করোনার করালগ্রাস : ব্যবসায়িক ক্ষতির আতঙ্ক বিনোদন দুনিয়ায়

শনিবার, ২১ মার্চ ২০২০

অডিটোরিয়াম, সিনেমা হল, জিম বন্ধ। শুটিংও বাতিল করা হয়েছে নানা ছবির। এবার প্রশ্ন, সিরিয়াল পাড়ায় কী হবে? কার্যত ঘরবন্দি হওয়ারই অবস্থা সেলিব্রেটিদের। অনেক সিনেমারই শুটিং বাতিল হয়েছে। পাশাপাশি ইভেন্ট, অনুষ্ঠানও পিছিয়ে যাচ্ছে। তার সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত সোমবার নির্দেশ দেন, রাজ্যের সিনেমা হলগুলো যেন আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়। ফলে করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের সঙ্গে ব্যবসায়িক ক্ষতির আতঙ্কও গ্রাস করেছে বিনোদন দুনিয়াকে। এরকম পরিস্থিতিতে টেলিভিশন ও ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়তে চলেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। করোনা ভাইরাসের আতঙ্কই এর জন্য দায়ী। কেরলকে অনুসরণ করে জম্মু কাশ্মির, দিল্লি, কর্নাটক ও মুম্বাইয়ে শুক্রবার থেকে বন্ধ শপিং মল, জিম ও সিনেমা হলও। হু ইতোমধ্যেই এই রোগকে মহামারি ঘোষণা করেছে। ঠিক কি পরিমাণ অর্থ ঝুঁকিতে রয়েছে তা সঠিকভাবে নির্ধারণ করা কঠিন তবে একমাত্র দিল্লির সিনেমা হলগুলোতে এক টাকাও আয় না করে আগামী ১০ দিনে ২ থেকে ১০ লাখ টাকা লোকসান হতে পারে বলে জানিয়েছেন চলচ্চিত্র পরিবেশক জোগিন্দর মহাজন, যিনি দিল্লি, উত্তর প্রদেশ এবং উত্তরখণ্ডে মোশন পিকচারস এসোসিয়েশনের জেনারেল সেক্রেটারি। তিনি বলেন, দিল্লিতে ১৫০টি সিনেমা হল রয়েছে, সরকারের নির্দেশে ৩১ মার্চ পর্যন্ত তা বন্ধ থাকবে। সবাই লোকসানের মুখ দেখছে কারণ যদি সিনেমা হল নাও চলে তাও আপনাকে বেতন ও ইলেকট্রিক বিল দিতে হবে। অতীতে বিভিন্ন বন্ধের কারণে সিনেমা হলগুলো বন্ধ রাখা হতো। ১৯৮৪ সালে সাম্প্রদায়িক হিংসার কারণে সিনেমা হলগুলো বন্ধ ছিল তিন-চারদিনের জন্য। ক্ষতির অনুমান করা এখন কঠিন তবে অনেক অপ্রত্যক্ষ ব্যয়ও রয়েছে। ট্রেড পণ্ডিতদের মতে, বড় বাজেটের বলিউড ছবিগুলো ১৫২০ কোটি খরচ করে ছবির প্রচারে এবং মাঝারি বাজেটের ছবি প্রচারে ব্যয় করে ৫ কোটির আশপাশে। অক্ষয় কুমার অভিনীত ‘সূর্যবংশী’, সম্প্রতি এই ছবির ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের জেরে এই ছবির মুক্তির দিন পিছিয়ে যায়। এই আতঙ্কের মধ্যেই মুক্তি পেয়েছে ইরফান খান, কারিনা কাপুর, রাধিকা মদন অভিনীত ‘আংরেজি মিডিয়াম’। কিন্তু সব সিনেমা হল বন্ধ থাকায় চলচ্চিত্র নির্মাতারা ছবিটি ফের মুক্তি করানোর কথা চিন্তাভাবনা করছেন। ইতিমধ্যে সিনেমা হলে দর্শকদের সংখ্যা গভীরভাবে হ্রাস পেয়েছে এবং যে ছবিটি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তা হলো টাইগার শ্রফের বাঘি-৩। মুম্বাইয়ের চলচ্চিত্র পরিবেশক রাজেশ থাদানি বলেন, ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ ব্যবসার ক্ষতি হয়েছে বা তারও বেশি। দিল্লি, কেরল এবং জম্মু-কাশ্মিরেও সিনেমা হলগুলো বন্ধ পড়ে রয়েছে। বড় বড় সিনেমাগুলোর মুক্তি পিছিয়ে গিয়েছে। বাঘি-৩ এর লোকসান হয়েছে ১০ শতাংশ। তবে শুধু সিনেমা হলই নয়, বেশ কিছু রাজ্যে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে স্কুল-কলেজও। ফলে পড়–য়াদের লেখাপড়াতেও বেশ সমস্যা হচ্ছে। সরকারের থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে যে জনবহুল এলাকাগুলো এড়িয়ে চলাই ভালো। যে কারণে শপিং মল, জিম, সিনেমা হলগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। মানুষ যাতে সুরক্ষিত থাকে তার জন্যই এ ধরনের বন্দোবস্ত। অনেক সেলেবই এখন জিমে গিয়ে শরীরচর্চা বন্ধ রাখছেন। নুসরত জাহান বললেন, আজকেও গিয়েছিলাম কিন্তু আর যাব না। অন্যান্য সোশ্যাল গ্যাদারিংও এড়িয়ে চলছি। একই কথা বলছেন তনুশ্রী চক্রবর্তী, আমিও যাব না বলেই ঠিক করেছি। হয়তো এর পরে জিমগুলোই বন্ধ থাকবে। নানা কারণবশত দিন কয়েক জিমে যাননি ফিটনেস সচেতন পাওলি দাম। জানালেন, বাড়িতেই শরীরচর্চা করবেন তিনি। তবে ওয়েব সিরিজ ‘কালী টু’র ডাবিং চালিয়ে যাচ্ছেন অভিনেত্রী। অঙ্কুশের বাড়িতে জিম সেটআপ রয়েছে। তিনিও তাই বাড়িতেই এক্সারসাইজ করছেন আপাতত। কমপ্লেক্সের জিমে নিয়মিত যান রাজ চক্রবর্তী-শুভশ্রী। দুজনেই ঠিক করেছেন, আগামী ক’দিন জিম থেকে ছুটি নেবেন।

আসন্ন ইভেন্ট, ব্র্যান্ড প্রোমোশন এবং মাচাও বাতিল হয়েছে এর মধ্যে। তবে রবিবার রাত পর্যন্ত রাজ্যে বেশ কিছু অনুষ্ঠান হয়েছে। অর্পিতা চট্টোপাধ্যায় যেমন রবিবার রাতে তিনটি মাচায় পারফর্ম করেছেন। বলছিলেন, এই শোগুলো একদম কনফার্মড ছিল। উদ্যোক্তারা বাতিল করলে বা পুলিশ অনুমতি না দিলে এক রকম হতো। তবে এর পরে আর অনুষ্ঠান নেই। স্কুল খোলা থাকা সত্ত্বেও লন্ডন থেকে ছেলে মিশুককে আনিয়েছেন তিনি। ওখানের পরিস্থিতি খারাপ। তাই ছেলেকে রাখার ঝুঁকি নিতে পারলাম না। আমার শুটিং বাতিল হয়েছে। এখন মা-ছেলে বাড়িতেই থাকব, বললেন অর্পিতা।

মার্চ মাসে ইয়ার এন্ডিংয়ের পরে এপ্রিল থেকেই ইভেন্ট, ব্র্যান্ড প্রোমোশনের ভালো সময়। কিন্তু সে সবও পিছিয়ে যাচ্ছে। শপিং মল খাঁ খাঁ করছে। সেখানে ব্র্যান্ড লঞ্চ করারও মানে হয় না এই মুহূর্তে। অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার, নুসরত জাহান, পাওলি দাম জানালেন, তাদের বেশ কিছু ব্র্যান্ড ইভেন্ট বাতিল হয়েছে। ১৬ মার্চ ছিল কবীর সুমনের একক অনুষ্ঠান। করোনার কারণে বাতিল হয়েছে সেটিও। হ মেলা ডেস্ক

মেলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj