মৃত্যু ৭০০ ছাড়িয়েছে : করোনার নতুন কেন্দ্র যুক্তরাষ্ট্র!

বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ ২০২০

কাগজ ডেস্ক : করোনায় প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে দুনিয়াজুড়ে মৃতের সংখ্যা ১৮ হাজার ছাড়িয়েছে এবং আক্রান্ত হয়েছে চার লক্ষাধিক মানুষ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, যুক্তরাষ্ট্র নভেল করোনা ভাইরাস মহামারি ছড়ানোর নতুন বিশ্বকেন্দ্র হতে পারে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৫৪ হাজার ৯১৬ জন। এর মধ্যে ৭৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা গ্রহণের পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৭৯ জন।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ড ওমিটার জানিয়েছে, বিশ্বের ১৯৬টি দেশ ও অঞ্চলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি চীনে মোট ৮১ হাজার ১৭১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২৭৭ জনের। তবে মৃতের হিসাবে চীনকেও ছাড়িয়ে গেছে ইতালি। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ৬ হাজার ৮২০। আর আক্রান্ত হয়েছেন ৬৯ হাজার ১৭৬ জন। মৃতের হিসাবে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে স্পেন। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯ হাজার ৮৮৫। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৮০৮ জনের। স্পেনের পর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইরানে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ হাজার ৮১১ জন। এর মধ্যে ১ হাজার ৯৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত হয়েছে ৫২ হাজার ৯২১ জন। এর মধ্যে ৬৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩৬ জন। এরমধ্যে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। পাকিস্তানে আক্রান্ত হয়েছে ৯৭২ জন। ?এর মধ্যে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের জৈব পদার্থবিদ ও নোবেলজয়ী মাইকেল লেভিট ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন, নতুন করোনা ভাইরাস শিগগিরই নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে লেভিট বলেছেন, এখন সবার আগে আমাদের ভীতি দূর করতে হবে। তাহলে সব ঠিকঠাক হয়ে যাবে।

মার্কিন সম্প্রচার মাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীদের ২০ শতাংশের বয়স ২০ থেকে ৪৪ বছরের মধ্যে। প্রায় আড়াই হাজার আক্রান্তকে নিয়ে দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের এক গবেষণায় উঠে এসেছে এমন তথ্য। বয়সভিত্তিক ওই গবেষণা প্রতিবেদন অনুযায়ী, বয়স্কদের তুলনায় তরুণরা অপেক্ষাকৃত ভালো অবস্থায় থাকলেও তারাও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্ত নয়। যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে ৮৫ বছর বা তদূর্ধ্ব বয়সীদের মৃত্যুহার সবচেয়ে বেশি।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, যুক্তরাষ্ট্র নভেল করোনা ভাইরাস মহামারি ছড়ানোর নতুন বিশ্বকেন্দ্র হতে পারে। তবে ইস্টারের আগেই যুক্তরাষ্ট্র করোনা ভাইরাসমুক্ত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, যদিও ভাইরাসটি ‘বুলেট ট্রেনের’ চেয়ে দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে বলে সতর্ক করেছেন নিউইয়র্কের গভর্নর।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বিগত দুই দিনের তুলনায় বেড়েছে। তবে নতুন রোগী বৃদ্ধির হার কমেছে। গত মঙ্গলবার ৭৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৮২০ জনে। দেশটির বেসামরিক সুরক্ষা সংস্থার প্রধান জানিয়েছেন, সেখানে করোনা ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা সরকারি তথ্যের চেয়ে সম্ভবত ১০ গুণ বেশি হতে পারে।

এদিকে গতকাল জাতির উদ্দেশে ভাষণে করোনা ভাইরাসের কারণে বিদ্যমান লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন। পূর্বঘোষণা অনুযায়ী, গত ১৮ মার্চ শুরু হওয়া লকডাউন ৩১ মার্চ শেষ হওয়ার কথা ছিল। তবে বুধবারের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, বিদ্যমান লকডাউন আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj