গরমে শান্তির পরশ

রবিবার, ১৫ মার্চ ২০২০

নতুন সংসার শুরু করেছে জোবায়ের-আফরিন। নতুন জীবন, তাই সবকিছুতেই চাই তাদের নতুনত্ব। ঘরের অন্দরসজ্জা থেকে রান্নাঘর, সবকিছুই তারা ঢেলে সাজাতে চায়। জোবায়ের কাজ করছেন একটি বহুজাতিক উন্নয়ন সংস্থায় আর আফরিন কাজ করছেন একটি স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠানে। দু’জনই সকালে বাসা থেকে বেরিয়ে ফেরেন রাতে। ব্যস্ততার জীবন। শীত পেরিয়ে আগমন ঘটেছে ঋতুরাজ বসন্তের। এই সময়ে প্রকৃতি ধারণ করেছে নবরূপ। চারপাশে কোকিলের কুহু কুহু ডাক। গাছপালা সেজেছে সম্পূর্ণ নতুন রূপে। এই দম্পতির বাসাটি হরেক রকমের গাছপালায় ঘেরা। প্রকৃতির এই রূপ বদলানোর খেলা তারা বারান্দায় বসে বেশ উপভোগ করে। তবে, আর কিছুদিন বাদেই বিদায় নেবে ঋতুরাজ বসন্ত। রুদ্রমূর্তি ধারণ করে আসবে গ্রীষ্ম। এই বিষয়টি তাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে। গ্রীষ্মকালের সূর্যের প্রখর তাপে তেঁতিয়ে উঠবে তাদের বাসার ছাদ। যার প্রভাব পড়বে তাদের দৈনন্দিন জীবনের ওপর। এ কারণে গ্রীষ্মকাল আসার আগেই তারা এয়ার কন্ডিশনার কেনার ভাবলেন। কিন্তু এখানেও সমস্যা। বাজারে অনেক ব্র্যান্ডের এয়ার কন্ডিশনার রয়েছে। এর মধ্যে ভালো ব্র্যান্ড বাছাই করতে গিয়ে তারা দ্বিধায় পড়ে। উপরন্তু, বিদ্যুৎ বিলের বিষয়টিও তাদের মাথায় রাখতে হবে। এ অবস্থায় তাদের সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ত্রাতা হয়ে আসলেন তাদের এক বন্ধু। খোঁজ দিলেন সিঙ্গারের পরিবেশবান্ধব ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী গ্রিন ইনভার্টার এয়ার কন্ডিশনারের। জোবায়ের আর আফরিন তাই এক ছুটির দিনে সিঙ্গারের এক শো-রুমে গেলেন। শো-রুম থেকে গ্রিন ইনভার্টার এয়ার কন্ডিশনারের ১, ১.৫ ও ২ টনের তিনটি মডেল থেকে পছন্দানুযায়ী ও তাদের কক্ষপোযোগী একটি এসি কিনে নেয়। সিঙ্গারের এয়ার কন্ডিশনারগুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে গ্রিন ইনভার্টার প্রযুক্তি, গোল্ড ফিন প্রযুক্তি ও পরিবেশবান্ধব আর৪১০এ রেফ্রিজারেন্ট। যা শুধু ৬০ শতাংশ বিদ্যুৎ সাশ্রয়ই করে না এর পাশাপাশি এই এয়ার কন্ডিশনারগুলো কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনার পাশাপাশি গ্রিন হাউজ গ্যাস নিঃসরণও কমায়। আসন্ন গ্রীষ্মকালকে সামনে রেখে জোবায়ের-আফরিন দম্পতির মতো যারা এসি কেনার কথা ভাবছেন তারা নিশ্চিন্তে সিঙ্গারের গ্রিন ইনভার্টার এয়ার কন্ডিশনার ক্রয় করতে পারেন। পরিবেশবান্ধব ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এই গ্রিন ইনভার্টার এয়ার কন্ডিশনারগুলো ব্যবহারকারীদের একটি স্বাচ্ছন্দ্য ও নিশ্চিন্ত জীবন উপভোগে সাহায্য করবে।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj