ভবিষ্যতের দুইটি গাড়ি

রবিবার, ১৫ মার্চ ২০২০

স্যাটেলাইট নিয়ন্ত্রিত গিয়ারবক্স

‘রোলস রয়েস রেইথ’ মডেলের গাড়িতে রয়েছে স্যাটেলাইট এইডেড ট্রান্সমিশন (এসএটি) সুবিধা। এ প্রযুক্তির সুবিধা হলো, উইন্ডশিল্ডের ভেতর দিয়ে চালক পথের যে পর্যন্ত দেখতে পান, তা ছাড়িয়ে সামনের অদেখা পথটুকুও বিশ্লেষণ করবে ‘এসএটি’ প্রযুক্তি। ‘জিপিএস ডেটা’ ব্যবহার করে ভ্রমণপথে যে কোনো সময়ে গাড়ির গিয়ার ঠিক রাখাই এ প্রযুক্তির কাজ। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, সামনের কয়েক বছরে এ প্রযুক্তির আরো চমকপ্রদ সব ব্যবহার দেখা যাবে।

যে গাড়ি আকাশে উড়বে

আকাশে গাড়ি ওড়ার কথা আগে মানুষ বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীতেই পড়ত। কিন্তু ২০১৯ সালের এই নভেম্বরে এসে প্রযুক্তিবিদরা বলছেন, আর মাত্র কয়েক বছর পরেই এমন গাড়ির দেখা মিলবে। পোর্শে, ডেইমলার এবং টয়োটার মতো কোম্পানি প্রযুক্তি অর্থাৎ ইলেকট্রিক ভার্টিক্যাল টেকঅফ অ্যান্ড ল্যান্ডিং এয়ারক্রাফট গাড়ি তৈরির চেষ্টায় আছে। দুই বছর আগে অ্যারো মবিল নামে ¯েøাভাকিয়ার একটি কোম্পানি উড়ন্ত গাড়ির সঙ্গে বিশ্বকে পরিচয় করায়। কিন্তু সেটি সাধারণ ক্রেতার ক্রয়ক্ষমতার বাইরে। ব্যবহার করা অত সহজও নয়। পোর্শে এ ধরনের গাড়ি সহজলভ্য করার চেষ্টায় আছে। অ্যারো মবিলের উড়ুক্কু গাড়ি কেনার পর রাস্তায় চালানো যায়। তবে কিছু শর্ত থাকছে। ওই গাড়িতে হালকা ফ্রেমে পাখা থাকবে যা ভাঁজ করা যাবে। এতে একটি হাইব্রিড ইঞ্জিন আছে। এ গাড়ি চালানোর জন্য চালকের পাশাপাশি পাইলটের লাইসেন্সও লাগবে।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj