ইউটিউব দেখে ডেলিভারির চেষ্টা, মৃত্যুমুখে প্রেমিকা!

শুক্রবার, ২৭ মার্চ ২০২০

কাগজ ডেস্ক : ইউটিউব ভিডিও দেখে গোপনে করতে গিয়েছিলেন ডেলিভারি। তা করতে গিয়ে বাচ্চার মৃত্যু তো হয়েছেই। সঙ্গে প্রেমিকাকেও জীবন সংকটে ফেলেছেন প্রেমিক। এই ঘটনা ঘটেছে তামিলনাড়–র একটি গ্রামে। ঘটনার জেরে অভিযুক্ত প্রেমিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, ১৯ বছরের ওই তরুণী কলেজের ছাত্রী। তার প্রেমিক ২৭ বছরের যুবক গ্যাস সিলিন্ডার ডেলিভারির কাজ করেন। তারা দুজনই থাকেন তামিলনাড়–র পনেরির কাছে একটি গ্রামে। তাদের দুজনের মধ্যে বেশ কয়েক বছর ধরেই প্রেমের সম্পর্ক ছিল। শারীরিক সম্পর্কের জেরে তরুণী গর্ভবতী হয়ে পড়েন।

৮ মাসের গর্ভবতী ওই তরুণীর সম্প্রতি প্রসব বেদনা ওঠে। সেকথা প্রেমিককে জানান তিনি। তখন প্রেমিক তাকে বাইকে করে গ্রামের কাছে কাজু খেতে নির্জন জায়গায় নিয়ে যান। সেখানে ইউটিউব ভিডিও দেখে প্রসব করানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু প্রসবের সময় সদ্যোজাত সন্তানের মাথার বদলে হাত বেরিয়ে আসতেই ঘাবড়ে যান ওই যুবক। জোর করে বাচ্চাকে বের করার চেষ্টা করেন তিনি। তা করতে গিয়েই পরিস্থিতি আরো জটিল হয়ে পড়ে। প্রবল রক্তপাত শুরু হয়। তখন বাইকে করে ১২ কিলোমিটার পথ পেরিয়ে প্রেমিকাকে পনেরি হাসপাতালে নিয়ে যান যুবক। তরুণীর ওই অবস্থা দেখে চমকে যান চিকিৎসকরা। সঙ্গে সঙ্গে তরুণীকে আরএসআরএম মেটারনিটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানেই তরুণীর অস্ত্রোপচার করা হয়।

ওই তরুণী আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। পুলিশ জানায়, ওই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ও তার বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করা হয়েছে। গর্ভাবস্থা গোপন করা নিয়ে দুজনের পরিবারের লোকদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj