গ্রীস্মের খরতাপে : শাহীন খান

দুঃসহ গরমে থাকা বড় দায় ঘাম ঝরে থেকে থেকে কী করি উপায়! বাতাসের নেই লেশ গনগনে রদ্দুর ঝিম ধরে সবখানে চোখ যায় যদ্দুর! তাল পাখা সঙ্গী বিদ্যুৎ নেইরে দাবদাহে সহসা হারাচ্ছি খেইরে!... বিস্তারিত

দেহ মন আত্মা : নজমুল হেলাল

শরীর ভালো না থাকলে যে মনটা ভালো থাকে না; গোলমেলে হয় স্বপ্ন কত সুখের ছবি আঁকে না! সিদ্ধান্ত হয় ভুল যে কত শরীর বেঠিক হলে; অর্থক্ষতি যায় যে বেড়ে শান্তিটা যায় চলে!... বিস্তারিত

পরীর জামা : সাজ্জাক হোসেন শিহাব

মেঘের ভেলায় মেলে ডানা খুকি উড়ছে দেশে দেশে, মারছে উঁকি। কোথায় আছে পরীর মতো জামা সেখানেতে গিয়েই তবে থামা। এথায় ঘুরে সেথায় ঘুরে শেষে পাহাড় ঘেরা আজব রকম দেশে পেল খুকি সাদা... বিস্তারিত

হায়েনা : জসীম আল ফাহিম

চারপায়া জন্তুদের মধ্যে হায়েনাই নাকি সবচেয়ে বেশি হিংস্র। হিংস্র মানে প্রাণহারক। কোনো মায়াদয়া নেই তাদের। নিজের সন্তানকেও হত্যা করে খেতে কার্পণ্য করে না তারা। এ জন্যই হয়তো বলা হয়, পশুদের মন নেই।... বিস্তারিত

খেঁকশিয়ালের বিয়ে : আজিম হোসেন

খেঁকশিয়ালের বিয়ে হবে খেঁকশিয়ালীর সাথে, সেই খুশিতে শিয়াল মামা মিটিং ডাকে মাঠে। শিয়াল মামা ব্যস্ত বড় কেনাকাটার ধুম, সেই সুবাধে তার দুচোখে নেই তো কোনো ঘুম। ঢোলক বাজে-সানাই বাজে খেঁকশিয়ালের বাড়িতে, বহুদিনের... বিস্তারিত

আষাঢ়ে বাদল নামে : শাহীন খান

উড়ো মেঘ উড়ে আসে বাংলার আকাশে মৃদু মৃদুু ঠাণ্ডা বয়ে যায় বাতাসে। বিদ্যুৎ চমকায় ঝরঝরে বৃষ্টি গাছপালা জেগে ওঠে কেড়ে নেয় দৃষ্টি! ভাটিয়ালি গায় মাঝি পাল তোলে নৌকায় নাওরেতে বাপ বাড়ি হাসি... বিস্তারিত

রবিকে না ভুলি : শাহজাহান মোহাম্মদ

রবির চলা, রবির বলা রবি ফোটায় কলি রবির কাব্য, রবির ছড়া রবি নাচায় অলি। রবির যৌবন, রবির স্মৃতি রবি আঁকায় ছবি রবির গল্প, রবির প্রেম রবিই বিশ্বকবি। রবির প্রীতি, রবির গীতি রবি... বিস্তারিত

বাবা আমার : গোলাম নবী পান্না

কখন বাবা ফিরবে বাড়ি? পথ চেয়ে তাই থাকা, বাবার আদর পেতেই যত নানান স্বপ্ন আঁকা। অফিস থেকে ফিরে বাবা কোলে নেবেন তুলে, সারাদিনের কথা আমি তখন যাবো ভুলে। বাবা আমার দুঃখ বোঝেন... বিস্তারিত

আর্য্য ও সোনালি ডানার পাখি : শরদিন্দু ভট্টাচার্য্য টুটুল

আমাদের আর্য্য যখন ঘুম থেকে উঠেই জানলো ওর সোনালি ডানার পাখিটা ভোর বেলা উড়ে গেছে অসীম আকাশের ঠিকানায়, তখনই তার মন খারাপ হয়ে গেল। আর্য্যরে মন খারাপ হওয়া মানেই হলো, বাসার সবার... বিস্তারিত

আম কাঁঠালের স্মৃতি : বাসুদেব খাস্তগীর

আম কাঁঠালের পাগল করা সুবাসিত ঘ্রাণে, গাঁয়ের স্মৃতি আসে ফিরে দোল দিয়ে যায় প্রাণে। আনছি কত গাছে উঠে এসব মুঠি মুঠি, উঠোন বসে খেয়ে সবাই খেলছি লুটোপুটি। আম কাঁঠালের মাঝেই খেলে হাজার... বিস্তারিত

