চন্দ্রগঞ্জে মিরন মেম্বার হত্যায় সিএনজি মিলন গ্রেপ্তার

বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ ২০২০

চন্দ্রগঞ্জ (লক্ষীপুর) প্রতিনিধি : লক্ষীপুরে ইউপি সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা খোরশেদ আলম মিরন হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মিলন প্রকাশ ওরফে সিএনজি মিলনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার রাতে চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন উত্তর দত্তপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বশিকপুরের বৌদ্ধবাজার মোড় সংলগ্ন বাগান থেকে একটি একনলা বন্দুক ও গুলি উদ্ধার করে পুলিশ। সিএনজি মিলন (২৮) বশিকপুর মোল্লা বাড়ির আব্দুল কুদ্দুছের ছেলে। গতকাল তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

দত্তপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (পরিদর্শক) হাসান জাহাঙ্গীর জানান, খোরশেদ আলম মিরন মেম্বার হত্যা মামলার অন্যতম মাস্টার মাইন্ড ছিল সিএনজি মিলন। তার সিএনজিতে করেই হত্যাকাণ্ডের ঘটনাস্থলে পৌঁছায় সন্ত্রাসীরা। এরপর এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে মিরন মেম্বারকে হত্যা করা হয়। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সিএনজি মিলনকে মঙ্গলবার রাতে উত্তর দত্তপাড়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার এবং তার দেখানো মতে বশিকপুর বৌদ্ধবাজার এলাকা থেকে বন্দুক ও গুলি উদ্ধার করা হয়।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি মো. জসীম উদ্দীন অস্ত্র ও গুলিসহ সিএনজি মিলনকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর দত্তপাড়া ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি খোরশেদ আলম মিরন আলাদাদপুর গ্রামে নিজ বাড়ির সামনে একটি চায়ের দোকানে বসে ছিলেন। এ সময় অস্ত্রধারী একদল সন্ত্রাসী সিএনজি অটোরিকশাযোগে এসে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে মিরন মেম্বারকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj