সরকার আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিভ্রান্তিকর তথ্য দিচ্ছে : ফখরুল

আগের সংবাদ

শিলা আশরাফের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

পরের সংবাদ

সৈয়দ আশরাফের স্ত্রীর মৃত্যুতে কিশোরগঞ্জে শোকের ছায়া

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৩, ২০১৭ , ৪:৫৫ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৩, ২০১৭ , ৪:৫৫ অপরাহ্ণ

জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্ত্রী শিলা ইসলামের মৃত্যুতে কিশোরগঞ্জে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সোমবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টা ১০ মিনিটে লন্ডনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন তিনি।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের চাচাতো ভাই অ্যাডভোকেট সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তিনি দীর্ঘদিন ধরে দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে ভুগছিলেন। গত এপ্রিলে জার্মানির একটি হাসপাতালে কেমো থেরাপিসহ ক্যান্সারের কয়েক ধাপের চিকিৎসা করা হয়। পরে সেখান থেকে তাকে সেন্ট্রাল লন্ডনের একটি হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। সেখানেই তিনি আজ সকালে ইন্তেকাল করেন।

জানা যায়, শিলা ইসলাম লন্ডনের একটি স্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিকা। তার পরিবারের সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে লন্ডনে বসবাস করছেন। সৈয়দ আশরাফ-শিলা দম্পতির একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

তার মৃত্যুতে জেলা আওয়ামী লীগসহ সকল রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। পৃথক পৃথক বিবৃতিতে জেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুল আহসান শাহজাহান বলেন, শিলা ইসলামের মৃত্যুতে আজ কিশোরগঞ্জবাসীর মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তিনি কিশোরগঞ্জের সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রমে বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন এবং কিশোরগঞ্জের মানুষকে অন্তরের গভীরে স্থান দিয়েছেন। এ জন্য কিশোরগঞ্জবাসী তার কাছে চির কৃতজ্ঞ থাকবে। আমরা তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

জেলা বিএনপির সভাপতি শরীফুল আলম শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করে বলেন, কিশোরগঞ্জের কৃতি সন্তান সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সহধর্মিনীর মৃত্যুতে জেলা বিএনপি গভীরভাবে শোকাহত। সৈয়দ আশরাফের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনেও শিলা ইসলামের অবদান অপরিসীম। আমরা তার আত্মার মাগফেরাত করছি।

কিশোরগঞ্জ পৌর মেয়র মাহমুদ পারভেজ শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে বলেন, আমাদের প্রিয় নেতা সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্ত্রী শিলা ইসলামের মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। শিলা ভাবি নিজের যোগ্যতা দিয়ে কিশোরগঞ্জের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত করেছিলেন। তার এই অকাল প্রয়াণে আমাদের অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি।

জেলা গণতন্ত্রী পার্টির সভাপতি ভূপেন্দ্র চন্দ্র ভৌমিক দোলন বলেন, হঠাৎ তার মৃত্যুতে আমরা খুব আহত হয়েছি। তার পরিবারের সকলের প্রতি গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করছি। একজন জাতীয় নেতার স্ত্রীর মৃত্যু তার জন্যও একটি বড় বিপর্যয়। আমরা তার আত্মার শান্তি কামনা করছি।

সম্মিলিত নাগরিক ফোরামের সমন্বয়ক এনায়েত করিম অমি বলেন, অসময়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন তিনি। রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে আমাদের উৎসাহ দিয়েছেন তিনি। কিশোরগঞ্জ নিয়ে তার অনেক স্বপ্ন ছিল এবং সে স্বপ্ন বাস্তবায়নে অনেক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড করার চেষ্টা করেছেন। সৈয়দ আশরাফের সততা, নিষ্ঠা এবং রাজনৈতিক আদর্শকে সবসময় সমর্থন দিয়ে গেছেন। আমি তার রুহের মাগফেরাত কামনা করছি।

 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়