নানার বাড়ি : সামিমা বেগম

বছর ঘুরে জ্যৈষ্ঠ এলো ফলের কাড়াকাড়ি, দোহাই মাগো দিস্ নে বাধা যেতে নানার বাড়ি। ঈদের ছুটি তাও পেয়েছি বাধ মানে না প্রাণে, ঘরে কী মা যায় গো থাকা মাতাল করা ঘ্রাণে? খুব... বিস্তারিত

মাগো তুমি : জিনিয়াস মাহমুদ

সুখে-দুঃখে মাগো তুমি আমার পাশে থেকো আমায় তুমি সারাজীবন তোমার বুকে রেখো। চোখের আড়াল হলে তুমি প্রাণ যে কেমন করে! চারিটা দিক আঁধার লাগে মন বসে না ঘরে। ভাল্লাগে না পড়তে আমার... বিস্তারিত

মা’র তুলনা নাই : নাহিদ নজরুল

মা’র তুলনা মা-ই শুধু আর তুলনা নাই সুখে-দুঃখে ধরার বুকে তাকেই কাছে পাই। সুখের ভাগি না হলেও ‘মা’ দুঃখের ভাগি হয় যদিও সবাই পর হয়ে যায় মা’ই আপন রয়। ভালো-মন্দ সব কিছুরই... বিস্তারিত

মায়ের গন্ধ আসে : কাজী কেয়া

আমার মায়ের গন্ধ আসে ভেসে… ওপাড়ের ঐ কুটির থেকে এপাড় বাংলাদেশে। ভোরের হাওয়া বলল এসে, ‘খুকু! মা পাঠালো ¯েœহের আশিসটুকু।’ আধেক রাতে মায়ের গন্ধ পেয়ে… হৃদয় আমার উঠল গানটি গেয়ে- ‘মা যে... বিস্তারিত

মা তুমি কী : ফারুক নওয়াজ

মা তুমি কী উদাসপারা স্নিগ্ধমেদুর সাঁঝের তারা? চাঁদের পাশে ঝিলমিলিয়ে জ্বলো? মা তুমি কী বলো? তুমি কী সেই শুকতারাটি যাও মিলিয়ে ভোরটি যখন হলো! মা তুমি কী জোছনারাতে পিয়াল বনে ছড়িয়ে থাকা... বিস্তারিত

মা আমার শিক্ষাগুরু : সূর্য কুমার বৈষ্ণব

মা আমার শিক্ষাগুরু সবচেয়ে প্রিয়জন, মা আমার সোনার খনি সাত রাজারই ধন। মা-ই আমায় দেখিয়েছে এই ধরণীর আলো, মায়ের মতো কেউ তো আর হয় না এত ভালো। প্রাণভরে যায় দেখলে মায়ের বদন... বিস্তারিত

মা যে আমার : এম এস মুরছালিন আয়াস

মা যে আমার চাঁদের মতো ছড়ায় মিষ্টি আলো, দূর করে সব বিষণœতা আছে যত কালো। মা যে আমার সাতসকালের ঘুম ভাঙানো পাখি- স্বপ্ন দ্যাখে বিশ্ব জয়ের আমার দুটি আঁখি। মা যে আমার... বিস্তারিত

ভালোবাসি মা : রাকিব আল হাসান

মা গো তোমায় যখন মনে পড়ে চোখের পানি অবিরত ঝরে। তোমার কথা কেমনে ভুলে থাকি তাই তো স্মৃতি সদা মনে রাখি। মন খারাপের পালা যখন আসে তোমার মুখই অধিক মনে ভাসে। দৌড়িয়ে... বিস্তারিত

মায়ের ছবি : প্রজীৎ ঘোষ

মায়ের ছবি আছে আমার দুই নয়নে আঁকা; মায়ের ছবি আমার বুকের কোঠরেতে রাখা। মায়ের ছবি ভেসে ওঠে সকাল দুপুর সাঁঝে; হৃদয়জুড়ে সারাটি ক্ষণ থাকে আমার মা যে। মায়ের শাসন মায়ের আদর আমার... বিস্তারিত

মায়ের মতো : ইব্রাহীম রাসেল

মায়ের মতো আপন এমন কেউ তো আর হয় না, মা-ই আমার হিরে-মাণিক দামি সোনার গয়না। মায়ের বুকে শান্তি ধারা শ্রেষ্ঠ সুখের খনি, মা ছাড়া যে মিছে সব-ই মা-ই চোখের মণি। মাকে কাছে... বিস্তারিত

রবির আলো : মাহমুদুর রহমান খাঁন

পূব আকাশে সুপ্রভাতে রবির কিরণ জাগে রবির আলোর ছোঁয়া লাগে সাহিত্যেরই বাগে। আলোয় আলোয় ভরিয়ে দিয়ে করল আঁধার দূর নতুন দিনের নতুন গানের আসলো ভেসে সুর। লিখল রবি দুহাত মেলে লিখল হাজার... বিস্তারিত

পঁচিশে বৈশাখ : আবুল হোসেন আজাদ

ভোরের পাখির গানে গানে ভাঙলো যখন ঘুম চেয়ে দেখি ফর্সা আকাশ- আলোরই কুমকুম। ফুলে ফুলে প্রজাপতি মৌমাছিদের ভিড় সবুজ পাতার ডালে পাখি ছেড়েছে তার নীড়। ঝিরিঝিরি যায় বয়ে যায় ¯িœগ্ধ সমীরণ খুশিতে... বিস্তারিত

হাস্যরসিক রবীন্দ্রনাথ : জহিরুল ইসলাম

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর অনেক অনেক লেখালেখি করেছেন। তার লেখা গানের সংখ্যাই ২২৩২টি। চিন্তা করা যায়! শুধু লেখাই না, এসব গানে তিনি সুরও করেছেন। গান ছাড়াও তিনি কবিতা, উপন্যাস, ছোটগল্প, নাটক আর প্রবন্ধ... বিস্তারিত

বিশ্বকবি : খায়রুল আলম রাজু

বিশ্বকবির সৃষ্টি দারুণ এই যে নিখুঁত ধরায়- বন্দি সকল পাঠক সমাজ গান, কবিতা, ছড়ায় গল্প, নাটক, উপন্যাসও ভ্রমণ, বাণী-লেখায়, জীবন পথে চলতে সদা কত্তো কিছুই শেখায়। নোবেল জয়ী কাব্য উনার গীতাঞ্জলির তরে;... বিস্তারিত

কবি রবি : বাশার মাহফুজ

লম্বা চুলে দীপ্ত পায়ে হাঁটেন তিনি একা নীল আকাশে মেঘের চূড়ায় পাই যে কবির দেখা। গল্প-নাটক গান-ছড়াতে ঝুমকো লতার দোলা সবখানেতে মিশে আছেন যায় না তাকে ভোলা। রঙতুলিতে মন লাগিয়ে আঁকছি যখন... বিস্তারিত

বনের রাজা খরগোশ : আবুল কালাম আজাদ

ব্যাঘ্র মামা গা ঝাড়া দিয়ে উঠে দাঁড়ালেন। ব্যাঘ্রটা কে বুঝতে পেরেছো তো? ব্যাঘ্র হলো বাঘ। হ্যাঁ, আমি বাঘ মামার কথা বলছি। তিনি দাঁড়িয়ে বললেন- আমার থাবা দেখেছ? থাবার মধ্যে নখ দেখেছ? কাউকে... বিস্তারিত

আলাদিনের জিন : জাকিয়া রহমান অন্তি

আমার সবচেয়ে পছন্দের মানুষ, আমার দাদু। আমার দেখা এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সুদর্শন মানুষ তিনি। ময়মনসিংহ এডওয়ার্ড স্কুল এবং কলেজের হেডমাস্টার ছিলেন তিনি। আম্মু-আব্বুর বিয়ের পরে আব্বু ঢাকায় চাকরি করতেন আর আম্মুর ময়মনসিংহে... বিস্তারিত

মঙ্গলে টিম রাফি : তাহমিদ মুরসালিন রুবাব

২০ অক্টোবর, ২৩৬৯ সাল। উত্তেজনায় রাফির বুক ধকধক করছে। আর মাত্র ৫ ঘণ্টা বাকি মঙ্গল গ্রহে পৌঁছাতে। আল্লাহ ওদের বাঁচালে ওরাই প্রথম মঙ্গল গ্রহে পা দেবে। মঙ্গল গ্রহে অক্সিজেনের স্বল্পতা, তেজস্ক্রিয় রশ্মি,... বিস্তারিত

কংকং : জসীম আল ফাহিম

বাসার সামনে লনের মতো খোলা একটু জায়গা। সবুজ ঘাসে ঢাকা জায়গাটাতে রক্তজবা ফুলের একটি গাছ রয়েছে। গাছটিতে মেয়েদের কানের ঝুমকোর মতো অনেক রক্তজবা ফুল ঝুলে রয়েছে। নূপুর বিকেলে লনের ঘাসে খালি পায়ে... বিস্তারিত

প্যাঁপু প্যাঁপু : সৈয়দ শরীফ

প্যাঁপু প্যাঁপু বাঁশি বাজে খুকু ধরে বায়না, কিছু তো সে খায় না- আজকের দিনে খুকু ঘরে থাকা চায় না। আজ সারাদিন নাকি পার্কে সে ঘুরবে, চরকিতে উড়বে- তবে নাকি মন-ই নয় প্রাণটাও... বিস্তারিত

Bhorerkagoj