কক্সবাজারে ব্যাংক থেকে টাকা তোলার হিড়িক

বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ ২০২০

কক্সবাজার প্রতিনিধি : করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে আজ ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়। সে হিসেবে গতকাল বুধবার ছিল ব্যাংক খোলা অর্থাৎ শেষ অফিস। ফলে কক্সবাজার শহরসহ জেলার বিভিন্ন ব্যাংকের শাখা থেকে টাকা তোলার হিড়িক পড়ে যায়।

সকাল থেকে কক্সবাজারের বিভিন্ন ব্যাংকে দেখা যায়, গ্রাহকদের উপচে পড়া ভিড়। কোথাও কোথাও গ্রাহকদের লাইন ব্যাংকের বাইরেও চলে এসেছে। যদিও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া গ্রাহকদের ব্যাংকের শাখায় না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিল স্থানীয় প্রশাসন।

ব্যাংকগুলো মোবাইল ফোনের খুদে বার্তা দিয়ে ব্যাংকে না গিয়ে টাকা উত্তোলনের জন্য এটিএম বুথ ব্যবহার বা অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারের পরামর্শ দেয়। পাশাপাশি ছুটির সময়ে দেশের সব এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা রাখার পাশাপাশি বুথগুলোকে জীবাণুমুক্ত রাখার নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এরপরও ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে ভিড় জমিয়েছেন গ্রাহকরা।

কক্সবাজারের বিভিন্ন ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপকরা জানান, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই ব্যাংকগুলোতে গ্রাহকদের টাকা তোলার হার বেড়েছে।

তবে গত কয়েকদিনের তুলনায় বুধবার গ্রাহকদের টাকা তোলার চাপ বেশি ছিল। কোথাও কোথাও গ্রাহকদের লাইন ব্যাংকের বাইরেও চলে যায়। তারা আরো জানান, গ্রাহকের সংখ্যা বেশি হলেও তারা ২০ হাজার থেকে ১ লাখের মধ্যেই টাকা উত্তোলন করছেন। খুব স্বল্প সংখ্যক লোক একসঙ্গে কয়েক লাখ টাকা তুলেছেন।

উল্লেখ্য, আগামী ২৯ মার্চ থেকে ৩ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করায় ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের ছুটি এবং সাপ্তাহিক ছুটি মিলিয়ে টানা ১০ দিন ছুটি পাচ্ছেন সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবীরা। তবে সাধারণ ছুটিতে ব্যাংক খোলা রাখার সিদ্ধান্ত রয়েছে। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সব ব্যাংকের লেনদেন কার্যক্রম চলবে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj