তিন ক্রিকেটারের মহানুভবতা

শুক্রবার, ২৭ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : পুরো বিশ্বই এখন করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে জর্জরিত। স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। বাধ্য হয়েই স্বেচ্ছা কোয়ারেন্টাইনে যেতে হচ্ছে মানুষকে। এ সময় অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন ক্রীড়া তারকাসহ অনেকেই। এদের মধ্যে ভারতে সৌরভ গাঙ্গুলি, পাকিস্তানে শহিদ আফ্রিদি এবং বাংলাদেশে রুবেল হোসেন মহানুভবতার অনন্য নজির স্থাপন করেছেন।

চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় মাঠে নেমেছে পুরো বিশ্বই। সংক্রমণ ঠেকাতে ২১ দিন সাটডাউট ঘোষণা করা হয়েছে ভারত। এই সময়ে দেশের মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিতে ৫০ লাখ রুপি বা প্রায় ৫৫ লাখ টাকার চাল বিতরণের কথা জানিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি। বেঙ্গল ক্রিকেট এসোসিয়েশন (সিএবি) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সৌরভ গাঙ্গুলির সঙ্গে লাল বাবা রাইস এই খাদ্যদ্রব্য সরবরাহের কাজ করবে। সেই সঙ্গে পশ্চিম বঙ্গ রাজ্য সরকারকে ২৫ লাখ রুপিও প্রদান করবে সিএবি। পশ্চিম বঙ্গের অনেক গৃহহীন মানুষ সরকারি স্কুলগুলোতে আশ্রয় নিয়েছেন তাদের দিকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন গাঙ্গুলি।

এছাড়া সিএবির সভাপতি অভিষেক ডালমিয়া সরকারের জরুরি ত্রাণ ফান্ডে পাঁচ লাখ রুপি অনুদান দিচ্ছেন। এর আগে ভারতের সাবেক অধিনায়ক জানান, পশ্চিমবঙ্গ সরকার চাইলে ইডেন গার্ডেন স্টেডিয়ামের বিশাল ইনডোর ফ্যাসিলিটি ও খেলোয়াড়দের ডরমেটরিকে কোয়ারেন্টাইন হিসেবে ব্যবহার করার অনুমতি দেয়া হবে।’

ওদিকে করোনা মোকাবিলায় দেশটির দরিদ্র মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদি। নিজ দেশে দুই হাজার পরিবারের কাছে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন তিনি। পাকিস্তানে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ১ হাজার মানুষ। এর মধ্যে মারা গেছেন সাতজন।

দেশের এই পরিস্থিতিতে আফ্রিদি বেশ কিছুদিন ধরেই করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে সাবান ও খাদ্যসামগ্রী দিয়ে সহযোগিতা করে আসছেন। নিজ হাতে গড়ে তোলা ‘শহিদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন’-এর পক্ষ থেকে আফ্রিদি নিজে এবং তার কর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই সামগ্রী পৌঁছে দেন।

এছাড়া বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ক্রীড়াঙ্গনের অনেকেই এগিয়ে এসেছেন।

অসহায়দের সাহায্যে দান করেছেন লিওনেল মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, জøাতান ইব্রাহিমোভিচ, পেপ গার্দিওলা, রজার ফেদেরারসহ অনেকে। এগিয়ে এসেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও। ইতোমধ্যে ২৭ ক্রিকেটার ২৬ লাখ টাকার একটি তহবিল গঠন করেছেন। এর বাইরেও ব্যক্তিগত উদ্যোগে অসহায়দের সাহায্য করছেন অনেক ক্রিকেটার। যাদের মধ্যে অন্যতম পেসার রুবেল হোসেন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বিভিন্ন জায়গা লকডাউন করা হচ্ছে। ফলে এই পরিস্থিতিতে অসহায় হয়ে পড়ছেন খেটে খাওয়া মানুষগুলো। তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন এই পেসার।

জাতীয় ক্রিকেট দলের অভিজ্ঞ পেসার ২৫ মার্চ রাতে নিজের ফেসবুক পেজে কিছু ছবি পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে, মানুষের মাঝে প্যাকেট বিতরণ করছেন রুবেল। বুঝাই যাচ্ছে জীবিকা নির্বাহের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র আছে প্যাকেটে।

ক্যাপশনে রুবেল লিখেছেন, ‘এখন সময় আতঙ্কিত হবার নয়, এখন সময় নিজেকে সুরক্ষিত রেখে আশপাশের মানুষ জনকে সাহায্য করা। আসুন না, এই দুর্যোগে আমরা যে যেভাবে পারি অসহায় মানুষদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেই।’

করোনা ভাইরাস নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিয়মিতই বার্তা দিচ্ছেন রুবেল। এর আগে লোভী ব্যবসায়ীদের সমালোচনা করে সবাইকে সচেতন হওয়ার জন্য বেশ কয়েকবার আহ্বান জানিয়েছিলেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু প্রথম বাংলাদেশিকে নিয়ে পোস্ট দিয়েছিলেন তিনি।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৩৯ জন। মারা গেছে পাঁচজন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন সাতজন। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে করোনা ভাইরাস বেশি ছড়িয়েছে পাকিস্তানে।

গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৯৩ জন। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩০ জন।

আর এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৮ জন। পুরো ভারতে এখন পর্যন্ত ৬০৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ১৪ জন। এদিকে পুরো বিশ্বে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৩৯ হাজার ৬৫৪ জন। মৃত্যুর সংখ্যা ১৯ হাজার ৭৪৪।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj