রাত্রির যাত্রী : তারেকুর রহমান

বাজারের ব্যাগ হাতে, ছাতা মাথায় দিয়ে বাড়ি ফিরছেন আজিজ মাস্টার। এত সকালে রোদের অত ঝলকানি না থাকলেও ছাতা মাথায় দিতে ভুল করেন না তিনি। এটা অভ্যাস হয়ে গেছে। কোথাও যেতে এই ছাতাটাই... বিস্তারিত

আলুর ঘাটি : সৈয়দা ইয়াসমিন আরা

আমি আর পলি দুই বান্ধবী। দুজনের মাঝে একেবারে অন্তরাত্মার টান। যেমন হয় দুই বোনে বোনে। তো যা কিছুই রান্না হোক, দুজনে একে অপরের সঙ্গে শেয়ার করবোই। এই যেমন পলির রান্না করা মাছ... বিস্তারিত

ছাপ : রহিমা আক্তার মৌ

রিয়াকে যখন আমি পড়াতে শুরু করি তখন ও ক্লাস সেভেনে আর আমি কলেজের ফার্স্ট ইয়ারের ছাত্র। আমাদের পরিচয় সেই চার-পাঁচ বছর আগে। ঠিক পারিবারিকভাবেও নয়, আবার বন্ধুদের মাধ্যমেও না। আমরা পাশাপাশি স্কুলে... বিস্তারিত

ত্যাগী : সিরাজুল মুস্তফা

মজিদ কাকু। উচ্চতা ৫ ফুট ৮ ইঞ্চির কাছাকাছি। সফেদ দাড়িওয়ালা, সুঠাম লোক। দেখামাত্রই চেনা যায়। হাজার লোকের ভিড়েও চেনা ব্যাপার না। সুশ্রী মুখ তার। মায়াবী একটা হাসি সর্বদা জ্বলজ্বল করে। রোজ সকালের... বিস্তারিত

গলফ কোর্স

ঋষিণ দস্তিদার মাঠে নরম ঘাসে ঝোপে গোল মত, সাদা বল যে ক’টা কুড়িয়ে নিলে- পাখিকে ভুল বোঝাতে। দিনমান আছি; খড়ে কাগজে শুখা পাতা বাস্তুশিবিরে ডেরায় বেঁচে থাকা কিছু সাজাতে গোছাতে হাওয়ায় খুলেছ... বিস্তারিত

প্রেমালাপ

জেলী আক্তার এখানে- কাছে থাকলেই মোড়ক, দূরে গেলেই বিস্ফোরক। এখানে কর্কশ কণ্ঠ, নীরব এক মারণাস্ত্রের নাম। এখানে শুধুই চোখের জলের সস্তা দাম। এখানে, অমীমাংসিত প্রেমালাপ- আর আছে নিয়মের কাঁটাতার। বেশি চাইলে উপহার... বিস্তারিত

যুবক তোমার জন্য

খায়রুননেসা রিমি যেদিন থেকে তোমার প্রেমে পড়েছি, সেদিন থেকে তোমার নামের মিছিল আমাকে ধাওয়া করছে। যেখানে যাই সেখানেই তোমার নাম। অবসাদে নুয়ে পড়া শরীরটা নিয়ে টং দোকানে চা খাচ্ছি… হঠাৎ খেয়াল করি... বিস্তারিত

বন্ধন

জান্নাতুল মমি আমাদের গ্রামের বাড়িটা বেশ প্রাচীন। রংচটা দেয়াল, ঝুলে ভরা বারান্দা, আধ ভাঙা দরজা-জানালা। যে কেউ চট করে ধরে নিতে পারবে- বহু বছর ধরে এ উঠোনে কারো পা পড়েনি। অনেকটা তুতুড়ে... বিস্তারিত

নুনের নদী

জাকারিয়া জাহাঙ্গীর তুমি এক অদ্ভুত রণাঙ্গন। বিধ্বস্ত পরাজয়ের অতৃপ্ত নেশায় বারবার ভেঙে দাও নিস্তব্ধ সৈনিকের ঘুম। যুদ্ধ খেলার আদিম বাজিতে তাড়িয়ে দাও সন্ধির আহ্বান। তোমার চিৎকারে-শীৎকারে জেগে উঠে শির, একেকটি রণঝঙ্কারে আমি... বিস্তারিত

প্রতিধ্বনি

শেখ জিয়াউল হক কোন ভাবনা আজ ভাবায় তোমায় কোন সে ভাবনা কাঁদায় তোমায়? তোমার মাঝে আজ তুমি তো নেই, কাঁদায় তোমাকে- সে হোক বা যেই শূন্য কুটিরে আজ প্রতিধ্বনি শুনি, কেউ তো... বিস্তারিত

দিনযাপনের ইতিবৃত্ত

জারিফ এ আলম হেমন্তের বিকেল সোনা ছড়ানো মিষ্টি রোদ মন আকুল করে রাখে। সারাদিনের কর্মব্যস্ততার মাঝেও প্রশান্তির সুবাতাস খুঁজে ফিরি। মৃদু হাওয়ার পালে বেজে ওঠে আনন্দ-ভৈরবী। অবিন্যস্ত ভাবনার পৃষ্ঠাতে জমে ওঠে নানারকম... বিস্তারিত

