বিসিবিকে পাশে পেল ক্রিকেটাররা

মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০

চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস বিশ^জুড়ে মহামারি আকার ধারণ করেছে। তবে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের কয়েকটি দেশ ভাইরাসটির ভয়ঙ্কর রূপ দেখছে। ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিদিনই আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা জ্যামিতিক হারে বাড়ছে। প্রাণহানির পরিমাণ প্রতিদিনই বাড়ছে। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে ফুটবল, ক্রিকেট, হকি, অ্যাথলেটিক্স সব খেলা বন্ধ। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, ইতালিয়ান সিরি ‘আ’, স্প্যানিশ লা লিগা বন্ধ, বন্ধ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, পিছিয়ে গেছে অলিম্পিক, ইউরো, কোপা আমেরিকার মতো আয়োজন। বাড়িতে রীতিমতো বন্দি জীবনযাপন করছেন খেলোয়াড়রা। নিজ নিজ বাড়িতে বসেই করোনা মোকাবিলায় কাজ করছেন তারা।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে বিশে^র সব বড় বড় সংস্থা। আর্থিক সহযোগিতা ছাড়াও কোয়ারেন্টাইনের জন্য ব্যবহার করতে তারা খুলে দিচ্ছে নিজেদের স্টেডিয়ামগুলো। ইতালি, স্পেন, ব্রাজিল থেকে ভারত পর্যন্ত সব বড় বড় স্টেডিয়ামই করোনা প্রতিরোধে ব্যবহারের অনুমতি পাচ্ছে। করোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদ থাকার জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার কিংবা হাসপাতাল তৈরিতে কলকাতার ইডেন গার্ডেন, হায়দ্রাবাদের রাজীব গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম, রিয়াল মাদ্রিদের সান্তিয়াগো বার্নাব্যু ও ব্রাজিলের ঐতিহাসিক মারাকানা স্টেডিয়াম ছেড়ে দেয়া হচ্ছে। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সরকারকে সব ধরনের সহযোগিতা করার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি)। করোনা ভাইরাসের মহামারি ঠেকাতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরির জন্য এর মধ্যে মিরপুর ক্রিকেট স্টেডিয়াম ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এই সংস্থা।

মহামারি মোকাবিলায় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নাজমুল হাসান পাপন বলেন, আমরা তো বসে আছি সরকারের সবুজ সংকেতের আশায়। সরকারের যখন যা সাহায্যের দরকার পড়বে আমরা তা করব। সরকার যা বলবে আমরা সঙ্গে সঙ্গে তা দিতে রাজি আছি। এই দুর্যোগের সময় আমরা সরকারকে দেয়ার জন্য বসে আছি। আপনারা জানেন আমাদের খেলোয়াড়রা ইতোমধ্যে ঘোষণা দিয়েছে, তাদের মাসিক বেতনের অর্ধেক টাকা তারা অসহায়দের সহযোগিতার জন্য দেবে। এ ধারাবাহিকতায় ২৭ ক্রিকেটার প্রায় ৩১ লাখ টাকা হাতে নিয়ে বসে আছে। বিসিবিও আর্থিক সহযোগিতা দেয়ার জন্য বসে আছে। শুধু আর্থিক সহযোগিতাই নয় কোয়ারেন্টাইনের জন্য আমরা স্টেডিয়ামও ছেড়ে দিতে প্রস্তুত আছি। যে কোনো সহযোগিতা লাগে তা করতে রাজি আছি।

২০১৮-১৯ মৌসুমে নারী জাতীয় ক্রিকেট লিগে খেলা ও জাতীয় ক্রিকেট লিগ সিলেকশন ক্যাম্পে থাকা ক্রিকেটারদের এককালীন ২০ হাজার টাকা করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। পুরুষ ক্রিকেটারদের তুলনায় নারী ক্রিকেটারদের অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ। যে কারণে জাতীয় দল ও জতীয় লিগে খেলা নারী ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়িয়েছে বিসিবি। গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবি নিশ্চিত করেছে বিষয়টি। নারী ক্রিকেটাররা প্রত্যেকে পাবেন ২০ হাজার টাকা। বিসিবির নারী বিভাগের চেয়ারম্যান শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল জানিয়েছেন ১শর বেশি ক্রিকেটার এ অনুদান পাবেন।

তিনি বলেন, বিসিবি সিদ্ধান্ত নিয়েছে নারী ক্রিকেটারদের এই বিপদের সময় পাশে দাঁড়ানোর। আমরা জাতীয় লিগে খেলা প্রায় ১শর বেশি নারী ক্রিকেটারদের অনুদান দিচ্ছি।

কেন্দ্রীয় চুক্তি ও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারদের চুক্তির বাইরে থাকা ক্রিকেটারদের মধ্যে যারা চলতি বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) ১২টি দলে আছে তাদের পাশে দাঁড়াল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তাদের প্রত্যেককে এককালীন অর্থ সহায়তা দেবে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থাটি। ২০১৯-২০ মৌসুমে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলা চুক্তির বাইরের ক্রিকেটারদের এককালীন ৩০ হাজার টাকা করে দিচ্ছে ক্রিকেট বোর্ড। বর্তমান বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে রয়েছে ১৭ ক্রিকেটার। এর বাইরে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে চুক্তিবদ্ধ আরো ৯১ ক্রিকেটার, যারা তিন শ্রেণিতে ২৮ হাজার ৭৫০, ২৩ হাজার ও ১৭ হাজার ২৫০ টাকা বেতন পান। কিন্তু এই চুক্তির বাইরে রয়েছেন বড়সংখ্যক ক্রিকেটার, যারা জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন মূলত ঢাকা লিগ খেলে। খেলা বন্ধ থাকা অবস্থায় চুক্তির বাইরের ক্রিকেটারদের আর্থিক সমস্যা এড়াতেই বিসিবির এই আর্থিক সহায়তার উদ্যোগ নেয়া। করোনা ভাইরাসের ঝুঁকির মধ্যেই গত ১৬ মার্চ প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়ায়। কিন্তু এক রাউন্ডের খেলা হওয়ার পর দেশে করোনা পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাওয়ায় ১৯ মার্চ টুর্নামেন্ট স্থগিত করা হয়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত খেলা বন্ধ থাকবে।

:: তাইসির আদীব নূর

গ্যালারি'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj