সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের প্রশংসনীয় উদ্যোগ

শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : সাভারের একটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের উদ্যোগ সবমহলে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে। পোশাক ও ট্যানারি শিল্প এলাকার এই জনপ্রতিনিধি দিনরাত সমানতালে নীরবে ছুটছেন মানুষের বাড়ি বাড়ি। তাদের ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়ে নিজে পৌঁছে দিচ্ছেন নিত্যপণ্য। পাশাপাশি স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করছেন। তিনি সাভার উপজেলার তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর। বৈশ্বিক দুর্যোগ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পরই তার নির্বাচনী এলাকার ৯টি ওয়ার্ডের জন্য পৃথক ৯টি টিম গঠন করেছেন। ওয়ার্ড মেম্বারদের প্রধান করে স্থানীয় যুবক ও তরুণদের সমন্বয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। তারা উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এবং মডেল থানা পুলিশের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করছে।

জানা গেছে, সমরের নেতৃত্বে টিম গত দুই সপ্তাহ ধরে ৩০ হাজার ফেস মাস্ক, কয়েক হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও টিস্যুর প্যাকেট বিতরণের পর রাস্তায় জীবাণুনাশক স্প্রের ব্যবস্থা করেন। এরপর হতদরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করেন শুকনো খাবার। করোনার ভয়াবহতায় সরকার দেশ ‘লকডাউন’ করার পর তিনি প্রতিটি মহল্লায় মাইকিং করে লোকজনকে ঘর থেকে বের না হওয়ার অনুরোধ করেন। এরপর দিনমজুর এবং হতদরিদ্রদের চিহ্নিত করে তালিকা করে চাল, ডাল, তেল, আটা, লবণসহ নিত্যপণ্য তাদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করছেন। এ ছাড়া যারা বাড়ির বাইরে বের হচ্ছেন তাদের ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলছেন, প্রয়োজনে বাজার করে ঘরে পৌঁছে দেয়া হবে। ওষুধ, কাঁচাবাজার, মুদি দোকানসহ নিত্যপণ্যের দোকানের সামনে ৩ ফুট দূরে দূরে মানুষ দাঁড়ানোর জন্য সাদা রং দিয়ে গোল বৃত্ত এঁকে দেয়ার কাজও করছে তার টিম। টিমের সদস্যরা পারসোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) ব্যবহার করে ছুটছেন দুয়ারে দুয়ারে।

এ প্রসঙ্গে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর জানান, মানুষের বিপদে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। মানবসেবা পরম ধর্ম। তিনি বলেন, শুধু নিজ এলাকা নয়, সাভারের যেখানে সাহায্য লাগবে সেখানেই তিনি কাজ করছেন, করবেন। সারাক্ষণ প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। এছাড়া সব মসজিদে বিশেষ দোয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj