বাবাকে খুব মনে পড়ে

যুদ্ধ শেষ হলো, স্বাধীন হলো দেশ তুমি আর ফিরলে না বাবা। ওদিকে ঘুমের ঘোরে দাদি তোমার নাম ধরে প্রায়ই ডাকত বাছা ফিরে আয়- গভীর রাতে মার বিনিদ্র চোখে তপ্ত অশ্রæ ঝরে পড়ত।... বিস্তারিত

বীরাঙ্গনার আত্মগাথা

শাহিন সাহেব ঢাকার একটি জাতীয় দৈনিকের সাংবাদিক। ইতোমধ্যেই তিনি সম্পাদকসহ অফিসের সবার চোখের মণি। সম্পাদক তাকে বলেন তার লেখা নাকি মানুষের উত্তেজনার সাগরে তুফান সৃষ্টি করে। আজ সন্ধ্যা থেকেই শাহিন সাহেব বেশ... বিস্তারিত

আলো-আঁধারীর খেলা

জীবন যেন প্রকৃতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলেছে, কখনো মনাকাশে কালো মেঘ, কখনো ঝকঝকে রোদ্দুর! আলো-আঁধারীর খেলা চলছে মাঝরাত্রির বিরহ-মিলনে। জীবন- সে তো সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না, আশা-নিরাশার দোদুল দোলায় উত্থান-পতনের সাক্ষী আলোর আশায় অবিরত... বিস্তারিত

নীল জলস্রোত

সকাল হয়েছে! জানালার পর্দা ভেদ করে সকালের চিকচিকে রোদ প্রবেশ করছে ঘরে। সোনা ঝরা রোদ। স্বর্ণের রঙকেও হার মানাবে। হাতঘড়িটার দিকে তাকিয়ে তাড়াহুড়ো করে বিছানা থেকে উঠলাম। সকাল ৭টা বাজে। পারিপার্শি¦ক অনেক... বিস্তারিত

তবে দূরে কেন থাকো?

আবেগকে দলিথমথিত করে, ভালোবাসাকে দুমড়ে মুচড়ে দিয়ে হৃদয়টাকে কয়েদি বানিয়ে ফেললাম দ্রুতই। মুদ্রার অন্যপিঠে অবশ্য মুক্ত মানুষের মিছিল। সুবর্ণাও যে তখন বিভোর সাকিব স্বপ্নে। দুইয়ে দুইয়ে চার মিলে সাকিব- সুবর্ণার প্রেম মধুময়... বিস্তারিত

নষ্ট মনের মানুষ

দোতলার সিঁড়ি ভেঙে নিচে নামছি। জুতার বেল্ট খুলে পা ফঁসকে যেতে হুমড়ি খেয়ে পড়ে যাওয়ার উপক্রম হতেই রাভি আমায় জাপটে ধরলো। সেদিন কলেজে দ্বিতীয় দিন মাত্র। অতঃপর পটপরিবর্তনের পালা। কালপ্রপাতের ছন্দিত পদযাত্রায়... বিস্তারিত

তোমার তরে

এসো বৃষ্টিতে ভিজি মনের আবেশে হারিয়ে যাই নীল গগনের দ্বারে এসো না গান করি, তোমার খোলা চুলের ঘ্রাণ আমাকে ছুঁয়ে যাবে অফুরান। এসো স্বপ্ন কুড়াই ঢেউয়ে ঢেউয়ে ভাসিয়ে হৃদয় হবো দুজন দেশান্তরী।... বিস্তারিত

অমোঘ নিয়ম

দেহ ধমনীতে যে রক্ত বহমান তারও একটা শব্দ আছে। ইচ্ছে করলেই তুমি শুনতে পাবে প্রিয় কিংবা প্রিয়ার বক্ষে প্রতিনিয়তই বেজে চলছে- হার্টবিট, এর মানে তুমি আছো তাই আমি আছি। শুনতে কি পাও?... বিস্তারিত

বিজয় উল্লাস

রক্তে রাঙানো বাংলা আমার উড়াচ্ছি আজ ঘুড়ি বিজয় নিশান হাতে তুলেছি নেই কোনো তার জুড়ি। হাজার শহীদের রক্ত ঝরিয়ে পেয়েছি বাংলাদেশ জয়ের নেশায় ঘুরব মোরা দেখব চেয়ে দেশ। বাংলা মায়ের কোল ঘেঁষে... বিস্তারিত

অচেনা বন্ধু

বিকেল গড়িয়ে প্রায় সন্ধ্যা হয়ে এলো। তখনো বিভোর ঘুমে আছন্ন সৌমেন। কোনো সাড়াশব্দ নেই। হঠাৎ মা রুমে ঢুকলো। দেখে সৌমেন তখনো ঘুমাচ্ছে। মা বললো- কয়টা বাজে কোনো খেয়াল আছে তোর? বিকালে এতোক্ষণ... বিস্তারিত

প্রতিবাদ

সংস্কার প্রতিবাদ সম্মিলিত শব্দ জানালার ফাঁক দিয়ে দেখা দূরের আকাশ প্রতিবাদী হতে বলছে বারবার শোষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ, ন্যায্য অধিকার নিয়ে বেঁচে থাকার জন্য প্রতিবাদ পৃথিবীতে সব কণ্ঠস্বর হয়ে উঠেছে প্রতিবাদী সাবধান হতে... বিস্তারিত

বাংলাদেশ

এখানে আকাশ নীল শীষ কেটে গাংচিল উড়ে যায় সাদা ডানা মেলে, এখানে নদীর তীরে ছোট নাও এসে ভিড়ে স্বপ্নের সোনালি আঁচলে। এখানে গ্রামের আলে মাঠ-ঘাট খালে-বিলে, মৌটুসী পাখিদের মেলা। এখানে ফুলের বনে,... বিস্তারিত

হঠাৎ দেখা

চৌদ্দ বছর পর সেদিন যে তোমার সঙ্গে হঠাৎ দেখা হয়ে যাবে তা যেন কল্পনাও করতে পারিনি। আসলে কি কোনো কাকতালীয় ছিল সেদিন তোমার-আমার দেখা? তোমাকে দেখেই আমার মনে পড়ে গেলো পেছনের অতীত... বিস্তারিত

অপেক্ষা…

সিমেন্ট ফ্যাক্টরি লেকের পাড়ে কৃষ্ণচূড়া গাছের নিচে একা একা বসে আছি। মনটা ভালো নেই। অন্যরকম এক অস্থিরতা প্রাণের ভেতর বিরাজ করছে। বারবার শুধু লিজার অনিন্দ্য মুখাবয়বের কথা আমার দৃষ্টির ক্যানভাসে সহসা ভেসে... বিস্তারিত

ক্ষমা করো আমায়

তার ওই কোমল মনে আঘাত করার কোনো ইচ্ছাই আমার ছিল না। অপলক দৃষ্টিতে আমি তাকিয়েছিলাম মেয়েটির দিকে। তার ক্ষত-বিক্ষত হৃদয় আমাকে নাড়া দিতো খুব। লেকের পাড়ে একলা বিকালে হারিয়ে যেতো সে আপন... বিস্তারিত

পুষ্টি স্বাদ উঁকি মারে

জিলাপির মতো কড়কড়া হাড্ডি ভরা প্রতীক্ষার প্রহর জীবন খাতায় পুষ্টি স্বাদ উঁকি মারে … প্রত্যাশার শরীর দূর আকাশে নাচে নৃত্য দ্রুত স্রোত সোহাগী ঘর যুগল মাংসে মুখস্ত নামতা চাষ হয় … গুণনের... বিস্তারিত

“মায়া”

আপন ভিটা, আপন দেশ ছেড়ে কে বা চলে যেতে চায়? কিন্তু নির্মম বাস্তবতার কাছে হার মেনেছে দেশপ্রেম, হার মেনেছে মন, হার মেনেছে ভালোবাসা। ধীরে ধীরে পুকুরের সামনে এসে দাঁড়ান তিনি। গভীর পুকুরটা... বিস্তারিত

একা একজন

আশ্বিন মাস। রাতের ফোঁটা শিউলির সুগন্ধি তখনো ঘর থেকে বেরিয়ে যায়নি। আগের দিনই বিদিতা ঠিক করেছে ভোরের গাড়িতেই চাকরিতে জয়েন করবে। প্রয়োজনীয় সব গোছানো আছে। নাস্তা করতে বসলে নির্দিষ্ট সময়ের বাসটা পাবে... বিস্তারিত

নীরব মিছিল

ঘড়ির কাঁটার নির্দিষ্ট সময়ে যুদ্ধ শুরু করি, নিজ রক্ত দিয়ে নিজে মরি যুদ্ধ শেষে আবাসে চলি। কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে করি আমরা যুদ্ধ। যুদ্ধে জয় হলে সকলে হয় মুগ্ধ। আমাদের যুদ্ধের অস্ত্র হচ্ছে... বিস্তারিত

অন্য আলোয়…

শীত খুব জাঁকিয়ে বসেছে, তন্ময়সহ সবাই আমরা খাটে পা তুলে বসেছি। আমরা সবাই মানে আমি, ইমরান, সায়ন, রাহাত আর রবি। একটা কম্বলে নিজেকে মুড়িয়ে আলাদা হয়ে বসেছে ইমরান, যদিও সবার মধ্যে সেই... বিস্তারিত

Bhorerkagoj