এক যে ছিল সোনার ছেলে : শশধর চন্দ্র রায়

এক যে ছিল সোনার ছেলে শেখ মুজিবুর নামে জন্মেছিল বাংলাদেশে, টুঙ্গিপাড়া গ্রামে। ছোটবেলায় আদর করে ডাকত সবাই ‘খোকা’, বুদ্ধি ছিল তার যে মাথায়, ছিল না সে বোকা। বড় হয়ে সেই ছেলেটি হলো... বিস্তারিত

মুজিব মানে একটি সূর্য : সোমা মুৎসুদ্দী

একটি খোকা ঘুমিয়ে আছে সবুজ বাংলাদেশে একটি খোকা ঘুমিয়ে আছে মুজিবেরই বেশে। মুজিব মানে শিশুর হাসি বাবার ভালোবাসা মুজিব মানে এগিয়ে চলা নতুন ভোরের আশা। মুজিব মানে মিছিল-মিটিং দেশের স্বাধীনতা মুজিব মানে... বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধু : আখ্তারুজ্জামান আশা

নয়ন জলে বুকটা ভাসে চিত্তে বাড়ে শোক, চলার পথে চলতে গিয়ে তোমার দেখা হোক। হৃদয়ফ্রেমে তোমার ছবি রাখছে বেঁধে লোক কল্পনাতে বিরাজ কর জুড়ায় দুটি চোখ। চোখের জলে রাখছে ধরে করে মাথার... বিস্তারিত

মুজিব : আবেদীন জনী

মুজিব মানে পাক-হায়েনার কলজে কাঁপা ভয় মুজিব মানে স্বাধীনতা মুজিব মানে জয়। মুজিব মানে জাতির জনক মুজিব মানে শক্তি মুজিবকে তাই আমরা জানাই হাজার সালাম-ভক্তি। শেখ মুজিবের জন্ম যদি না হতো এই... বিস্তারিত

মেঘের ভাঁজে

রবীন্দ্রনাথ : কামাল হোসাইন মেঘ আসছে, মেঘ ভাসছে মেঘ ছুটছে ওই, চলছে ছুটে রাতবিরাতে দাঁড়িয়ে দেখি জানালাতে ডাকছি কত, থামছে না সে; ক্যামনে কথা কই? মেঘমালাদের ব্যস্ততা খুব বুঝি ভীষণ তাড়া; ছুটছে... বিস্তারিত

শিশু রাজ্যের কবি : খোরশেদ আলম নয়ন

ডাকঘরেরই ‘অমল-সুধা’ কাবুলি ওয়ালার ‘মিনি’ যার মমতায় মন ছুঁয়ে যায় আমরা তাকে চিনি দুরন্ত সেই বালক ‘ফটিক’ ‘বলাই’ স্নেহ মাখা, ‘সুভাষিণী’র দুঃখ গাথা তার তুলিতেই আঁকা অশ্রæসজল ‘রতন’ যখন তাকায় পথের বাঁকে,... বিস্তারিত

বাইশে শ্রাবণ : আবুল হোসেন আজাদ

আজকে আকাশ মিশকালো রং বৃষ্টি ঝর ঝর খাল নদী বিল পুকুর ডোবা জলে ভর ভর। যাচ্ছে ভিজে পাখির ডানা বইছে ঝড়ো হাওয়া মেঘের খেয়ায় বজ্র দেয়ার ঝিলিক আসা যাওয়া। ডাহুক ডাকে কলমিদামে... বিস্তারিত

তোমাদের জন্য বিশ্বকবির লেখা

তালগাছ এক পায়ে দাঁড়িয়ে সব গাছ ছাড়িয়ে উঁকি মারে আকাশে। মনে সাধ, কালো মেঘ ফুঁড়ে যায় একেবারে উড়ে যায়; কোথা পাবে পাখা সে?… এই কবিতাটি শোনেনি বা পড়েনি এমন মানুষ আমাদের দেশে... বিস্তারিত

নীল আকাশে পরীর দেশে : ভোলা নাথ পোদ্দার

ছোট্ট সোনা আকাশ পানে তাকিয়ে শুধু ভাবে, ওই না মেঘের দেশটাতে সে কেমন করে যাবে! তার ভাবনা চলতে থাকে- কেমন মেঘের দেশটা, পরীর রাজ্য ঘুরে ঘুরে দেখবে পরীর বেশটা! ফুলে ভরা পরীর... বিস্তারিত

জাদুর রঙপেনসিল : জহিরুল ইসলাম

শিশু বয়সেই বাবা-মাকে হারায় লিয়াং। বন থেকে কাঠ কেটে বাজারে বিক্রি করে খাবার জোটে তার। খুব ছবি আঁকার শখ ছোট্ট লিয়াংয়ের। কিন্তু পয়সা না থাকায় একটা রঙপেনসিলও কিনতে পারে না সে। একদিন... বিস্তারিত

ভুতুড়ে কাঁকড়া

নাম তার ঘোস্ট ক্রাব। ভুতুড়ে কাঁকড়া। ভূতের মতো সব কাজকর্ম তাদের। আর তাই লোকে বলে ভুতুড়ে কাঁকড়া। এরা গোঙ্গায় না। গর্জে ওঠে না। তবে এমন এক শব্দ করে, যা শুনলে শত্রুর পিলে... বিস্তারিত

সুয্যিমামা খাচ্ছে ঝাড়ি

গিয়াস উদ্দিন রূপম গুড় গুড়া গুড় ডাকছে দেয়া লোক পারাপার বন্ধ খেয়া ফুটছে বনে চম্পা-কদম লাল শালুক আর শুভ্র কেয়া। তুলতুলে মেঘ দিচ্ছে পাড়ি সঙ্গে বাতাস-বজ্র ভারি গোমড়ামুখো সুয্যিমামা খাচ্ছে বুঝি বড্ড... বিস্তারিত

অর্ণ বর্ণ পুচ্ছ

আসাদ জোবায়ের ঘুড়ির সঙ্গে বন্ধুতা করে উড়ে বেড়াতে বেশ লাগে অন্তুর। শূন্য বাতাসে হাত-পা ছড়িয়ে উড়ে বেড়ানোর মতো রোমাঞ্চ কি আর হয়? উড়তে উড়তে দেখা হয়ে যায় মেঘদের সঙ্গে। – ও মেঘ... বিস্তারিত

মেঘবালিকার ছড়া

পরিতোষ বাবলু মন্টি সোনার মন ভালো নেই মনটা উড়–-উড়– সকাল থেকে মেঘবালিকার কান্না হলো শুরু! কান্না ঝরে অঝোর ধারায় মাঠে-ঘাটে বেবাক পাড়ায়! কান্নাগুলো ছাপিয়ে বেড়ায় এঘর-ওঘর, ভাঙা ডেরায়! ঘরের ভেতর ভাসল থালা... বিস্তারিত

মিষ্টি বৃষ্টি : সৈয়দ আসাদুজ্জামান সুহান

নীতু অনেক চিন্তা-ভাবনা করেও নীল পরীর রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি। এখনো সে বুঝতে পারছে না, সত্যি সত্যিই কি সে দিন নীল পরী এসেছিল? নাকি সে নিছক স্বপ্ন দেখেছে? খুব ইচ্ছে ছিল ওর... বিস্তারিত

মেঘমালাদের কথা

বর্ষাকাল চলছে। এ সময় আকাশে নানা রকম মেঘের আনাগোনা দেখা যায়। আবার দেখা যায়, ঝমঝমাঝম বৃষ্টি পড়ছে তো পড়ছেই। থামার নাম-গন্ধ নেই। কারণ, মেঘের মধ্যে অনেক অনেক পানি থাকে। আরো একটু খুলে... বিস্তারিত

অন্যান্য

স্যার ক্লাসে সবাইকে ক্রিকেট ম্যাচ নিয়ে রচনা লিখতে দিয়েছেন। সবাই মন দিয়ে লিখে চলছে। ৩-৪ মিনিট পরই স্যার হঠাৎ দেখেন রন্টি জানালা দিয়ে উদাস চোখে বাইরের মাঠের দিকে তাকিয়ে আছে।   স্যার... বিস্তারিত

খুকু আঁকে রংধনু : আবু সাইদ

হাত গালে খুকুমণি আছে বেশ চিন্তায়, হচ্ছে না কিছু আঁকা, আঁকলো কী, তিন তায়? জানালার কাচ ভেদে দেখল সে আকাশে, রং মাখা রংধনু মনোহর বাঁকা সে! ডান পাশে সোনা রোদ বাম পাশে... বিস্তারিত

এল আষাঢ় মাস : আহাদ আলী মোল্লা

আমরা থাকি পাড়া গ্রামে যখন তখন বৃষ্টি নামে কখন শুরু কখন থামে জানে কেবল মেঘ; যায় ছুটে সে একলা একা এই আছে ফের যায় না দেখা নেই তো ছোটার সীমা রেখা দারুণ... বিস্তারিত

মেঘের কারুকাজ : আকরাম সাবিত

আকাশ হতে জমিন পথে বৃষ্টি নামে ঠিক, এমন ভোরে কেমন করে ভিজায় চারিদিক। ভিজায় পাতা ব্যাঙের ছাতা বৃক্ষরাজি সব, চতুর্দিকে কাব্য লিখে মেঘের কলরব। বারেবারে দৃষ্টি কাড়ে দুষ্টু মেঘের দল, উঠানটাতে মেঘের... বিস্তারিত

Bhorerkagoj