বিডিআর বিদ্রোহ মামলা : করোনো আতঙ্কে কারামুক্তি চায় খালাস প্রাপ্তরা

রবিবার, ১২ এপ্রিল ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : করোনা ভাইরাসের কারণে ৩ হাজার জামিনযোগ্য বন্দিকে মুক্তি দিতে পারে সরকার। এ অবস্থায় কারামুক্তি চায় আলোচিত বিডিআর বিদ্রোহের হত্যা মামলা থেকে খালাস পাওয়া ২৭৮ জন সদস্য। বিস্ফোরক মামলার কারণে বছরের পর বছর কারাগারে থাকা এসব সদস্য করোনার ভয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন বলে দাবি করেছেন তাদের পরিবারের সদস্যরা। যে কোনো শর্তে এসব সদস্যের কারামুক্তি পেতে প্রধানমন্ত্রীর অনুগ্রহ কামনা করেছেন তারা।

ভুক্তভোগীদের পরিবারের পক্ষে কয়েকজন স্বজন গতকাল শনিবার বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন কার্যালয়ে এসে সাংবাদিকদের জানান, বিডিআর বিদ্রোহের ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা দায়ের করা হয়। যার একটি মামলা বিডিআরের প্রচলিত আইনে শেষ হয়েছে। বিডিআর হত্যা মামলা থেকেও খালাস পেয়েছেন ওই ২৭৮ জন সদস্য। অথচ গত আট বছরেও বিস্ফোরক মামলাটি শেষ হচ্ছে না। এ অবস্থায় জেলের মধ্যে থেকে অনেকেই বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ জীবনযাপন করছেন। এখন যদি মানবিক কারণে তাদের মুক্তির ব্যবস্থা না করা হয় তাহলে করোনার প্রভাবে তাদের বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে। যে কোনো শর্তে তাদের মুক্তির দাবি করেন স্বজনরা।

আসামি পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট আমিনুল ইসলাম জানান, হত্যা মামলা ও বিস্ফোরক মামলার সাক্ষী একই। যেহেতু হত্যা মামলা থেকে তারা মুক্তি পেয়েছেন বিস্ফোরক মামলা থেকেও তাদের মুক্তি পাওয়ার কথা। তাছাড়া বিস্ফোরক মামলার সর্বনি¤œ সাজা আসামিরা ইতোমধ্যে ভোগ করেছেন। তাই তারা এই মামলা থেকে জামিন পেতে পারেন।

দ্বিতীয় সংস্করন'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj