এশিয়ার বৃহত্তম বস্তি করোনা ভাইরাসের নতুন ‘হটস্পট’

শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০

কাগজ ডেস্ক : করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এশিয়ার বৃহত্তম বস্তি ভারতের মুম্বাইয়ের ধারাবিতে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ৫৬ বছরের কাপড়ের ব্যবসায়ীর দেহে ভাইরাস শনাক্ত হওয়ার দিনই মারা যান। বৃহস্পতিবার বস্তির আরেক ব্যক্তির দেহে ভাইরাসটির উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়। উভয়েরই বিদেশ ভ্রমণের কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দুর এক প্রতিবেদনে আশঙ্কা করা হয়েছে, এই বস্তিটি করোনার বিস্তারের নতুন হটস্পট হয়ে উঠতে পারে।

ব্রিহানমুম্বাই মিউনিসিপাল করপোরেশন (বিএমসি) ও মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছে, দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজে আয়োজিত তাবলিগ জামাতে অংশ নেয়া কারো সংস্পর্শে মৃত ব্যক্তি এসেছিলেন কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তার বিদেশ ভ্রমণের কোনো তথ্য নেই। পুলিশের উপকমিশনার নিয়তি থ্যাকার বলেন, মৃত ব্যক্তির ওই এলাকায় আরেকটি বাড়ি রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে তাবলিগ জামাতের কয়েকজন সেখানে অবস্থান করছিলেন। তাবলিগ জামাতের কয়েকজন সদস্য স্থানীয় মসজিদেও আছেন। আমরা খতিয়ে দেখছি।

৩৫ বছরের চিকিৎসক নিজেই বিএমসিকে ফোন দিয়ে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানিয়েছেন। একটি বেসরকারি ল্যাবে পরীক্ষার পর করোনায় আক্রান্ত বলে নিশ্চিত হন তিনি। তাকে রাহেজা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি ওকহারে যে হাসপাতালে কাজ করতেন সেখানকার সব কর্মীকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। দুই নার্সের শরীরেও করোনা পরীক্ষা পজিটিভ এসেছে। এ ছাড়া বুধবার ওরলির জিজামাতা নগরের ৫২ বছরের আরেক বাসিন্দাও আক্রান্ত হয়েছেন। সোমবার লক্ষণ দেখা দেয়ার আগ পর্যন্ত তিনি ধারাবিতে কাজ করেছেন।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj