‘মহামূল্যবান’ ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের শেয়ার!

সোমবার, ১৬ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : ভয়াবহ পতনের কবলে পড়ে গতকাল রবিবার একের পর এক প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দামে বড় পতন হলেও সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম ইন্টারন্যাশনাল লিজিং।

পতনের বাজারেও কোম্পানিটির শেয়ার যেন ‘মহামূল্যবান’ হয়ে দাঁড়িয়েছে। যে কারণে যাদের কাছে কোম্পানির শেয়ার আছে তারা কেউ বিক্রি করতে চাচ্ছেন না। ফলে হু হু করে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারের দাম বেড়ে সর্বোচ্চ পর্যায়ে চলে গেছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, এ দিন কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেনের শুরুর দাম ছিল ৪ টাকা ১০ পয়সা দরে। এর থেকে ৫০ পয়সা কমিয়ে ৩ টাকা ৬০ পয়সা দরে প্রথমে ৫ লাখ ৮৭ হাজার শেয়ার ক্রয়ের আবেদন পড়ে। তবে কেউ এই দামে শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি।

এরপর ৩ টাকা ৭০ পয়সা করে ৮ লাখ ৬১ হাজার শেয়ার ক্রয়ের আবেদন আসে। এ দামেও কেউ শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি। এরপর কয়েক দফা দাম বেড়ে ৪ টাকা ৪০ পয়সা দামে ৩ লাখ ৪০ হাজার ২৩২টি শেয়ার ক্রয়ের আবেদন পড়ে। এই দামেও কোনো বিনিয়োগকারী তাদের হাতে থাকা শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি। ফলে কোম্পানিটির শেয়ারের বিক্রেতা শূন্যই থেকে গেছে।

২২১ কোটি ৮১ লাখ টাকা পরিশোধিত মূলধনের কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা ২২ কোটি ১৮ লাখ ১০ হাজার ২৪৭টি। এর মধ্যে ৪১ দশমিক ৫৪ শতাংশ আছে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে। বাকি শেয়ারের মধ্যে ৩১ দশমিক ৬১ শতাংশ সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে আছে। আর ২৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী এবং দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ বিদেশিদের কাছে আছে।

মন্দাবাজারে হঠাৎ করে শেয়ারের এমন দাম বাড়লেও ইন্টারন্যাশনাল লিজিং আর্থিক দুরবস্থার মধ্যে রয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের এক পরিদর্শনে উঠে এসেছে, প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদার ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে ঋণের নামে ১ হাজার ৫৯৫ কোটি টাকা বের করে নেন। তিনি এনআরবি গ্লোবাল ও রিলায়েন্স ফাইন্যান্সের সাবেক এমডি।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj