মস্কোতে পাট ও বস্ত্র মেলার উদ্বোধন

আগের সংবাদ

শসার জুস

পরের সংবাদ

গুগল থেকে ব্যাংকগুলোকে ভ্যাট কাটার নির্দেশ দিয়েছে এনবিআর

প্রকাশিত: মে ২১, ২০১৮ , ৫:১৬ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ২১, ২০১৮ , ৫:১৬ অপরাহ্ণ

ফেইসবুক, গুগলের মতো বৈশ্বিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্থানীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও বিজ্ঞাপনী সংস্থা যে বিজ্ঞাপন অর্থ পরিশোধ করে সেখান থেকে ১৫ শতাংশ ভ্যাট কেটে রাখতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে অনুরোধ করেছে রাজস্ব কর্তৃপক্ষ।

বৃহৎ করদাতা ইউনিট বা এলটিইউ চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে ১৭টি ব্যাংকে একটি চিঠি পাঠিয়েছে বলে রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে রাজস্ব কর্তৃপক্ষ।এলটিইউ ভ্যাট কমিশনার মো. মতিউর রহমান বলেন, যারা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া এবং ডিজিটাল প্লাটফর্মে বিজ্ঞাপন দেয় তারা সাধারণ সেসবের বিল পরিশোধ করে ব্যাংকের মাধ্যমে। তাই আমরা ব্যাংকগুলোকে সেই বিল পরিশোধের সময় ভ্যাট কেটে রাখার অনুরোধ করেছি।জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) গত মাসে ফেইসবুক, গুগলের মতো বৈশ্বিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে যে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয় তার থেকে ভ্যাট কাটতে অফিসগুলোকে নির্দেশ দেয়।

এর আগে গত ৪ এপ্রিল সংবাদপত্র মালিকদের সংগঠন ‘নিউজপেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’ (নোয়াব) এবং অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স (অ্যাটকো) নেতাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত প্রাক-বাজেট আলোচনায় ফেইসবুক, ইউটিউব এবং গুগলকে করের আওতায় আনার কথা বলেন এনবিআর চেয়ারম্যান। নোয়াব নেতাদের প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে তিনি এ ব্যাপারে মত দেন তিনি।নোয়াব ও অ্যাটকো নেতারা বলেন, ফেইসবুক, গুগলের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো দেশ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ নিয়ে যাচ্ছে। অথচ তাদের কোনো ধরনের ভ্যাট দিতে হয় না। তাদের ভ্যাটের আওতায় আনা উচিত।

বাংলাদেশে ফেইসবুক ও গুগলের কোনো অফিস নেই। ফলে তারা বাংলাদেশ সংরকারের আইনের আওতায়ও পড়ে না।তবে যে কোন কোম্পানি যে কোন দেশেই তাদের ব্যাবসা পরিচালনা করতে গেলে স্থানীয় আইন মেনেই তা করতে হয়, কিন্তু এক্ষেত্রে এমন প্রতিষ্ঠান তা করছে না বলে নোয়াব গত বছরের নভেম্বরে এক চিঠিতে অর্থমন্ত্রণালয়কে অবহিত করে।এনবিআর বলছে, বিদেশে যেকোনো অর্থ পাঠাতে গেলেই তা ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠাতে হয়। এক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোকে বলা হয়েছে তারা যেন সেই অর্থ থেকে ১৫ শতাংশ ভ্যাট কেটে রাখে।এনবিআরের নির্দেশনা অনুযায়ী এলটিইউ এখন থেকে ব্যাংকগুলোকে জিজ্ঞাসা করবে তারা সেসব কোম্পানি থেকে ভ্যাট কেটে রাখছে কিনা।মতিউর রহমান বলেন, ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে যখন ক্লায়েন্টরা বিজ্ঞাপন অর্থ পরিশোধ করতে তখনও ব্যাংকগুলোকে ভ্যাট কেটে রাখা উচিত হবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়