রাস্তা আটকে ভবন নির্মাণ : কালকিনিতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার অবরুদ্ধ

শুক্রবার, ২৭ মার্চ ২০২০

জাহাঙ্গীর আলম, মাদারীপুর থেকে : জেলার কালকিনিতে সিরাজুল করিম তালুকদার (চুন্নু) নামে এক মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির পথ আটকে কমিউনিটি ক্লিনিকের ভবন নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে ওই মুক্তিযোদ্ধার পরিবার বাড়ি থেকে বের হতে না পেরে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। গত বুধবার সকালে মুক্তিযোদ্ধার পরিবার এ তথ্য নিশ্চিত করে।

অভিযোগ ও সরেজমিন দেখা যায়, সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী কোনো কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ করতে হলে সরকারিভাবে জমি ক্রয় করে সেখানে ভবন করার কথা রয়েছে। কিন্তু এ নিয়মকে উপেক্ষা করে উপজেলার রমজানপুর এলাকার দক্ষিণ রমজানপুর গ্রামের অসহায় মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল করিম তালুকদারের বাড়ির সামনের রাস্তার পথ আটকে এবং সরকারি খাল দখল করে কমিউনিটি ক্লিনিক ভবনের নির্মাণকাজ চলছে। তবে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে একই এলাকার ইউপি সদস্য দুলাল হোসেন ও আলীনূর তালুকদারের নির্দেশে রাস্তা আটকে এ ভবনের কাজ করা হচ্ছে বলে অভিযোগে জানা যায়। ভবন নির্মাণের কাজে বাধা দিলে মুক্তিযোদ্ধাকে উল্টো হুমকি দিচ্ছেন স্থানীয় নির্দেশদাতারা। তবে ভবন নির্মাণের বিষয় মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল করিম তালুকদার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানা বরাবর একাধিকবার অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার পাননি বলে তিনি জানান।

ভুক্তভোগী মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল করিম তালুকদার বলেন, আমাদের এলাকায় একটি কমিউনিটি ক্লিনিক হচ্ছে সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। কিন্তু আমার বাড়ির রাস্তা আটকে ভবন করছে এটা দুঃখজনক। তবে ঠিকাদারকে ভুল বুঝিয়ে ইউপি সদস্য দুলাল হোসেন ও আলীনূর তালুকদার মিলে আমি যাতে বাড়ি থেকে বের না হতে পারি তাই তারা যড়যন্ত্রের মাধ্যমে এ কাজটা করেছে। আর কমিউনিটি ক্লিনিকের জন্য আশপাশে অনেক জায়গা রয়েছে। কেন তারা সরকারি খাল দখল করে আমার বাড়ির রাস্তা বন্ধ করে ভবন নির্মাণকাজ করছে। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চাই। তবে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য দুলাল হোসেন বিষয়টি অস্বীকার করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিক কোনো সরকারি জমিতে করা যাবে না। আমি দলিল দিয়েছি। দলিলের বাইরে ভবন করলে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj