সাহসী খোকার গল্প : মোনোয়ার হোসেন

খোকা দেখতে একেবারে পাটখড়ির মতো! লিকলিকে। ছিপছিপে লম্বা। খোকা ভাত খায়, মাছ খায়, দুধ খায়, ডিম খায়, শাক-সবজি খায়, ফলমূল খায়, সবকিছুই খায় তবুও খোকা মোটা হয় না। দিনে দিনে আরো যেন... বিস্তারিত

শোক : আবু সাইদ

শোক শোক শোক জল ভরা চোখ আগস্ট এলে কাঁদে ভূলোক দ্যুলোক। শোক শোক শোক হায়রে পাতক! কী বিনাশ করে গেলি? বিস্মিত লোক! শোক শোক শোক পাপী পলাতক, আন ধরে টেনে আন বিচারটা... বিস্তারিত

অবক্ষয়ের রাত : খোন্দকার শাহিদুল হক

প্রভাত ছিল রক্তে ভেজা দেশটা জুড়ে ভয় বিশ্ববিবেক দেখল চেয়ে চরম অবক্ষয়। বাঙালিদের মহান নেতা ঘাতক দলের হাতে স্বজনসহ মারা গেলেন অবক্ষয়ের রাতে। নামল আঁধার চারিদিকে রুদ্ধ হলো স্বর ভণ্ড হলো দণ্ডধারী... বিস্তারিত

প্রাণের মুজিবুর : ফখরুল ইসলাম

টুঙ্গিপাড়ার একটা ছেলে একলা বসে খুব দেশের জন্য করবে কিছু ভাবতো বসে চুপ দেশ-জনতার দুঃখ ব্যথা তার মনে খুব লাগত শান্ত-সুখী একটা দেশের চিত্র-ছবি আঁকত। সেই ছেলেটা বড় হয়ে করল কঠিন পণ-... বিস্তারিত

ভাগ্যগুণে : সৈয়দ মাশহুদুল হক

যখন ভাবি জাতির পিতা নাই আমাদের মাঝে ব্যথার ভারে হৃদয় কোণে বিষের-ই সুর বাজে। বিশেষ করে আগস্ট এলে সেই ব্যথা খুব বাড়ে বুকের মধ্যে উথালপাতাল ঢেউগুলো ফাল পারে। আগস্টেরই নিঝুম রাতে হায়েনার... বিস্তারিত

কবিগুরু : পৃথ্বীশ চক্রবর্ত্তী

তোমার পদ্য, কবিতা, গান তোমার ছড়ার স্বরে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ তোমায় মনে পড়ে। তোমার গল্প, উপন্যাস আর প্রবন্ধ বই পড়ে তোমার আঁকা ছবি দেখে মনটা ওঠে ভরে। তোমার অজর চিঠি-পত্র নাটক, সংকলনে কবিগুরু... বিস্তারিত

প্রাণের কবি : আহাদ আলী মোল্লা

পাঠশালা তার ভাল্লাগে না- কোনো শাসন বারণ সকল কিছুর মধ্যে কেবল খুঁজে বেড়ায় কারণ আকাশ পানে দৃষ্টি হানে দু’চোখ ডাগর ডাগর মন যেন তার কাব্যলেখা ছন্দ ছড়ার সাগর। বাঁধনহারা ভাবুক সে খুব,... বিস্তারিত

একটু হাসো

১. বাবা ও ছেলের কথাবার্তা (ছেলে বই খুলে টেবিলে বসে আছে) বাবা : তুমি বই খুলে চুপচাপ বসে আছো কেন? ছেলে : ভাবছি, এখন আমি পড়ব কি পড়ব না। বাবা : পড়তে... বিস্তারিত

টুলটুলের তুলতুল : আবুল কালাম আজাদ

টুলটুল গিয়েছিল ওর খালার বাসায়। ওর খালার একটা বেড়াল আছে। বেড়ালটার নাম মিনি। টুলটুলের খালার নাম মিনু। নিজের নামের সঙ্গে মিল রেখে তিনি তার প্রিয় বেড়ালের নাম রেখেছেন। মিনি তিনটা বাচ্চা দিয়েছে।... বিস্তারিত

বর্ষায় : হুমায়ুন আবিদ

বর্ষায় হাসে বৃষ্টি মেয়ে জলের নূপুর পায়ে টাপুরটুপুর বৃষ্টি পড়ে সারা শহর, গায়ে। বর্ষায় হাসে গাছগাছালি সবুজ চাদর পড়ে টেংরা, পুঁটি লাফায় জলে বৃষ্টি পরখ করে। বর্ষায় হাসে সোনা ব্যাঙে ঘ্যাঙর ঘ্যাঙর... বিস্তারিত

বাণিজ্যের সোনা : মো. শাহজাহান বেপারী

বাণিজ্যেতে যাবো মাগো আনবো সোনা দানা, তোমাকে গড়িয়ে দেবো একশ ভোর গয়না। জলদি করে সাজিয়ে দাও ময়ুরপঙ্খি নাও, দাড়ি মাল্লা পুজিপাট্টা আমার সঙ্গে দাও। উজান দেখে যাবো মাগো উড়াতে রঙিন পাল, দাড়ি... বিস্তারিত

খোকন সোনা : রুহুল আমিন রাকিব

খোকন সোনা রাগ করেছে ভালো-লাগে না কিছু, ইচ্ছে করে তার যে শুধু ধরতে চাঁদের পিছু। চাঁদের আলো মাখতে গায়ে খোকার ভীষণ শখ! চাঁদের আলো পড়লে গায়ে গা করে চক-চক। চাঁদের সুভাস নিতে... বিস্তারিত

ময়না : কবির কাঞ্চন

সারারাত টিপটিপ বৃষ্টি ঝরেছে। ফজরের আজানও কানে বাজেনি। রাতে বেশ ঘুম হয়েছে। সকাল আটটায় ওর ঘুম ভেঙেছে আজ। শরীরে বেশ ফুরফুরে ভাব। এক পা দুই পা করে জানালার পাশে এসে বাইরে তাকাল... বিস্তারিত

বৃষ্টির ছড়া : শাহীন ভূঞা

বৃষ্টি পড়ে … টাপুর টুপুর সকাল সন্ধ্যা মধ্য দুপুর, টিনের চালে বৃষ্টি পড়ে করছে ধ্বনি ঝুমুর ঝুমুর। নদীতে জল উঠল ফুলে রাসু মাঝি ভিড়ল ক‚লে, দেখ চেয়ে ঐ কদম শাখা ভরে গেছে... বিস্তারিত

গ্রাম-শহর : দিলরুবা পুষ্প

তোমরা হলে শহরবাসী, রিমোর্ট নিয়ে খেলো; একটুখানি ছাদের উপর হাওয়ায় ডানা মেলো? আমরা হলাম সবুজগাঁয়ের সবুজলতার সাথী; মাঠের মায়ায়, গাছের ছায়ায় থাকি দিবস-রাতি। তোমরা দেখো রঙিন শহর, ঝিকিমিকি আলো; জোনাকপোকার মিটিমিটি লাগবে... বিস্তারিত

পাখির ছানা : মো. রহমত উল্লাহ

বাড়ির উঠানে বেগুন গাছ। বেগুন গাছে টুনির বাসা। শিমুল উঁকি দেয় বাসায়। দেখে দু’টি ডিম। খুব খুশি হয়। বলে, ওয়াও। কয়েকদিন পর। ডিম দেখতে যায় শিমুল। দেখে দু’টি ছানা। চিঁ চিঁ করে।... বিস্তারিত

শুভ সকাল : নূরনবী হীরা

ডুবছে সকাল আলোর মাঝে উঠছে দেখ রবি সবুজ শ্যামল দিনটা যে আজ নিপুণ একটা ছবি, ব্যস্ত ঘুমে এখন তুমি পাখিরা সব জেগে উঠলে তবে কোমল হাওয়া থাকবে গায়ে লেগে। প্রশান্তিতে কাটবে যে... বিস্তারিত

বর্ষাকাল : তুষার কুমার সাহা

সূর্যি মামা রাগ করেছে মেঘের নিচে তাই, মেঘে ভরা আকাশ আমার আলো কোথাও নাই। বিজলী দিয়ে বজ্রপাতে বলছে এবার জুড়ে, ধুলো-বালি বাতাস দিয়ে দিবো এখন উড়ে। খালি মাঠে থেকো না আর যাও... বিস্তারিত

সুজতের পড়া : আলাউদ্দিন হোসেন

সুজত মিয়া স্কুলে যায় পারে না তো পড়া পাগলা স্যারের বকা শুনে সুজত দিশেহারা। স্যারকে বলে তোর স্কুলে আজই আসা শেষ বাড়ি ফিরে কান্না করে মনটা খারাপ বেশ। পাড়ার সবাই স্কুলে যায়... বিস্তারিত

চ্যাম্পিয়ন : রুহুল আমিন রাকিব

কাড়া-কাড়ি, মারামারি বল পায়ে ছুটে, মাঠে আবার, গড়াগড়ি আঘাতের বুটে। তবু নাহি ছাড়াছাড়ি বলের ওই পিছু রে, বিপক্ষতে গোলটা হলে মাথা হয় উঁচু রে। শেষের আগে নয়তো হারা বুক বাঁধা আশায়, পতাকাটা... বিস্তারিত

Bhorerkagoj