হিলি স্থলবন্দর : ৮ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি

রবিবার, ১৫ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : গত মাসে ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে। এর পর থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকরা দেশটি থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু করতে উদ্যোগ নেন। প্রাথমিকভাবে স্থানীয় আমদানিকারকদের পক্ষ থেকে ২৫ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি (ইমপোর্ট পারমিট বা আইপি) চেয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ের উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্রে আবেদন করা হয়। এ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে আপাতত আট হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির আইপি ইস্যু করা হয়েছে। আগামীকাল থেকে আমদানি করা এসব পেঁয়াজ দেশে আসতে শুরু করবে বলে আশা করা হচ্ছে।হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারকরা জানান, পাঁচ মাস ধরে পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে রেখেছিল ভারত। ফলে দেশটি থেকে পণ্যটির আমদানি পুরোপুরি বন্ধ ছিল। অবশেষে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি বিদ্যমান এ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছে। আমদানি প্রক্রিয়া নতুন করে শুরু করার রাস্তা খুলেছে। মার্চের শুরুতে হিলির কয়েকজন আমদানিকারক ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু করতে কৃষি মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেন। এ সময় তারা ২৫ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি করতে আইপি চান।

জানা গেছে, হিলি স্থলবন্দরের ৫ আমদানিকারক ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু করতে প্রয়োজনীয় আইপি পেয়েছেন। তারা সব মিলিয়ে ৮ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি করতে পারবেন। সবাই ফেব্রুয়ারিতেই আইপি চেয়ে উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্রে আবেদন করেছিলেন। তবে মার্চে যেসব আমদানিকারক আবেদন করেছেন তাদের আইপি ইস্যু করা হয়নি।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj