সুয়ারেজ-পাওলিনহোর জোড়ায় বার্সার বড় জয়

আগের সংবাদ

বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসবের অনলাইন রেজিস্ট্রেশন শুরু

পরের সংবাদ

গুজরাট ও হিমাচলে বিজেপির জয়

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৮, ২০১৭ , ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১৮, ২০১৭ , ১২:৪৬ অপরাহ্ণ

 

গুজরাটের বিধানসভা নির্বাচনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নেতৃত্বাধীন দেশটির ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি জয় পেয়েছে। সোমবার সকালের দিকে নির্বাচন কমিশনের চূড়ান্ত ফলাফলে মোদির নিজ রাজ্য গুজরাটের ১৮২ আসনের মধ্যে বিজেপি জয় পেয়েছে ১০৪ আসনে। প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস জয়ী হয়েছে ৭৬ আসনে। অন্যান্য প্রার্থীরা দুটি আসনে নির্বাচিত হয়েছেন।

গুজরাটের এই নির্বাচনে কংগ্রেসের সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করেই জয়ী হতে হলো বিজেপিকে। বিধানসভার ক্ষমতায় যেতে মোট ৯২ আসনে জয়ের প্রয়োজন ছিল।

এদিকে, হিমাচল প্রদেশেও অনায়াসেই জয় পেয়েছে মোদির বিজেপি; হিমাচলের এই জয়ের ফলে কংগ্রেসের কাছে থেকে আরো একটি রাজ্যের ক্ষমতা ছিনিয়ে নিলো বিজেপি। হিমাচলের ৬৮ আসনের বিধানসভায় ৪৬ আসনে জয় পেয়েছে বিজেপি, কংগ্রেস প্রার্থী জয়ী হয়েছে ১৮ আসনে। অন্যান্য প্রার্থীরা জয় পেয়েছে ৪ আসনে।

নির্বাচন কমিশনের ফল ঘোষণা শুরুর পর দলের বিজয় উদযাপনে পার্লামেন্ট ভবনে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেখানে তিনি দলীয় সমর্থক, নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বিজয় চিহ্ন প্রদর্শন করেন।

প্রধানবিরোধী দল কংগ্রেস ২০১২ সালে গুজরাটের নির্বাচনে ৭১ আসনে জয় পায়; ওই নির্বাচনে ১১৬ আসনে জয়ী হয় বিজেপি সমর্থিত প্রার্থীরা। গুজরাটকে মোদির ভারতীয় জনতা পার্টির প্রধান ঘাঁটি হিসেবে দেখা হয়। বিজেপি প্রায় ২২ বছর মোদির নিজ রাজ্য এই গুজরাট শাসন করেছে।

গুজরাটের তিনবারের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন মোদি। এখান থেকেই জাতীয় রাজনীতিতে উঠে আসেন তিনি। নির্বাচনের আগে রাজ্যের অর্থনৈতিক উন্নয়নে তিন ডজনেরও বেশি বৈঠক করেন মোদি।

গত ৯ এবং ১৪ ডিসেম্বর গুজরাট এবং হিমাচলে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। গুজরাটের প্রায় ৬৮ শতাংশ ভোটার (৪কোটি ৩০ লাখ) ভোট দেন। অন্যদিকে হিমাচলে ভোট পড়েছে ৭৪ শতাংশ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়