ফিরে এল টিংটং : শামীম খান যুবরাজ

‘মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এল টিংটং।’ পত্রিকার প্রধান শিরোনাম। মাছেদের পত্রিকা। ‘টিংটং’ একটি চিংড়ি মাছের নাম। যুবক চিংড়ি। সাহসী। শিকারির হাতে ধরা পড়ে সে। তারপর কৌশলে পালিয়ে আসে পুকুরে। আজ পুকুরজুড়ে বেশ... বিস্তারিত

রোদ্দুর : রওশন মতিন

সোনাঝরা হাসি হেসে রোদশিশু রোদ্দুর, ডানপিঠে খেলে যায় চোখ যায় যদ্দুর! রোদশিশু বন্ধু যে কড়া নাড়ে দরজায়, ঝিকিমিকি হাসিমুখে কাছে ডাকে আয় আয়! দিনগুলো রঙিন ইস্কুলে ছুটে যাই, বর্ণিল হাসি খুশি রোদশিশু... বিস্তারিত

কুহেলিয়া নদী : মিজান মনির

বাড়ি থেকে একটু দূরে কুহেলিয়া নদী ছলাৎ ছলাৎ কলতানে বহে নিরবধি। নদীর ধারেই কাশেরই বন সমীরণে নাচছে ফেলে আসা স্মৃতিরা হায় প্রতিটা দিন ডাকছে।... বিস্তারিত

রং-বেরঙের স্বপ্ন : আজিম হোসেন

আমরা কিশোর- রং-বেরঙের স্বপ্ন নিয়ে ঘুড়ির মতো উড়ব, হাওয়ায় হাওয়ায় অতি সুখে সপ্ত আকাশ ঘুরব। আমরা কিশোর- রঙিন আশায় গড়তে জীবন পাঠশালাতে পড়ব, সত্য ন্যায়ের পথটি ধরে সুখী সমাজ গড়ব। আমরা কিশোর-... বিস্তারিত

বিষ্টি ঝরে : পৃথ্বীশ চক্রবর্ত্তী

বিষ্টি ঝরে মিষ্টি স্বরে আমার সবুজ গাঁয় ছাতা মাথায় গায়ের পথে টিটু-নিটু যায়। বিষ্টি ঝরে ঝম ঝম করে ইষ্টিকুটুম গায় পাল টানিয়ে নায়ের মাঝি ভাটির দেশে যায়। বিষ্টি ঝরে সৃষ্টি নড়ে হাসে... বিস্তারিত

চেতনার ফুল : দিলারা সামস্ দিলু

কবিতা, গানে বুলবুল বাঁশিতে চেতনার ফুল ডাগর চোখ, ঝাঁকড়া চুল দ্রোহের কবি নজরুল। তুমি বীর সৈনিক মেহনতি মানুষের প্রতীক পরাধীনতার শিকল ভাঙার গান প্রেরণায় অগ্নিবীণার তান। জেল, জুলুম, অত্যাচার নির্ভীক সেজে মানোনি... বিস্তারিত

সাইকেল রহস্য : সাইফুল ইসলাম জুয়েল

মফস্বলের ছোট্ট শহর থেকে ঢাকায় আসার পরে একটা বড়সড় ধরনেরই ধাক্কা খেল রাফিন। শহুরে কাজিনরা ওকে মোটেও পাত্তা দেয় না। এখন স্কুল ছুটি চলছে। মা বলেছিলেন, কোথাও বেড়িয়ে আয় রাফিন। ভালো লাগবে।... বিস্তারিত

জ্যৈষ্ঠের দুপুরে : হাসান ইকবাল

জ্যৈষ্ঠের দুপুরে ঘুম নেই ছোট খোকাখুকির, রোদের সাথে চলছে খেলা হলুদ সূর্যমুখীর। চাতক ডাকছে জলের জন্যে পাতার ওই আড়ালে, কি আর ক্ষতি আম কাঁঠালের গন্ধে মন হারালে। গ্রীষ্মের গরমে কেউ বা সাধছে... বিস্তারিত

পিপলু : শিবশঙ্কর পাল

সপ্তাহের দু-তিনদিন পিপলুকে বাবার সঙ্গে ব্যাগ হাতে বাজারে যেতে হয়। বাবা বাজারে গিয়ে মাছ-তরকারি ইত্যাদি কিনে দিলে তা বাড়িতে বয়ে নিয়ে আসতে হয়। বাবা দোকানে যাওয়ার পথে পিপলুকে সঙ্গে নিয়ে যায়। বাজারটা... বিস্তারিত

বাবা : মিজানুর রহমান

বাবা আমার প্রিয় মানুষ আমার আপনজন, বাবার জন্য মনটা আমার পাগল সারাক্ষণ। বাবা আমার স্বপ্নছায়া নিবিড় ভালোবাসা, বাবার হাতেই পূর্ণতা পায় আমার সকল আশা।... বিস্তারিত

Bhorerkagoj