গাড়ির রং

রবিবার, ১৫ মার্চ ২০২০

গাড়িকে পরিষ্কার এবং চকচকে দেখাতে সাদার কোনো জুড়ি নেই। এ ছাড়া অনেক সুবিধাও প্রদান করে। এটা গাঢ় রংয়ের মতো তাপ শোষণ করে না এবং জ্বালানি খরচ সংরক্ষণ করতে সাহায্য করে। এ ছাড়াও আধুনিক যুগে বধূবরণে পালকির পরিবর্তে জায়গা করে নিয়েছে সাদা রংয়ের গাড়ি।

গাড়ি কিনবেন বলে ভাবছেন? গাড়িটি কী রংয়ের হবে তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন? চলুন এক ঝলকে দেখা যাক সারা বিশ্বে কোন রংটি মানুষের পছন্দের তালিকার শীর্ষ স্থানে আছে। বর্তমান পৃথিবী বর্ণিল। তারপরও অধিকাংশ মানুষের কাছে সাদা এবং কালো রংই সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য পায় যখন কাক্সিক্ষত পণ্যটি হয় গাড়ি।

পর পর ছয় বছর নতুন গাড়ির জন্য সাদাই হলো সবচেয়ে জনপ্রিয় রং গ্লোবাল অটোমোটিভ জনপ্রিয় রং। প্রতিবেদন অনুযায়ী কালো, সিলভার, গ্রে এবং লাল শীর্ষ পাঁচের মধ্যে। ৩৫% এর ওপরে ভোট পেয়ে এ বছরও শীর্ষে রয়েছে সাদার স্থান। প্রয়োজনীয়তা বৃদ্ধির জন্যও সাদার কুখ্যাতি রয়েছে। ২০১১ সালে বিজয়ের মালাটা কিন্তু সিলভারের গলাতেই ছিল। তখন থেকেই যে কোনো ধরনের গাড়ির রং হিসেবে সব দেশে সাদার জনপ্রিয়তা অব্যাহত রয়েছিল। আর সিলভার দিনে দিনে এর স্থান হারিয়েছে। পৃথিবীর অন্যান্য অংশের চেয়ে এশিয়া (৪১%) এবং আফ্রিকার (৪৬%) ক্রেতাদের কাছে সাদাই সবচেয়ে বেশি গ্রহণযোগ্য। এ ছাড়াও ১৯৫৩ সালে পাঁচটি রংয়ের মধ্যে সবার প্রথমে ছিল কিন্তু তা শুধুমাত্র তিন বছরের জন্য। দিনে দিনে সাদা বিবর্তিত এবং পরিবর্তিত রং হিসেবে বিভিন্ন রকমের সাদা পাথরের রং, ভ্যানিলা, উজ্জ্বল সাদা এবং মুক্তা সাদার রূপ পেয়েছে।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ

নারীর প্রিয় বাহন স্কুটিগত এক দশকে প্রজন্মের বাহন হিসেবে মোটর সাইকেলের জনপ্রিয়তা বেড়েছে কয়েক গুণ। চলতি পথে কম সময়ে গন্তব্যে পৌঁছানো ও গতিময়তার সম্মিলনে প্রিয় বাহন হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে মোটর সাইকেল। বর্তমানে কোথাও যেতে হলে পোহাতে হয় যানজটের ঝক্কি, তার ওপর সময়মতো গাড়ি পাওয়া যায় না, আর পেলেও প্রায়ই গুনতে হয় ডাবল ভাড়া। ফলে অফিস কিংবা গন্তব্যে যেতে প্রায়ই দেরি হয়ে যায়, পোহাতে হয় সীমাহীন দুর্ভোগ। এ সব ঝামেলা থেকে মুক্তি পেতে নিজের একটি বাহন এখন বেশ দরকারি। তাই পুরুষের পাশাপাশি আধুনিক অনেক নারীরই বাহন হিসেবে বেছে নিচ্ছেন পছন্দসই একটি মোটর সাইকেল। এ ক্ষেত্রে স্কুটিই এখন অনেক নারীর প্রথম পছন্দ-

Bhorerkagoj