পররাষ্ট্রমন্ত্রী : বাংলাদেশের কাছে চিকিৎসা উপকরণ চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

বুধবার, ২৫ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাদের দেশে চিকিৎসা উপকরণ পাঠানোর জন্য বাংলাদেশের কাছে অনুরোধ করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক ভিডিওবার্তায় তিনি একথা বলেন।

এ কে আবদুল মোমেন বলেন, বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস মহামারি আকার নিয়েছে। প্রত্যেক দেশেই করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত চিকিৎসা উপকরণের চাহিদা খুব বেড়েছে। কয়েকটি দেশ তাদের দেশে এই চিকিৎসা উপকরণ দেয়ার জন্য আমাদের অনুরোধ করেছে। এমনকি স্বয়ং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও তাদের দেশে পাঠানোর জন্য আমাদের কাছে অনুরোধ করেছে। আমাদের ব্যবসায়িক মহল তাদের অনুরোধ বিবেচনা করছে। সৌভাগ্যের বিষয় এই যে, আমাদের দেশে অনেক ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এগুলো তৈরির প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। তিনি বলেন, আমাদের স্বাধীনতার দিন অর্থাৎ ২৬ মার্চ চীন সরকার তাদের প্রতিশ্রæত দশ হাজার টেস্টিং কিট এবং দশ হাজার প্রটেকটিভ গাউন এবং এক হাজার ইনফ্রারেড থার্মোমিটার আমাদের গিফটের সঙ্গে হস্তান্তর করবে এবং দুই দিন পর আরো ১৫ হাজার এন ৯৫ মাস্ক হস্তান্তর করবে।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস পরীক্ষায় বাংলাদেশে পর্যাপ্ত সংখ্যক ‘টেস্ট কিট’ নেই। স¤প্রতি সরকারের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ চীনের কাছে টেস্ট কিটসহ চিকিৎসা সরঞ্জাম সহায়তা চায়। পরদিন চীন এ বিষয়ে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে। চীন করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ইতালিসহ অন্যান্য দেশকেও সহায়তা করছে। এরই অংশ হিসেবে আগামী ২৬ মার্চ টেস্ট কিট ও পিপিই চীন থেকে ঢাকায় আসছে।

দ্বিতীয় সংস্করন'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj