেষ হয়েছে। এখন বিভিন্ন কৌশলে স্যাটেলাইট টেস্ট করা হচ্ছে। উৎক্ষেপণের পর নির্দিষ্ট দূরত্বে দ্রাঘিমাংশে (প্রায় ৩৬ হাজার কিলোমিটার দূরে ১১৯.১ পূর্ব দ্রাঘিমাংশে) স্যাটেলাইটটি অবস্থান করছে।
তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্র-ফ্রান্স-ইতালি থেকে স্যাটেলাইটটি সম্পূর্ণভাবে কন্ট্রোল করা হলেও বর্তমানে গাজীপুর গ্রাউন্ড স্টেশন থেকে ট্র্যাকিং এবং কন্ট্রোলিং করা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা এখান থেকে স্যাটেলাইটে সিগন্যাল পাঠিয়ে আবার তা রিসিভ করছেন। বর্তমানে গাজীপুর গ্রাউন্ড স্টেশনে বাংলাদেশি ৩০ জন ও ফ্রান্সের ১০ জনের মতো প্রকৌশলী সার্বক্ষণিক কাজ করছেন।