বিশ^ অসহায় : অর্ধলক্ষাধিক প্রাণ কেড়েও তৃষ্ণা মিটছে না করোনার

শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০

কাগজ ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে অসহায় হয়ে পড়েছে বিশ^। থামছেই না আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। ক্রমেই লম্বা হয়ে চলেছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের তালিকা। মাত্র ৩ মাসেই ২ শতাধিক দেশে এই ভাইরাস প্রাণ কাড়ল অর্ধলাখের বেশি। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১০ লাখ ছাড়িয়েছে। গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের উহানে প্রথম আক্রান্তের পর এখন পর্যন্ত মাত্র ৯৫ দিনে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ১৫ হাজার ৫৯ জনে। আর মৃতের সংখ্যা ৫৩ হাজার ১৬৭। তবে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েও বিশ^ব্যাপী এখন পর্যন্ত ২ লাখ ১২ হাজার ৩৫ জন সুস্থ হয়েছেন। সেই হিসাবে এই ভাইরাসে প্রায় প্রতি ৫ জনে একজন সুস্থ হয়েছেন। আর প্রতি ১৯ জনে একজনের মৃত্যু হয়েছে। সবমিলিয়ে আক্রান্তদের মধ্যে ৭ লাখ ৪৯ হাজার ৮৫৭ জন এখনো চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর মধ্যে ৭ লাখ ১২ হাজার ১৬১ জনের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। আর ৩৭ হাজার ৬৯৬ জনের অবস্থা গুরুতর।

চীন থেকে শুরু হলেও দেশগুলোর মধ্যে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৪৪ হাজার ৮৭৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আর মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৭০ জনের। ইতালিতে ১ লাখ ১৫ হাজার ২৪২ জন আক্রান্ত হয়েছে বিপরীতে মারা গেছে ১৩ হাজার ৯১৫ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ইতালিতে। এছাড়া স্পেনে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ১২ হাজার ৬৫ জন আক্রান্ত হয়েছে বিপরীতে ১০ হাজার ৩৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। জার্মানিতে ৮৪ হাজার ৭৯৪ জন আক্রান্ত, মৃত্যু ১ হাজার ১০৭। চীনে আক্রান্ত ৮৪ হাজার ৭৯৪, মৃত্যু ৩ হাজার ৩১৮। ফ্রান্সে আক্রান্ত ৫৯ হাজার ১০৫, মৃত্যু ৫ হাজার ৩৮৭। ইরানে আক্রান্ত ৫০ হাজার ৪৬৮, মৃত্যু ৩ হাজার ১৬০। যুক্তরাজ্যে আক্রান্ত ৩৩ হাজার ৭১৮, মৃত্যু ২ হাজার ৯২১।

সুইজারল্যান্ডে আক্রান্ত ১৮ হাজার ৮২৭, মৃত্যু ৫৩৬। তুরস্কে আক্রান্ত ১৮ হাজার ১৩৫, মৃত্যু ৩৫৬। বেলজিয়ামে আক্রান্ত ১৫ হাজার ৩৪৮, মৃত্যু ১ হাজার ১১। নেদারল্যান্ডসে আক্রান্ত ১৪ হাজার ৬৯৭, মৃত্যু ১ হাজার ৩৩৯। কানাডায় আক্রান্ত ১১ হাজার ২৮৩, মৃত্যু ১৭৩। অস্ট্রিয়াতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত ১১ হাজার ১২৯ জন ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫৮ জনে। প্রতিবেশী দেশ ভারতে এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত ২ হাজার ৫৪৩ জন আক্রান্ত হয়েছে। আর দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রাণ গেছে ৭২ জনের। বাংলাদেশে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত ৬১ জন আক্রান্ত হয়েছে বিপরীতে প্রাণ গেছে ৬ জনের।

এদিকে দেশে দেশে এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন এবং ওষুধ তৈরির প্রচেষ্টা জারি রেখেছেন শত শত বিজ্ঞানী। ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপানে ভ্যাকসিন এবং ওষুধের পরীক্ষামূলক প্রয়োগও হয়েছে। তবে চূড়ান্ত ওষুধ কিংবা ভ্যাকসিন পাওয়ার জন্য বিশ^কে অপেক্ষা করতে হবে কমপক্ষে দুই বছর। ততদিন পর্যন্ত যমদূত করোনাকে ঠেকানোর লড়াই চালিয়ে যাওয়া ছাড়া কোনো উপায় আপাতত নেই।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj