নতুন জামা : ইরা খান

আমি তখন ক্লাস সেভেনে পড়ি। এই ঈদটা আমার সারাজীবন মনে থাকবে। ঈদের আগেই তো ঠিক করে রেখেছি, কোথায় কোথায় বেড়াতে যাব। আগে সব আত্মীয়র বাসায় তারপর সব বান্ধবী মিলে সারাদিন ঘুরব, মজা... বিস্তারিত

কোথায়রে তুই? : মেহবুবা হক রুমা

ঈদ আনন্দের, যখন আমি ছোট ছিলাম ঈদের একটা স্মৃৃতি আমার এত মনে পড়ে। আমি তখন মোহাম্মদপুর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী। আমার খুব প্রিয় এক বান্ধবী ছিল, নাম ‘মৌসুমী শবনম জয়ি’।... বিস্তারিত

চলে যেতে হয় : রাশেদা ফেরদৌস পপি

২০১৫ সাল। ঈদের দিন। যথারীতি ঈদের ব্যস্ততা ভোর থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে। আমার আব্বা, ভাই ঈদের নামাজ পড়ে এসে নাস্তার টেবিলে বসে, কোথায় যাব ঠিক করছি। চাচাদের বাসায় যাব কিনা এসব কথাবার্তা... বিস্তারিত

স্বদেশী ও প্রবাসী ঈদ : মাহফুজা খাতুন ইতি

এক সময় বাবা সরকারি চাকরি করতেন বিধায় দেশের বিভিন্ন স্থানে বাবার পোস্টিং থাকত। বিভিন্ন জেলার ঈদ উদযাপনে আমরাও ভীষণ উপভোগ করতাম। সেই ঈদগুলো কত বৈচিত্র্যময় ছিল সরকারি গাড়ি বরাদ্দ ছিল সার্বক্ষণিকের জন্য... বিস্তারিত

হারানো দিন : সাবিনা ইসলাম

মা-বাবার সঙ্গে যেতাম ঈদের জামা-জুতো কিনতে। তখন লিলি স্টোর ছিল বেশ নামকরা। সেখান থেকে ফ্রক আর বাটা থেকে কেনা হতো জুতা। কালো বেল্ট দেয়া শু আর হাঁটু ছোঁয়া মোজা। আর ছিল আমাদের... বিস্তারিত

অন্তরীক্ষে

সাজু বিদ্যুত আমি চোখ বন্ধ করে নিজেকে অনুভব করতে গিয়ে হতবাক আমার আমিত্ব আমাকে ফাঁকি দিয়ে লুকিয়েছে কখন অজান্তে তোমার আবরণে, তোমার অস্তিত্বে। আমি চোখ খুলে ইথারে খুঁজি মনের আকাশে চকিত ভ্রমণে... বিস্তারিত

চলো না

ফারহানা হুদা নিপা এই শোনো, কতদিন তেমন একটি অলস দুপুর পাইনা যখন ক্লান্ত ঘামে ভেজা তুমি ঘরে ফিরতে এক গøাস শরবত দিতাম ঘাম মুছে দিতে দিতে পাশে বসে দু’জনে এক প্লেটে আর... বিস্তারিত

ছোট বোন

সাধন সরকার পূজা ঘনিয়ে আসছে। আর মাথায় একটা চিন্তা বারবার ঘুরপাক খাচ্ছে। গত দুবছরের মতো এ বছরও এমনটা হচ্ছে। ফোনটা বাজছে…। আমি নিশ্চিত, ফোনটি আমার ছোট বোনই করেছে। ও সাধারণত আমাকে ফোন... বিস্তারিত

সময়

আবু ওয়াফা মো. মুফতি (অংকুর) মনটা সুদূর অলস দুপুর শান্ত জলে নাচে আলোর নূপুর, ফাঁকা চত্বর খাঁ খাঁ রোদ্দুর টুনি ডাকে অবিরত টোনা কতদূর! আকাশে ঘুড়ি হাতে নাটাই মাঞ্জা সুতা জমবে কাটাকাটি... বিস্তারিত

আমার প্রথম

মাহফুজা অনন্যা সারাদিনে রোদের রেখার কোনো দেখা মেলে না! যে ঘরটাতে আমি থাকি সূযরশ্মি ঢুকবার মতো কোনো জানালা কিংবা ফাঁকফোকর নেই। দেয়ালের ওপারে বোঝা যায় দিনের কোলাহল। এটুকুতেই বুঝে নিই কখন দিন,... বিস্তারিত

নিমন্ত্রণ

রুহেনা চৌধুরী তোমায় আমি ডেকেছিলেম ছুটির নিমন্ত্রণে অফুরন্ত সময় ছিল বন্ধু আমার কোন এক নীড়ের ছায়ায় নীবিড় মায়ায় নীরব ছিল কথা । প্রচন্ড এক আনন্দেতে বন্দী ছিলেম আমি তুমিও ছিলে তৃষ্ণা কাতর... বিস্তারিত

বালিকা

হুমায়রা নাসরীন নীনা সময়টা ছিল যে এক ঘুঘুডাকা অলস দুপুর, বালিকার পায়ে ছিল একজোড়া রুপার নূপুর। বসে এখন সে এপার্টমেন্টের রান্নাঘরের কোণে, ফেলে আসা গ্রামের ছবি ভাসছিল তার মনে। এমন দুপুরে সে... বিস্তারিত

সুখ

শোয়েব খান নূরুদ্দোহা ব্যস্ত দুপুরে ক্লান্ত শরীরে ঘামে ভিজে যাওয়া জামাগুলো, শরীর ও জামায় জমে থাকে কত ধুলো। ব্যস্ততার মাঝে অলস সময় খুঁজে পাওয়াই দায়, তারই মাঝে যদি আসে সময় অলস দুপুরবেলায়।... বিস্তারিত

মনে পড়ে

শারমিন তন্বী প্রিয়, তোমারও কি মনে পড়ে? আমারই মতো,, , তেপান্তরের মাঠের পরে সেই যে বুড়ো অশ্বত্থ গাছটা একটা হেমন্তের দুপুর পার করেছি আমরা দুজনে তারই ছায়ায় বসে। আমাদের চারপাশটা ছিল কেমন... বিস্তারিত

অলস দুপুর

তানিয়া শারমীন ববি রূপকথার রূপ কেড়ে নিয়ে গেছে কথা সব জমা আছে ঠোঁটের অলস ভাঁজে মনের অচিনপুরে। শব্দের যত দায় অর্থের কাছে বর্ণের মালা ছিঁড়ে গেছে ইতিউতি পড়ে আছে কাঠফাটা রোদ্দুরে। লুটেরা... বিস্তারিত

তুমি

সালমা সুলতানা আমার অলস দুপুর এক চিলতে দখিনের বারান্দা, বারান্দার খুব লাগোয়াা একটি কদম গাছ আমার একাত্বীতের সঙ্গী। যখন খুব একলা লাগে বারান্দায় দাঁড়িয়ে গলা ছেড়ে গান গাই, গাছে থাকা দোয়েল, চড়–ই,... বিস্তারিত

বাস্তবতা

আজমেরী সুলতানা ঊর্মি শ্র্রাবণ মাসের দ্বিতীয় দিনটায় ভোররাত থেকে বৃষ্টি। একটানা ঝর ঝরঝর। তারপর অলস দুপরটায়, হুট করেই কিছুটা ঝলমলে রোদ উঠে গেলো। মাথায় তখনও ভর দুপুরে ভূতে মারে ঢেলা। দুপুরের আকাশী... বিস্তারিত

তোমায় দিলাম

বুলা দাস আমার মেঘলা আকাশ, সুনীল বাতাস, উদাস দুপুর সব তোমায় দিলাম। অবারিত সবুজ ধান ক্ষেতে বয়ে চলা ঐ দখিনা বাতাস, সবই তোমায় দিলাম। আজ সারাটা দিন অঝোর বৃষ্টি! মেঘলা মনে যেন... বিস্তারিত

অনুভূতি

নূর মোহাম্মদ কোনো এক অলস দুপুরে, যখন কোনো বিরহী ঘুঘু ডাকে, নিঃসঙ্গ মন হয়ে উঠে স্মৃতিকাতর, বাতায়ন খুলে উঁকি দেয় কত স্মৃতি! কত মুখ, কত চেনা সুর, কত কথকতা, কত মান, কত... বিস্তারিত

ভাবছি

শাবানা ইসলাম বন্যা আহা, বর্ষারানী তুমি এসেছো? রুমঝুম ঝুম নূপুর পায়ে দহন বেলা স্তব্ধ করে মোদের বাংলায়। পিপাসার্ত মন, অলস দুপুর ক্ষণ মন ভেজাবে মোর? হোক তোমার শুভাগমন। ধূসর আকাশের বুক চিরে... বিস্তারিত

Bhorerkagoj