মুজিব মানে : শাহীন খান

মুজিব মানে রৌদ্র-ছায়া বৃষ্টি ঝরা দিন, মুজিব মানে ভীষণ মায়া স্বাধীনতার বীণ। মুজিব মানে চঞ্চলতা দীপ্ত ভরা ভাষণ, মুজিব মানে সবার মিতা মায়ার বাঁধন, শাসন। মুজিব মানে চাঁদ ও তারা আলোয় ভরা... বিস্তারিত

বিজয় : জারিফ এ আলম

মায়ের চোখের অশ্রæ দিয়ে ভাইয়ের তাজা রক্ত দিয়ে একাত্তরে স্বাধীন হলাম সাহস নিয়ে যুদ্ধে গিয়ে আনলো যারা বিজয় নিয়ে জানাই তাদের শ্রদ্ধা-সালাম। ঝরিয়ে রুধির একাত্তরে বিজয় এলো সবার ঘরে প্রতীক আমার এই... বিস্তারিত

স্বাধীনতা : আব্দুস সালাম

দেশ-ক্ষমতা রাখতে ধরে হামলা করে ঘরে ঘরে প্রাণ কেড়ে নেয় শত পাকসেনারা বাঙালিদের বুকে আঁকে ক্ষত। ঘৃণ্য তাদের মনের খায়েশ মানুষ মেরে করবে আয়েশ করল আঘাত তাই কিন্তু তারা বুঝল শেষে বাঁচার... বিস্তারিত

হেমন্ত অতিথি ; কাজী মারুফ

আমার দেশে মুচকি হেসে কোন অতিথি এল? যার পরশে আজকে সবাই স্বস্তি ফিরে পেল। দূর্বাঘাসে শিশির হাসে কী অপরূপ ছবি মুগ্ধ হয়ে গান কবিতা লেখেন কত কবি। কৃষক চাষি দেয় যে হাসি... বিস্তারিত

হেমন্ত : শশধর চন্দ্র রায়

শিশিরভেজা দূর্বাঘাসে এসে শীতল পায়ে, একটি ঋতু হেসে ওঠে সবুজ-শ্যামল গাঁয়ে। হিমেল হাওয়ার আলতো ছোঁয়ায় সেই ঋতুটি আসে, শরৎ শেষে নতুন বেশে উঁকি দিয়ে হাসে। পাকা ধানের সোনার শীষে ঘর ভরে যায়... বিস্তারিত

ধান কাটার গান : শামীম খান যুবরাজ

কাস্তে হাতে গাঁয়ের কৃষক ছুটছে ক্ষেতের পানে, খুশির ঝিলিক উপছে পড়ে হলুদরঙা ধানে। ধান কাটো ভাই ধান সাঁঝের বেলায় গান- আলম কাকুর ডাক শুনে আজ তৃপ্ত চাষির প্রাণ। আবুল-রফিক-মনা-শফিক সবার মুখে হাসি,... বিস্তারিত

মামাবাড়ি ব্রুনাই : কমলেশ রায়

বারান্দায় দাঁড়িয়ে আছি। আরো সবুজ হয়েছে টবের গাছগুলো। গত শুক্রবারে জৈবসার দেয়া হয়েছে। তিনদিনে সতেজতা বেড়েছে চোখে পড়ার মতো। তাকালেই কেমন একটা প্রশান্তি লাগে। গাছগুলো রিদিমার। সে নিয়মিত গাছে পানি দেয়। পরিচর্যা... বিস্তারিত

ছোট্ট বলে : হুমায়ুন আবিদ

জোনাক পোকা জোনাক পোকা আমায় তুমি বলো- রাত্রি হলে কেমন করে মিটমিটিয়ে জ্বলো। প্রজাপতি প্রজাপতি এমন রঙিন ডানা কোথায় পেলে বলো না ভাই দেবো মিঠাই খানা। ফড়িং ছানা ফড়িং ছানা সবুজ ঘাসের... বিস্তারিত

ব-তে বল্টু : আবেদীন জনী

বল্টু খুব ভালো ছেলে। সব সময় ওর ঠোঁটে ফুটে থাকে ফুলের মতো হাসি। মনটাও কচিপাতার মতো কোমল। সবুজ। আর ফড়িংখোকার মতো চঞ্চল। সকাল বিকেল গাঁয়ের মাঠে বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে খুব ভালো লাগে... বিস্তারিত

একটু হাসো

শিক্ষক : আচ্ছা, বলতো গ্রামার কাকে বলে? ছাত্র : যারা গ্রামে থাকে তাদের গ্রামার বলে। আর বাংলাদেশের গ্রামে যারা থাকে তাদের বাংলা গ্রামার এবং বিদেশের গ্রামে যারা থাকে তাদের ইংলিশ গ্রামার বলে…... বিস্তারিত

চাঁদের ছড়া : পরিতোষ বাবলু

একটি কথা বলছি শুনো রিম্মি, প্রমি, তাজিন তোমরা ডাকো চাঁদকে মামা চাঁদটা আমার কাজিন! তোমরা বলো, ধুৎত্তরি ছাই! ঠাট্টা করো পিছে চাঁদকে নিয়ে কাব্য লিখি শুধুই মিছে-মিছে! চাঁদ ঘুমালো মেঘের বাড়ি মেঘের... বিস্তারিত

হইচই : হাসান ইকবাল

আকাশ পাড়ে মেঘ জমেছে জুভান গেল কই? দিঘির জলে হাঁসগুলো সব করছে যে হইচই। চাঁদের দেশে মেঘের পরী খিলখিলিয়ে হাসে, অল্প কথায় তুবা শুধু চোখের জলে ভাসে। কথার ছলে গল্প বলে ফাইজা... বিস্তারিত

টুসিদের গ্রাম : কামাল হোসাইন

শান্ত ও মায়াময় এক গ্রাম। চিত্রা নদীর তীরঘেঁষে থাকা গ্রামটির নাম নিশ্চিন্তপুর। টুসিদের গ্রাম এটা। টুসি তার দাদির কোলে শুয়ে শুয়ে নানারকম গল্প শোনে। সে দিনও টুসি এই গ্রামের অজানা গল্প শুনছিল... বিস্তারিত

টাকার টুকিটাকি

আধুনিককালে আমরা টাকা হিসেবে সাধারণত কাগুজে নোট বা ধাতব মুদ্রা ব্যবহার করি। কিন্তু প্রাচীনকালে ‘টাকা’ হিসেবে অনেক মজার আর অদ্ভুত বস্তুকে কাজে লাগিয়েছে মানুষ। এর মধ্যে আছে পাথর, বীজ, পুঁতি, ঝিনুক, পাখির... বিস্তারিত

একটু হাসো

বল্টু এবং মন্টু পরীক্ষার হলে লেখা বাদ দিয়ে গল্প করছে। স্যার : কি ব্যাপার তোমরা লেখা বন্ধ করে গল্প করছো কেন? বল্টু : স্যার প্রশ্নে লেখা আছে পলাশীর যুদ্ধ সম্পর্কে আলোচনা কর।... বিস্তারিত

চড়কা বুড়ি : নুশরাত রুমু

চাঁদের দেশে আছে নাকি চড়কা কাটা বুড়ি সেইখানে হায় আটকে গেছে খোকন সোনার ঘুড়ি। সুতোর লোভে চড়কা বুড়ি দিচ্ছে জোরে টান ভাবল খোকা ঘুড়ি বুঝি করল অভিমান। বাতাস এসে বুড়ির কথা বলল... বিস্তারিত

আজগুবি নয় : শেখ সালাহ্উদ্দীন

আজগুবি নয়, সক্কালবেলা একদা গভীর রাতে দু’টি লাশ উঠে লড়তে চলল একে অন্যের সাথে। পিছনে ফিরেই পরস্পরের চোখে রাগী চোখ রেখে সহসা দুজনে টেনে বের করে তরবারি খাপ থেকে- একে অন্যকে নিশানা... বিস্তারিত

রূপকথার দুঃসাহস : আহাদ আদনান

পূর্বদিকের জানালাটা দিয়ে চাঁদ দেখা যায়। চাঁদের আলো ঘরে ঢুকে যেন চোখটাতে আদর বুলিয়ে দেয়। ঘুম না এলে মা যেমন চুলে বিলি কেটে দেয় জোছনার আলোও তেমন করে চোখে বসে ঘুম পাড়িয়ে... বিস্তারিত

ইড়িং বিড়িং

উৎপলকান্তি বড়–য়া ইড়িং বিড়িং তিড়িং বিড়িং ফড়িং লাফায় ঘাসে, হাতির মাথায় ছাতি ধরে ন্যাংটি চলে পাশে। সিংহ মামার সামনে মশা ফুলায় বুকের ছাতি, বাঘের মুখে সুড়সুড়ি দেয় কাঠবিড়ালের নাতি। ধূর্ত শেয়াল টপকে... বিস্তারিত

তিন তিনটা

অঙ্কের জাদু প্রথম জাদু ১ থেকে ১০০ এর মধ্যে যে কোনো একটি সংখ্যা কল্পনা করো। এরপর সেই সংখ্যাটিকে ২ দিয়ে গুণ করো। প্রাপ্ত গুণফলকে ৫ গুণ করলে নতুন গুণফলের শেষে অবশ্যই ০... বিস্তারিত

Bhorerkagoj