হাইকোর্টের অভিমত : দেশে লকডাউন হওয়া উচিত

বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশে লকডাউন হওয়া উচিত বলে মতামত দিয়েছেন হাইকোর্ট। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সরকারের পক্ষ থেকে যে নির্দেশনা আসবে তা মানতে এবং এর ওপর আস্থা রাখতেও বলেছেন আদালত।

সারাদেশে করোনাভাইরাস পরীক্ষার ল্যাব স্থাপনের নির্দেশনা চেয়ে এক সম্পূরক আবেদনের শুনানি শেষে গতকাল বুধবার বিচারপতি আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের বেঞ্চ এ পর্যবেক্ষণ দেন। এ পর্যবেক্ষণের পর রিটটি নিষ্পত্তি করে দেন আদালত। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার হুমায়ন কবির পল্লব।

আদালত বলেন, করোনা মোকাবিলায় দলমতনির্বিশেষে এক হয়ে কাজ করতে হবে। তাইওয়ান চীনের পাশের দেশ হওয়া সত্ত্বেও তারা কীভাবে করোনা মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়েছে সেই মডেলটি অনুসরণ করতে হবে। করোনাভাইরাস একটি বৈশ্বিক সমস্যা। যেহেতু এখনো প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি, সেহেতু এই পরিস্থিতিতে দেশে লকডাউন হওয়া উচিত। এর আগে করোনা পরীক্ষার জন্য বিশেষ ল্যাব স্থাপনের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিটটি দায়ের করেন আইনজীবী হুমায়ন কবির পল্লব। তিনি বলেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দলমতনির্বিশেষে এক হয়ে কাজ করতে হবে। চীনের পাশের দেশ হওয়া সত্ত্বেও তাইওয়ান কীভাবে করোনা মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়েছে, আদালত সেই মডেলটি অনুসরণ করতে বলেছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশে লকডাউন হওয়া উচিত বলে মনে করেন আদালত।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে এ পর্যন্ত ৩৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আর দেশে এ ভাইরাসে প্রাণ গেছে ৫ জনের। আক্রান্তদের মধ্যে তিনজন চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মী বলে জানিয়েছে আইইডিসিআর।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj