রংপুর সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু করতে কঠোর হবে ইসি

আগের সংবাদ

প্রথম পর্বের হারের প্রতিশোধ নিল আরামবাগ

পরের সংবাদ

শিক্ষার্থীদের নিরাপদ যাতায়াতে স্কুলবাস নামাতে চায় সরকার

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৫, ২০১৭ , ৯:২০ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১৫, ২০১৭ , ৯:২০ অপরাহ্ণ

রাজধানীসহ বিভাগীয় শহরগুলোতে যানজট নিয়ন্ত্রণ ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের নিরাপদ যাতায়াতের জন্য বিআরটিসি বাস দিতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

বুধবার রাতে সংসদ অধিবেশনে জাতীয় পার্টির সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য নূর-ই হাসনা লিলি চৌধুরীর ৭১ বিধিতে উত্থাপিত নোটিসের জবাব দিতে গিয়ে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

নোটিসে ঢাকা ও বিভাগীয় শহরগুলোতে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য বাস দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

মন্ত্রী এ বিষয়ে বলেন, স্কুলবাস চালুর বিষয়ে আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতি আছে। বিআরটিসিও প্রস্তুত আছে। অভিভাবকরা রাজি হলে এখনই গাড়ি দেওয়া হবে।

নোটিসের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, রাজধানীসহ বিভাগীয় শহরগুলোর যানজট নিয়ন্ত্রণে প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে আমরা স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও প্রধান শিক্ষক এবং এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের ডাকি। সেখানে স্কুল-কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি, ট্রাফিক বিভাগ, বিআরটিএ চেয়ারম্যানসহ আমাদের কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করি। আমরা প্রস্তাব করেছিলাম, স্কুলে একক গাড়ি নিয়ে আসা একদিকে ব্যয়বহুল ও যানজট হয়, অন্যদিকে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিয়েও সমস্যা দেখা দেয়। আমাদের সেই প্রস্তাবে প্রথমে দ্বিমত না করলেও পরে কেউ রাজি হননি। আমরা এটাও বলেছিলাম, স্কুল-কলেজের বাসগুলোকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। সেই বৈঠকে অনেক অভিভাবক রাজি না হয়ে বলেছিলেন, আমার গাড়ি আছে, আমার সন্তান স্কুলে যাবে আমার গাড়িতে। মনে হয়েছিল, এতে তাদের সম্মান যাবে। বিআরটিসি দোতলা বাস দিতে রাজি হয়েছিল। অভিভাবকরা রাজি না হওয়ায় সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হয়নি।

শিক্ষামন্ত্রী পুলিশের পরিসংখ্যান উল্লেখ করে বলেন, শুধু ধানমন্ডি এলাকায় ২১ হাজার প্রাইভেটকার প্রতিদিন স্কুলের শিক্ষার্থীদের আনা-নেওয়ার কাজ করে। এতে যানজট তো হয়ই, একটা বড় সমস্যারও সৃষ্টি হচ্ছে। আমরা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং বিভাগীয় পরিচালকদের নির্দেশ দিয়েছি, নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থায় শিক্ষার্থী আনা-নেওয়ার কাজ করতে। সবার সহযোগিতা পেলে এটা করা সম্ভব হবে।

মন্ত্রী এজন্য সংসদ সদস্যদেরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়