রাতের তারা

এহসানুল হক ফয়সাল আকাশজুড়ে তারার মেলা মেঘ সাথে করছে খেলা রাতের এই নিকষ কালো এখন বড় লাগছে ভালো তাই দেখে আজ হেসে কুটি ঘুমটা আজ নিচ্ছে ছুটি গুনতে গেলাম তারাগুলো আমায় দেখে... বিস্তারিত

সুখের ঠিকানা

জোবায়ের রাজু সোনাইমুড়ি রেলস্টেশনে বসে আছে তাসমি। ফুয়াদের প্রতীক্ষায় তার এই বসে থাকা। স্বামী সুমনের সংসার থেকে পালিয়ে এসেছে সে। স্বপ্নের পুরুষ ফুয়াদ একটু পর ট্রেনে করে ঢাকা থেকে আসবে তাকে নিয়ে... বিস্তারিত

নিখোঁজ বিজ্ঞপ্তি : মালেক সরদার

সপ্তাহে পাঁচ দিন পাঁচ তলা বিল্ডিংয়ের একদম টপ ফ্লোরে উঠতে হয় টিউশনির সুবাদে। লিফটের কোনো ব্যবস্থা নেই। এতে অবশ্য একটা সুবিধা হয়েছে। সেটা হলো, ওঠা-নামা করতে ব্যায়াম হয় কিছুটা। বর্ষার সময়, বৃষ্টি... বিস্তারিত

সঞ্জীব চৌধুরী >> বাতিঘরের ঘোর : মো. বোরহান উদ্দিন

তখন আমাদের ‘ভাঙা তরী-ছেঁড়া পাল’। তখন আমরা মাঝ দরিয়ায়। ঝড়ের ঝাপটায়, ঢেউয়ের তোড়ে- দিশাহারা। তবুও আশায় বুক বেঁধে পরিত্রাণ চাওয়া। এরই মাঝে নবীন মাঝি ত্রাতার ভূমিকায়। দিগি¦দিক পথ চাওয়া মাঝিমাল্লা আবার বাতিঘরের... বিস্তারিত

উপকার : মোহাম্মদ আজহার

কয়েক মাস আগে গুরুত্বপূর্ণ এক কাজে নোয়াখালী থেকে ঢাকায় আসি। বিকেলে রওয়ানা দেয়াতে পথেই সন্ধ্যা নামে। রাত ৯টায় বাস ঢাকার কাছাকাছি। একটা লোক বাসের সুপারভাইজারের কাছে এসে বলল, ভাই আমি ফার্মগেট যাব।... বিস্তারিত

বর্ধমানের সেই ছেলেটি : শ্যামল কুমার সরকার

চলতি বছরের মার্চে নিজের উচ্চ শিক্ষা বিষয়ক কাজে গিয়েছিলাম ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান বিশ^বিদ্যালয়ে। রাজবাড়ির প্রাচীন প্রশাসনিক ক্যাম্পাস ও নানা জাতের বৃক্ষ শোভিত গোলাপবাগের আধুনিক বিশাল একাডেমিক ক্যাম্পাস দেখে সত্যিই মুগ্ধ হয়েছিলাম। ভালো... বিস্তারিত

চোখটা এতো পোড়ায় কেন? : শেখ আহমেদ ফরহাদ

সারাদিন কর্মব্যস্ততা শেষে বিকেলের দিকে অন্তর্জালে উঁকি দিয়ে স্বদেশের খবর নেয়া এক প্রকার রুটিন ওয়ার্ক। ২০০৭ সালের ১৯ নভেম্বর এই রুটিন কাজটুকু করতে গিয়ে মুহূর্তে আমি বেদনায় মুষড়ে গেলাম। মধ্যপথে অকস্মাৎ থেমে... বিস্তারিত

অন্তরালেই থেকে গেলাম… : শেখ শামীমা নাসরীন পলি

আমি দেখছিলাম। দূর থেকে সবই দেখছিলাম। একটু একটু করে কীভাবে তুমি আমার থেকে দূরে সরে যাচ্ছো! আমিও তোমাকে একটু সাহায্য করেছিলাম। আড়ালে গিয়ে। দেখছিলাম, কীভাবে আমাকে দূরে ঠেলে দিতে পারো। আমার অদ্ভুতরকম... বিস্তারিত

বিভাজন : জাহিদ হোসেন

তৃতীয় দুপুরের কোল ঘেঁষে এলোচুলের এজলাসে বসে সত্য-মিথ্যার নির্ধারণী খেলায় মেতে ওঠো সময়ের বিভাজনে- রূপক লেখকের বেয়ারা কলম থেকে উঠে আসে দায়মুক্তির ইতিহাস সৃষ্টির আদেশ- কষ্টে কষ্ট পুষে পুষে রাতের ঘাম ঝরে,... বিস্তারিত

Bhorerkagoj