প্রতিষ্ঠানে কর্মীদের অনাস্থা

রবিবার, ১৫ মার্চ ২০২০

অঙ্গীকারের অভাব

অঙ্গীকারের অভাব যেখানে, সেখানেই শুরু অবিশ্বাসের। নিয়োগদাতা ও প্রাপ্তদের সম্পর্কের অন্যতম ভিত এই অঙ্গীকারবদ্ধতা। এর অভাব ডেকে আনতে পারে অবিশ্বাস, প্রতিষ্ঠানের জন্য বয়ে আনতে পারে ক্ষতি।

অনাস্থা

নানা কারণেই প্রতিষ্ঠানের প্রতি অনাস্থা জন্মাতে পারে কর্মচারীদের। আর এটা যাতে না ঘটে সে ব্যাপারে সব সময় সতর্ক থাকতে হয় কর্মকর্তাদের। এই অনাস্থা প্রতিষ্ঠানের স্থায়ী ক্ষতির কারণ হতে পারে।

দূরদর্শিতার অভাব

নিয়োগপ্রাপ্তদের আনুগত্য হারানোর অন্যতম কারণ নিয়োগদাতাদের দূরদর্শিতার অভাব। দূরদর্শী কর্তাদের সব কর্মী পছন্দ করে। আর পছন্দ থেকেই আসে আনুগত্য আর নির্ভরতা।

নীতিবোধহীন আচরণ

প্রতিটি মানুষেরই বিশেষ করে কর্মক্ষেত্রে নৈতিক আচরণ কাম্য। তবুও অনেক ক্ষেত্রে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অধীনদের সঙ্গে নীতিবোধহীন ও অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন।

পণ্যের মানহীনতা

পণ্যের মানহীনতার জন্য কর্মীরাই দায়ী। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় সুদক্ষ ও কর্মীবান্ধব কর্মকর্তাদের অভাবও এ জন্য যথেষ্ট দায়ী।

দুর্নাম

প্রতিষ্ঠানের কর্তাদের নানারকম দুর্নাম থাকে। আর্থিক খাতে অনিয়ম থেকে শুরু করে আরো অনেক রকম দুর্নামে খুব সহজেই আস্থা হারায় অধীনস্থরা।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ

নারীর প্রিয় বাহন স্কুটিগত এক দশকে প্রজন্মের বাহন হিসেবে মোটর সাইকেলের জনপ্রিয়তা বেড়েছে কয়েক গুণ। চলতি পথে কম সময়ে গন্তব্যে পৌঁছানো ও গতিময়তার সম্মিলনে প্রিয় বাহন হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে মোটর সাইকেল। বর্তমানে কোথাও যেতে হলে পোহাতে হয় যানজটের ঝক্কি, তার ওপর সময়মতো গাড়ি পাওয়া যায় না, আর পেলেও প্রায়ই গুনতে হয় ডাবল ভাড়া। ফলে অফিস কিংবা গন্তব্যে যেতে প্রায়ই দেরি হয়ে যায়, পোহাতে হয় সীমাহীন দুর্ভোগ। এ সব ঝামেলা থেকে মুক্তি পেতে নিজের একটি বাহন এখন বেশ দরকারি। তাই পুরুষের পাশাপাশি আধুনিক অনেক নারীরই বাহন হিসেবে বেছে নিচ্ছেন পছন্দসই একটি মোটর সাইকেল। এ ক্ষেত্রে স্কুটিই এখন অনেক নারীর প্রথম পছন্দ-

Bhorerkagoj